পোলার্ড সাদা বলে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পালনের সময় তাঁর সহকারী ছিলেন পুরান। পোলার্ডের অনুপস্থিতিতে গত বছর ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪-১ ব্যবধানে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়ে নেতৃত্ব দেন তিনি। সাদা বলে দুই সংস্করণ মিলিয়ে এ পর্যন্ত ১০ ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়কত্ব করে ৬ ম্যাচ হেরেছেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান।

পুরানকে অধিনায়ক বানানোর বিবৃতিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের (সিডব্লিউআই) পরিচালক জিমি অ্যাডামস বলেছেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি, অভিজ্ঞতা, পারফরম্যান্স এবং দলের মধ্যে সম্মান পাওয়া বিচারে সাদা বলে অধিনায়কত্ব করতে প্রস্তুত নিকোলাস।’

ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হওয়ার পর পুরানের প্রতিক্রিয়া, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের অধিনায়ক হতে পেরে গর্ব লাগছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটে দারুণ অবদান রাখা দুর্দান্ত কিছু ক্রিকেটারের পদাঙ্ক অনুসরণ করব আমি। অধিনায়ক হতে পারাটা আমার ক্যারিয়ারের উজ্জ্বল মুহূর্ত। সমর্থকদের জন্য মাঠে দল নিয়ে দারুণ কিছু করতে চাই।’

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এক শতক পাওয়া পুরান ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ৩৭ ওয়ানডেকে ১১২১ এবং ৫৭ টি-টোয়েন্টিতে ১১৯৩ রান করেছেন। অধিনায়ক হিসেবে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে নিজের মেয়াদ শুরু করবেন পুরান।

আইসিসি বিশ্বকাপ সুপার লিগের অংশ এই সিরিজ। ৩১ মে থেকে শুরু হবে তিন ম্যাচের এই ওয়ানডে সিরিজ। জাতীয় দলের পাশাপাশি বিশ্বজুড়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট খেলে বেড়ান পুরান। এবার আইপিএলে তিনি খেলছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে।

পুরানের অধিনায়ক হওয়া প্রসঙ্গে সিডব্লিউআই সভাপতি রিকি স্কেরিট বলেছেন, ‘পুরান ঈশ্বরপ্রদত্ত প্রতিভা। অধিনায়ক হওয়ার জন্য সে-ই যোগ্য ব্যক্তি।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন