সাব্বিরের অপেক্ষা ফুরোবে কবে?

বিজ্ঞাপন
default-image
মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আজ অনুশীলন শুরু করেছেন ক্রিকেটার সাব্বির রহমান।

জাতীয় দলের হয়ে সর্বশেষ খেলেছিলেন গত বছরের জুলাই মাসে, বাংলাদেশ দলের শ্রীলঙ্কা সফরে। বাজে ফর্মের কারণে এরপর আর জাতীয় দলে জায়গা হয়নি সাব্বির রহমানের। বিপিএলে রংপুর ওয়ারিয়র্সে অনেক সুযোগ পেয়েছেন। কিন্তু ধারাবাহিকভাবে রান পাননি সেখানেও। প্রিমিয়ার লিগে বড় কিছু করে আবার দলে ফেরার প্রতিযোগিতায় ফিরতে পারতেন। দুর্ভাগ্য সাব্বিরের—করোনাভাইরাস সেই সুযোগটাও কেড়ে নিল।

তবু সাব্বির এখন অপেক্ষায় আছেন ঘরোয়া ক্রিকেটেরই, যেখানে ভালো খেলে আবার দেখতে পারেন জাতীয় দলের দরজা। নিজেকে ফিট রাখছেন সে অনুপ্রেরণা থেকেই। প্রথম আলোকে আজ সাব্বির বলছিলেন, ‘দলে ফেরার জন্য সুযোগ পেতে হবে। সেটা খেলা না হলে সম্ভব নয়। এখন খেলা হওয়াটাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ, সেটা যেকোনো খেলাই হোক না কেন। ডিপিএল, বিপিএল, জাতীয় লিগ বা বিসিএল—যাই হোক না কেন, চেষ্টা করব ভালো কিছু করে দলে ফিরতে। এই আশা থেকেই অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছি।’

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে গত পাঁচ মাসের মধ্যে আজই প্রথমবারের মতো অনুশীলন করেছেন সাব্বির। করোনার বিরতির পর প্রথম দিনের অনুশীলন সবার জন্যই কঠিন হলেও সাব্বিরকে ব্যতিক্রম মনে হলো। করোনার সময়টা রাজশাহীতে ইনডোরে ব্যাটিং-বোলিং করেছেন। জিমনেসিয়াম ব্যবহার করেছেন। বাসার সিঁড়ি, বাড়ির পলাশের মাঠে দৌড়েছেন। মিরপুরে একক অনুশীলনে ফিরে তাই বাকিদের মতো প্রথম দিনের চ্যালেঞ্জটা নিতে হয়নি সাব্বিরকে, ‘আমার কাছে খুব কঠিন মনে হয়নি। করোনার সময়টায় রাজশাহীতে আমি মাঠেই কাজ করেছি। মাঠ ও বাসায় অনুশীলনের পার্থক্য আছে। বাসায় কাজ করার পর মাঠে এসে অনেকের হয়তো কষ্ট হচ্ছে। আমার সে রকম মনে হয়নি।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন