সেঞ্চুরি করে তুষার জানালেন, এই মৌসুমেই শেষ
সেঞ্চুরি করে তুষার জানালেন, এই মৌসুমেই শেষপ্রথম আলো

বাংলাদেশের হয়ে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রান, সর্বোচ্চ সেঞ্চুরির রেকর্ডের পাশে তুষার ইমরানের নাম। আজ জাতীয় ক্রিকেট লিগে স্বাগতিক রংপুর বিভাগের বিপক্ষে খুলনা বিভাগের হয়ে সেঞ্চুরি করে সেই তুষার হয়ে গেলেন জাতীয় লিগেরও সর্বোচ্চ সেঞ্চুরিয়ান। ২০তম সেঞ্চুরি করে ছাড়িয়ে গেছেন নাঈম ইসলামকে। এভাবেই দাপট অব্যাহত রেখে মৌসুম শেষে অবসরে যেতে চান বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের এই রান মেশিন।

default-image

 
এবারের জাতীয় লিগ শুরুর আগে লক্ষ্য ছিল প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১২ হাজার রান স্পর্শ করা। আজকের ১১৬ রানের ইনিংসের পর তুষার তাঁর লক্ষ্যের খুব কাছেই পৌঁছে গেছেন। আর ৮০ রান হলেই প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১২ হাজার রানের মাইলফলক ছোঁবেন। তুষার আশাবাদী, ‘১২ হাজার রানের লক্ষ্য ছিল। আর ৮০ রানের মতো লাগে। আশা করি হয়ে যাবে সেটা।’

বিজ্ঞাপন

তুষারের সেঞ্চুরির পরেও খুলনা প্রথম ইনিংসে ২২১ রানে অলআউট হয়ে যায়। মাত্র ১৩৬ বলে ৮৫ স্ট্রাইক রেটের সেঞ্চুরির দিন তুষারের পড়ে পড়ছিল আগের ম্যাচে ৯৯ রানে রানআউট হওয়ার মুহূর্তটি, ‘আগের রাউন্ডে ৯৯ এর সময় রান নিতে গিয়ে রানআউট হই। এবার এক রানের জন্য যাইনি। ইচ্ছে ছিল, এক রানের জন্য না গিয়ে চার মেরে দেব। তাই করেছি।’
এই মৌসুমটি এমন রান বন্যায় ভাসিয়েই শেষ করতে চান ৩৭ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান। এরপর ব্যাট-প্যাড তুলে রাখার ইচ্ছা তাঁর। ২১ বছরের দীর্ঘ ক্যারিয়ারের ইতিটা মাথা উঁচু করে টানতে চান তিনি, ‘আগেই বলে দিয়েছি। এটাই আমার শেষ মৌসুম। এই মৌসুমের সব ম্যাচ খেলেই শেষ করতে চাই।’

আগেই বলে দিয়েছি। এটাই আমার শেষ মৌসুম। এই মৌসুমের সব ম্যাচ খেলেই শেষ করতে চাই।

এবারের জাতীয় লিগে শুরু থেকে রান করলেও খেলা চালিয়ে যাওয়ার ইচ্ছে মরে গেছে তুষারের। গত কয়েক মৌসুমে রান করেও টেস্ট দলে ডাক না পাওয়ায় এখন আর খেলার অনুপ্রেরণা পান না এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান, ‘এখন আর ইচ্ছে কাজ করে না। আমি গত কয়েক মৌসুম অনেক রান করেও টেস্ট দলে ডাক পাইনি। এভাবে খেলে কী লাভ। এর চেয়ে ভালো সম্মান থাকতে থাকতে চলে যাই। এই মৌসুমে আমি এক হাজার রান করলেও লাভ নেই। খেলে কী করব। হয়তো কিছু টাকা পাব। কিন্তু টাকার চেয়ে তো সম্মান বড়।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন