দক্ষিণ আফ্রিকার নারী ক্রিকেট দল।
দক্ষিণ আফ্রিকার নারী ক্রিকেট দল। ছবি: টুইটার

লকডাউনের কারণে পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচ না খেলেই আজ সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ছেড়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা নারী ইমার্জিং দল। কিন্তু সোমবারের করোনা পরীক্ষায় পজিটিভ হওয়ায় দলের সঙ্গে যেতে পারেননি দলটির পাঁচ সদস্য। সকালে যেতে না পারলেও বিকেলে করোনা নেগেটিভ হয়ে আজ সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ছেড়েছেন সেই পাঁচজন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের চিকিৎসক মনজুর হোসাইন চৌধুরী।

গতকাল সকালে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দলের সব খেলোয়াড়ের করোনা পরীক্ষা করানো হয়। রাতে পজিটিভ আসার পর সেই পাঁচ খেলোয়াড়কে আইসোলেশনে রাখা হয়। আজ দ্বিতীয় পরীক্ষায় নেগেটিভ এলে বিশেষ বিমানে সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ছাড়েন তাঁরা। ধারণা করা হচ্ছে, সোমবার করানো করোনা পরীক্ষায় ফলস পজিটিভ এসেছিল নারী ক্রিকেটারদের। এ বিষয়ে চিকিৎসক মনজুর হোসাইন বলেন, ‘পাঁচজনের সবারই নেগেটিভ এসেছে। আমরা ধরে নিচ্ছি আগের রিপোর্টটা ফলস পজিটিভ ছিল। আজ ছয়টায় ফিরে গেছে তারা।’

বিজ্ঞাপন

দক্ষিণ আফ্রিকার ইমার্জিং দলের এই পাঁচ সদস্য সিনালো জাফটা, লিয়াহ জোনস, নোবুলুমকো বানেটি, রবিন শার্লি ও মারসিয়া লেতসোয়ালো। ৫টি এক দিনের ম্যাচ খেলতে গত ২৮ মার্চ বাংলাদেশে এসেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা ইমার্জিং নারী দল। করোনা পরিস্থিতির কারণে শেষ ম্যাচটি বাতিল হলেও ৪-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নেন বাংলাদেশের মেয়েরা।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন