সৌরভ গাঙ্গুলীর ফুটবল-ভক্তি সবাই জানেন। ভারতের ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা এই ক্রিকেটার ফুটবল নিয়ে মেতেছেন বহুবার। বাঙালি বলেই হয়তো ফুটবলটা একটু আলাদা করেই টানে তাঁকে। কলকাতার ঘরোয়া ময়দানে ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগান তো বটেই, সৌরভ মন দিয়ে অনুসরণ করেন ইউরোপীয় ফুটবলও। ইউরোপে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তাঁর প্রিয় দল, আর এই দলটার বর্তমান অবস্থা সাবেক ভারতীয় ক্রিকেট অধিনায়ককে বেশ ভালোই পোড়ায়। তবে তিনি আশাবাদী, দলটা আবার আগের জায়গায় ফিরবে।

default-image

ভারতের ঘরোয়া ফুটবল লিগ ইন্ডিয়ান সুপার লিগে (আইএসএল) এক সময় আতলেতিকো ডি কলকাতার সঙ্গে জড়িয়ে ছিলেন সৌরভ। বিসিসিআইয়ের বর্তমান সভাপতি আরেকটি আইএসএলে এটিকে মোহনবাগানের অন্যতম কর্ণধার। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আইএসএল নিয়ে কথা বলতে গিয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড প্রসঙ্গেও নিজের অনুভূতির কথা শুনিয়েছেন সৌরভ, ‘আমার প্রিয় দল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। আমি জানি, তারা এখন খুব ভালো অবস্থায় নেই। তবে খেলায় এমনটা হয়। আমার মনে হয় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এ অবস্থা কাটিয়ে উঠবে। গত মৌসুমেই ইউনাইটেড উলে গুনার সুলশারের অধীনে নিজেদের ফেরানোর প্রক্রিয়াটা শুরু করেছিল। কিন্তু এ বছরটা পুরোপুরি ভিন্ন। আমি আশা করি, তারা একসময় যে জায়গায় ছিল, খুব দ্রুতই সেখানে পৌঁছতে পারবে।’

default-image
বিজ্ঞাপন

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের আগের অবস্থায় যাওয়া বলতে তো স্যার আলেক্স ফার্গুসনের অর্জনকে ছোঁয়া। তবে সৌরভ মনে করেন, ফার্গুসন এমন একজন কোচ, যাঁকে ছোঁয়া হয়তো বেশ কঠিনই, ‘স্যার আলেক্স ফার্গুসন হচ্ছেন “এক প্রজন্মে একবারই আসেন” ধরনের একজন কোচ। তাঁকে ছোঁয়া এত সহজ নয়।’

করোনার কারণে এবারের আইপিএল ভারতের মাটিতে আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। তবে সেটি সংযুক্ত আরব আমিরাতে সফলভাবে আয়োজিত হয়েছে। তবে আইএসএল একদিক দিয়ে আইপিএলকে ছাপিয়ে গেছে। করোনার প্রকোপ সেভাবে না কমলেও ভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন তাদের শীর্ষ লিগটি দেশের মাটিতেই আয়োজন করছে। ব্যাপারটি বেশ ভালো লেগেছে সৌরভের, ‘আইএসএল ভারতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে দেখে বেশ ভালো লাগছে। আইএসএলের দেখাদেখি অন্য খেলাগুলোও দ্রুত শুরু হবে বলে আশা করি। আইএসএলই পারে ফুটবলকে ক্রিকেটের জনপ্রিয়তার পর্যায়ে নিয়ে যেতে।’

নিজের ফুটবলপ্রেম সম্পর্কে সৌরভের বক্তব্য, ‘কলকাতায় জন্মেছি বলেই ফুটবল খেলাটা অনেক আগে দেখা শুরু করেছি।’ এটিকে মোহনবাগান নিয়েও আশাবাদী তিনি, ‘নিজের দল দেখেই অন্য রকম উত্তেজনা অনুভব করছি। তিনবারের শিরোপাধারী আমরা। নিজের দল খেলছে বলেই আইএসএলকে অনেক আপন মনে হয়।’

মন্তব্য পড়ুন 0