বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

মে মাসে ভারতে করোনার প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ার পর বিদেশি ক্রিকেটাররা আইপিএল ছাড়তে মরিয়া হয়ে পড়েছিলেন। ভারত থেকে ফিরতেও অনেক ঝামেলা পোহাতে হয়েছে তাঁদের। অস্ট্রেলিয়া ভারতের সঙ্গে আকাশপথ বন্ধ করে দেওয়ার পর অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটারদের দেশে ফিরতে মালদ্বীপে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন কাটাতে হয়েছে। এবার আইপিএলের বাকি অংশে বেশ কয়েক বিদেশি তারকাকে পাওয়া যাচ্ছে না।

ইংল্যান্ড থেকে যেমন বেন স্টোকস, জস বাটলার, জনি বেয়ারস্টো, জফরা আর্চার, ডেভিড মালান, ক্রিস ওকসকে পাচ্ছে না আইপিএল। আরব আমিরাতে শুরু হতে যাওয়া মৌসুমের বাকি অংশ খেলবেন তাঁরা। বান্ধবী সন্তানসম্ভবা হওয়ায় অস্ট্রেলিয়ার পেসার প্যাট কামিন্সও খেলবেন না। তবে ইংল্যান্ডের কিছু খেলোয়াড় চোটে আছেন এবং তাঁদের বাইরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে বিশ্রাম নিতে আইপিএল খেলবেন না।

ব্যক্তিগত সিদ্ধান্তের জায়গা থেকেও কেউ কেউ সরে দাঁড়িয়েছেন আইপিএলের বাকি অংশ থেকে। তাঁদের মধ্যে কারও কারও সিদ্ধান্তের পেশাদারি নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে, বিশেষ করে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পঞ্চম টেস্ট খেলতে ভারতের অপারগতা প্রকাশের পর। নাম প্রকাশ না করার শর্তে আইপিএলের একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের কর্মকর্তা সংবাদ সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, ‘কিছু খেলোয়াড় ভদ্রতা করে আগেই (না খেলার কথা) জানিয়েছে। তবে তাঁদের মধ্যে একজন অপেশাদার আচরণ করেছেন।’

default-image

বিসিসিআই প্রধান সৌরভ গাঙ্গুলী এর আগে জানান, করোনার সংক্রমণ নিয়ে ভীত হয়ে পড়ায় সিরিজের পঞ্চম টেস্ট খেলতে চাননি ভারতের ক্রিকেটাররা। তবে ইংলিশ ধারাভাষ্যকারেরা ছেড়ে কথা বলেননি। তাঁদের দাবি, আইপিএলের কথা ভেবেই পঞ্চম টেস্ট খেলতে চায়নি বিরাট কোহলির দল। যদিও ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট এ অভিযোগ তীব্রভাবে অস্বীকার করেছে।

ভারত ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু অধিনায়ক বিরাট কোহলি বলেছিলেন, ‘দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমাদের এখানেই শেষ করতে হচ্ছে। কোভিড সংক্রমণ বাড়ায় সবকিছুই অনিশ্চিত। যেকোনো সময় যেকোনো কিছু ঘটতে পারে।’ আটটি ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের এ টুর্নামেন্টে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে দিল্লি ক্যাপিটালস। মৌসুমের বাকি ৩১ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে দুবাই, শারজা ও আবুধাবিতে। ১৫ অক্টোবর দুবাইয়ে হবে ফাইনাল, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরুর দুদিন আগে।

কোহলি মনে করেন, আইপিএল এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মিলিয়ে সামনের সময়টা রোমাঞ্চকর, ‘সময়টা খুব রোমাঞ্চকর হবে, প্রথম আরসিবি এবং পরে ভারতের জন্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ।’ এই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কোহলির নেতৃত্বগুণে আলাদা করে নজর থাকবে সবার। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর এ সংস্করণে ভারতের নেতৃত্ব ছাড়ার ঘোষণাটা কালই দিয়েছেন কোহলি।

default-image

অস্ট্রেলিয়ার লেগ স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা ও কেন রিচার্ডসনের বিকল্প খেলোয়াড় দলে টেনেছে কোহলির বেঙ্গালুরু। গত এপ্রিলে ভারতে করোনার সংক্রমণ বাড়ার পর দেশে ফিরে যান দুজন। শ্রীলঙ্কার দুষ্মন্ত চামিরা, ওয়ানিন্দু হাসারঙ্গা এবং সিঙ্গাপুরের ব্যাটসম্যান টিম ডেভিডকে দলে টেনেছে বেঙ্গালুরু। ইংলিশ অলরাউন্ডার ক্রিস ওকসের বিকল্প হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার পেসার বেন ডুয়ারসুইসকে ডেকেছে দিল্লি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সামনে রেখে বিশ্রাম নিতে আইপিএলে খেলবেন না ওকস।

টেবিলের পাঁচে থাকা রাজস্থান রয়্যালসের প্লে অফে খেলার আশা বড় ধাক্কা খেয়েছে আগেই। স্টোকস (মানসিক কারণ), আর্চার (চোট), বাটলারকে (ব্যক্তিগত কারণ) এমনিতেই পাচ্ছে না রাজস্থান। এবার আইপিএল স্থগিত হওয়ার আগেই রাজস্থান ছেড়েছেন ইংল্যান্ডের লিয়াম লিভিংস্টোন।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন