default-image

অ্যাশেজে ভরাডুবির পর ইংলিশ ক্রিকেটে বদলের অংশ হিসেবে কোচ ক্রিস সিলভারউডকে ছাঁটাই করেছে ইংল্যান্ড, সরে গেছেন ক্রিকেট পরিচালক অ্যাশলি জাইলসও। এর মধ্যে জো রুটও টেস্ট অধিনায়কের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। রুটের জায়গায় নতুন টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে স্টোকস দায়িত্ব পেতে পারেন বলে গুঞ্জন। তবে তার আগে ক্রিকেট পরিচালক পদে জাইলসের জায়গায় দায়িত্ব পাওয়া রব কি-র বড় দায়িত্ব স্টোকস-রুটদের জন্য কোচ খুঁজে বের করা। তা-ও একজন নয়, গুঞ্জন সত্যি হলে দুজন খুঁজতে হবে!

default-image

সেই দায়িত্বে গত মাসে ধারাভাষ্যের সঙ্গীকেই কি খুঁজে নিচ্ছেন কি? গত মাসে ইংল্যান্ডের পাকিস্তান সফরে তিন টেস্টের সিরিজে ক্যাটিচের সঙ্গে ধারাভাষ্য দিয়েছেন রব কি। এখন ইংলিশ দৈনিক দ্য টেলিগ্রাফ জানাচ্ছে, ২০১০ সালে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৫৬ টেস্টের সর্বশেষটি খেলা ক্যাটিচই দুই কোচের মধ্যে একজন হতে পারেন।

‘কড়া ও জেদি কোচ হিসেবে ক্যাটিচের সুনাম আছে, তাঁর খেলোয়াড়ি দিনগুলোর ধরনের সঙ্গে যায় সেটি। ইংল্যান্ড যদি প্রধান কোচের দায়িত্বটা ভাগ করে দেয়, লাল বল ও সাদা বলের ক্রিকেটে দুজন ভিন্ন কোচ রাখে, সে ক্ষেত্রে ক্যাটিচ দুই ভূমিকার যেকোনো একটির বড় দাবিদার হতে পারেন। যদিও তাঁর লাল বলের ক্রিকেটে কোচ হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি’—লিখেছে দ্য গার্ডিয়ান।

default-image

ক্যাটিচকে এগিয়ে রাখতে পারে ইংলিশ কাউন্টির অভিজ্ঞতাও। রব কি-এর মতো ক্যাটিচও ইংলিশ কাউন্টি ক্রিকেটে লম্বা সময় কাটিয়েছেন, খেলেছেন ডারহাম, ইয়র্কশায়ার, হ্যাম্পশায়ার, ডার্বিশায়ার ও ল্যাঙ্কাশায়ারের মতো কাউন্টিতে। খেলা ছাড়ার পর কোচিংয়ে বিভিন্ন ভূমিকায়ই কাজ করেছেন ক্যাটিচ, ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটেই বেশি। ইংল্যান্ডের ১০০ বলের টুর্নামেন্ট দ্য হানড্রেডে ম্যানচেস্টার অরিজিনালসের কোচ তিনি, ২০১৯ সাল থেকে গত বছর পর্যন্ত আইপিএলে কাজ করেছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন