default-image

দাপটটা উপমহাদেশের ব্যাটসম্যানদেরই দেখানোর কথা। স্পিনের বাঁক, বাউন্স আর বৈচিত্র্যের বিভ্রান্তি তাদেরই বুঝতে পারার কথা ভালো। এশিয়ার উইকেটে বেড়ে ওঠা ক্রিকেটারই পায়ের ব্যবহারের শুষে নিতে পারেন স্পিনের বিষ, কবজির মোচড়ে অনায়াসে সচল রাখতে পারেন স্কোরবোর্ড। এ কারণেই তো যখন বলা হয়, গত দুই বছরের টেস্টে স্পিনের বিপক্ষে সেরা পাঁচ ব্যাটসম্যানের চারজনই উপমহাদেশের, তখন খুব একটা বিস্ময় জাগে না। আর এঁদের একজন বাংলাদেশের মুশফিকুর রহিম।

চেতেশ্বর পূজারা, বাবর আজম, মুশফিকুর রহিম ও বিরাট কোহলি—স্পিনের বিপক্ষে প্রত্যেকের ব্যাটিং গড় অবিশ্বাস্য। অস্ট্রেলিয়ার মারনাস লাবুশেন আছেন সেরা পাঁচে। বাংলাদেশের আরেক ব্যাটসম্যান মুমিনুল হকও স্পিনের বিপক্ষে কম বিধ্বংসী নন, সেরা দশে আছেন তিনিও।

সবার চেয়ে আলাদা টেস্টে ভারতের ব্যাটিংয়ের মেরুদণ্ড হয়ে ওঠে পূজারা। স্পিনারদের পেলে যেন দৈত্য হয়ে ওঠেন! গত দুই বছরে পূজারার গড় (১৩৮.৭৫) তাই বলছে। পূজারা লম্বা সময় ব্যাটিং করার জন্য পরিচিত। পেসারদের ক্লান্ত করে স্পিনে রান করায় পটু। কাজটা বেশ ধারাবাহিকতার সঙ্গে করে আসছেন। পরিসংখ্যানও তাই বলে।

পাকিস্তানের বাবর আজমও কম যান না। স্পিনে তাঁর গড় প্রায় এক শ ছুঁই ছুঁই (৯৮.১৬)। স্পিন এলেই হাত খুলে খেলা শুরু করেন বাবর। এই তো শেষ হওয়া ম্যানচেস্টার টেস্টের কথাই ধরুন। প্রথম ইনিংসে ইংলিশ স্পিনার ডম বেস বোলিং আসার সঙ্গে সঙ্গেই ফুল মিড উইকেটে ছক্কা, কাভার ড্রাইভে চার ও পা ব্যবহার করে মিড অন দিয়ে চার মারেন। অথচ অন্য প্রান্ত থেকে বোলিং করা পেসারদের বিপক্ষে বেশ সতর্ক ছিলেন বাবর। বাজে বল পেলে তবেই মারছিলেন।

বাবরের পর স্পিনে সেরা মুশফিক (৯২.৬৬)। স্পিনের বিপক্ষে ভালো করার জন্য সব হাতিয়ার মুশফিকের আছে। স্পিনারদের ভালো বলটা ঠেকিয়ে দেওয়ায় দক্ষ মুশফিক। আর সময়ের সঙ্গে মুশফিক যোগ করেছেন বহু শট। স্পিনারদের বিপক্ষে উইকেটের চারপাশে রান করেন মুশফিক। সুইপ, রিভার্স সুইপ, স্লগ সুইপ, প্যাডেল সুইপে মুশফিক প্রচুর রান করেন। কাভারের ওপরের খালি জায়গাটা ব্যবহার করেন লফটেড কাভার ড্রাইভে।

গড়ে বিরাট কোহলি (৯১.৪২) আছেন মুশফিকের কাছাকাছি। স্পিনে মুশফিকের মতো এত শট না খেললেও রান কম করেন না কোহলি। অস্ট্রেলিয়ার মারনাস লাবুশেন, নিউজিল্যান্ডের কেন উইলিয়ামসন, টম লাথামরাও স্পিনের বিপক্ষে প্রচুর রান করেন। আরেক বাংলাদেশি মুমিনুল হকের স্পিনের বিপক্ষে গড় ৬৭.২০। গত দুই বছরে স্পিনের বিপক্ষে সেরা দশ ব্যাটসম্যানের মধ্যে আট নম্বরে আছেন বাংলাদেশ দলের টেস্ট অধিনায়ক।

২০১৮ সাল থেকে স্পিনের বিপক্ষে ব্যাটিং গড় :

চেতেশ্বর পূজারা - ১৩৮.৭৫
বাবর আজম - ৯৮.১৬
মুশফিকুর রহিম - ৯২.৬৬
বিরাট কোহলি - ৯১.৪২
মারনাস লাবুশেন - ৮০.০০
কেন উইলিয়ামসন - ৭৫.১৪
টম লাথাম - ৭১.৬২
মুমিনুল হক - ৬৭.২০
অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস - ৬৫.৩৭
জো রুট - ৫৯.০০

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0