বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আগের ইনিংসে বল হাতে লাসিথ এমবুলদেনিয়ার দাপটই বুঝিয়েছিল, এই টেস্ট হতে চলেছে স্পিনারদের। লিচ আর বেস যেন সে প্রমাণই দিলেন আবার। ৭৮ রান তুলতেই ৮ উইকেট হারিয়ে বসে লঙ্কানরা।

দশে নামা এমবুলদেনিয়ার ব্যাট থেকে এসেছে সর্বোচ্চ ৪০ রান। চারটি করে উইকেট ভাগাভাগি করে নিয়েছেন লিচ ও বেস। ইনিংসের শুরুতে জিমি অ্যান্ডারসন ও স্যাম কুরানকে দিয়ে দুই-দুই চার ওভার করিয়েই রুট বল তুলে দিয়েছিলেন দুই স্পিনারকে। কোচের আস্থার প্রতিদান দিতে ভুল করেননি লিচ আর বেস। ইংল্যান্ড অধিনায়ক রুট নিজেও নিয়েছেন ২ উইকেট।

কুশল পেরেরা ও লাহিরু থিরিমান্নেকে ফিরিয়ে টপ অর্ডার ভেঙেছেন লিচ, সঙ্গে তুলে নিয়েছেন অধিনায়ক দীনেশ চান্দিমাল ও রমেশ মেন্ডিসের উইকেট দুটোও।

ওদিকে বেস একে একে তুলেছেন ওশাদা ফার্নান্দো, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, নিরোশান ডিকভেলা ও দিলরুয়ান পেরেরার উইকেটগুলি।

৭৮ রানে অষ্টম উইকেট পড়ে যাওয়ার ব্যাট হাতে নেমেছেন আগের ইনিংসে সাত উইকেট নেওয়া এমবুলদেনিয়া। দ্বিতীয় ইনিংসে ‘ডিফেন্ড’ করার জন্য স্কোরবোর্ডে যেন পর্যাপ্ত রান থাকে, সে দায়িত্ব নিজেই তুলে নিয়েছেন যেন এই স্পিনার।

উইকেটে এসেই মেরে খেলা শুরু করেন তিনি। ২২ বলে তিন চার ও এক ছক্কায় ২৫ রান তুলে ফেলেছিলেন এমবুলদেনিয়া। শেষ পর্যন্ত তিনি আউট হওয়ার পরের বলে ফার্নান্দোও ফেরায় অলআউট হয় শ্রীলঙ্কা।

সকালে জ্যাক লিচকে তাড়াতাড়ি তুলে নিয়ে ইংল্যান্ডের ইনিংস ৩৪৪ রানেই থামিয়ে দিয়েছিলেন দিলরুয়ান পেরেরা। তখন যদি তাঁরা ঘুণাক্ষরেও জানতেন, কী অপেক্ষা করছে তাঁদের জন্য!

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে বিনা উইকেটে ১৭ রান তুলেছে ইংল্যান্ড। দিনের খেলা আরও প্রায় ৪৩ ওভার বাকি থাকায় অলৌকিক কিছু না ঘটলে আজ–ই জয় নিশ্চিত করে ফেলতে পারে সফরকারি দল।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন