বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা অস্ট্রেলিয়া এদিন ৪ ওভারের মধ্যে ১৫ রানে ৩ উইকেট হারায়। ৭ রানে প্রথম উইকেট পড়ার পর আগের পরিকল্পনা অনুযায়ী স্মিথকে তিন নম্বরে ব্যাটিংয়ে নামায় অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু স্মিথ মাত্র ৫ বলই ক্রিজে ছিলেন। ক্রিস জর্ডানের বলে ক্রিস ওকসের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন ১ রান করে। বিষয়টি মোটেই ভালো লাগেনি ওয়ার্নের। ম্যাচ শেষে তিনি টুইট করেছেন, ‘মিচেল মার্শকে একাদশে না রাখাটা অস্ট্রেলিয়া দলের হতাশাজনক একটা সিদ্ধান্ত। আমি স্মিথকে পছন্দ করি। কিন্তু তার আসলে টি-টোয়েন্টি দলে থাকা উচিত নয়। টি-টোয়েন্টি দলে থাকবে মার্শ।’

এবারের বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার তিন ম্যাচের তিনটিতেই খেলেছেন স্মিথ। প্রথম দুই ম্যাচে তিনি করেছেন ৬৩ রান। প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৩৫ আর দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অপরাজিত ২৮ রান। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ইংল্যান্ডের বিপক্ষেই চরম ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। এটাই হয়তো ভালো লাগেনি ওয়ার্নের।

default-image

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্রুত ২ উইকেট পড়ে যাওয়ার পর চার নম্বরে ব্যাট করতে আসেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ৯ বলে ৬ রান করে ওকসের বলে এলবিডব্লু হয়ে ফেরেন তিনি। ম্যাক্সওয়েলের ব্যাটিং অর্ডার নিয়েও খুব একটা সন্তুষ্ট নন ওয়ার্ন। নিজের টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘ম্যাক্সওয়েলকে পাওয়ারপ্লেতে নামানো...তার সব সময় পাওয়ারপ্লের পর ব্যাটিংয়ে আসা উচিত। ওই সময় (মার্কাস) স্টয়নিসকে নামাতে পারত। সব মিলিয়ে এটা অস্ট্রেলিয়া দলে খুব বাজে পরিকল্পনা ও কৌশল ছিল।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন