হরভজনকে মারতে গিয়েছিলেন শোয়েব

বিজ্ঞাপন
default-image

মাঠের মধ্যে আগ্রাসী আচরণের জন্য বিখ্যাত ছিলেন শোয়েব আখতার। ব্যাটসম্যানের দিকে তেড়েফুড়ে আসতেন বল হাতে। বলের কাজ শেষ হলে দেহ ভঙ্গিমায়ও আতঙ্ক ছড়াতে চাইতেন। তাই বলে খেলার শেষেও মারামারি করতে চাওয়াটা একটু বাড়াবাড়ি। কিন্তু শোয়েব আখতার জানালেন, একবার হরভজন সিংকে ম্যাচের শেষে মারতে গিয়েছিলেন!

২০১০ এশিয়া কাপে ঘটেছিল এ ঘটনা। শ্রীলঙ্কার ডাম্বুলায় এশিয়া কাপের ম্যাচে টানটান উত্তেজনাপূর্ণ এক ম্যাচে শেষ ২ বলে ৩ রান দরকার ছিল ভারতের। মোহাম্মদ আমিরের বলে ছক্কা মেরে এক বল হাতে রেখেই দলকে জিতিয়েছিলেন হরভজন সিং। জয়ের আনন্দে হুংকার ছেড়েছিলেন হরভজন, কিন্তু তাঁর গর্জনের লক্ষ্য বোলার নয়, ছিলেন শোয়েব আখতার। কারণ এর আগে বল করতে আসা শোয়েবের সঙ্গে একচোট হয়ে গিয়েছিল হরভজনের।

হেলো অ্যাপে এক ভিডিও সাক্ষাৎকারে সেই ঘটনার কথা বলেছেন শোয়েব, 'আমি হরভজনের হোটেল রুমে ওকে খুঁজতে গিয়েছিলাম মারামারির জন্য। সে আমাদের সঙ্গে খায়, লাহোরের আমাদের সঙ্গে ঘোরে, আমাদের সঙ্গে সংস্কৃতির এত মিল; সে একজন পাঞ্জাবি ভাই আর সে আমাদের সঙ্গে বাজে আচরণ করে? আমি ভাবলাম যাই গিয়ে ওর হোটেল রুমে মার দিয়ে আসি। সে জানত শোয়েব আসছে কিন্তু ওকে খুঁজে পাইনি। পরের দিন শান্ত হই এবং সেও ক্ষমা চেয়ে নেয়।'

ঘটনার শুরু ৪৭তম ওভারে। যখন শোয়েবের এক বলে লং অন দিয়ে ছক্কা মারেন হরভজন। এতে ক্ষেপে গিয়ে হরভজনের শরীর তাক করে বেশ কয়েকটি বাউন্সার মারেন, কথাও শোনান কিছু। হরভজন তো আর ছেড়ে দেওয়ার পাত্র নন। তিনিও দিয়েছিলেন কড়া জবাব। শেষ হাসি হরভজনই হেসেছেন। তাঁর ১১ বলের ১৫ রানের ইনিংসে জয় পায় ভারত। আর ৫৭ রান দিয়েও উইকেটশূন্য ছিলেন শোয়েব।

হরভজনও বেশ কয়েক বছর আগে এই ঘটনার কথা বলেছিলেন, 'শোয়েব আমাকে হুমকি দিয়েছিল হোটেল রুমে এসে আমাকে পেটাবে। আমি বলেছিলাম ,"এসো, দেখা যাবে কে কাকে মারে।" আমি আসলে খুব ভয় পেয়েছিলাম। সে দৈত্যাকার। আমাকে আর যুবরাজকে একবার এক রুমে লাঞ্চনা করেছিল। সে এত ভারী যে ওকে ধরে রাখা কঠিন।' ম্যাচে তর্কাতর্কির সময় উইকেটে হরভজনের সঙ্গে সুরেশ রায়নাও ছিলেন। ইরফান পাঠানের সঙ্গে ইনস্টাগ্রাম লাইভে সে ঘটনার বর্ণনা দিয়েছিলেন রায়না, 'ভাজ্জি একজন যোদ্ধা। আমার মনে আছে শোয়েব আখতারের সঙ্গে একবার বেশ কথা কাটাকাটি হয়েছিল তাঁর কিন্তু পরে ঠিকই ছক্কা মেরে ম্যাচ জিতিয়ে এনেছিল।'

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন