হাফিজের বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগ, হরভজনের ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল

বিজ্ঞাপন
default-image

দুজন ভালোই বিপাকে পড়েছেন। যদিও দুজনের সমস্যা দুই রকম। পাকিস্তানের মোহাম্মদ হাফিজের বিরুদ্ধে উঠেছে বড় অঙ্কের কর ফাঁকির অভিযোগ। ভারতের হরভজন সিং নাজেহাল হয়েছেন ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিলে!

হাফিজের ‘কর ফাঁকি’

পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় রাজস্ব বোর্ডের (এফবিআর) অভিযোগ, হাফিজ ২ কোটি ৬০ লাখ রুপির কর ফাঁকি দিয়েছেন হাফিজ। ২০১৪ সালে ৮ কোটি ৬০ লাখ রুপির সম্পত্তি কেন গোপন করেছিলেন, সেটির কোনো সন্তোষজনক উত্তর দিতে পারেননি সাবেক এ পাকিস্তানি অধিনায়ক। কর ফাঁকির কারণ জানতে চেয়ে ২০১৯ সালে হাফিজকে নোটিশ দেয় এফবিআর। পাকিস্তানি অলরাউন্ডার অবশ্য নোটিশ পাওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেন। এও বলেন,‘আমি প্রতিবছর সব কর ঠিকঠাক দিয়েছি।’ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে হাফিজ আছেন এখন যুক্তরাজ্যে। এফবিআরের তদন্তের ব্যাপারে এই মুহূর্তে তাঁর সাড়া দেওয়া কঠিনই।

হরভজনের অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিল

ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিলের ভোগান্তি শুধু বাংলাদেশে না, ভারতেও দেখা যাচ্ছে। আর এই ভোগান্তির শিকার হরভজনের মতো তারকাও। চলতি মাসের বিদ্যুতের বিল দেখে তো ‘ভাজ্জি’র চক্ষু চড়কগাছ! স্বাভাবিক সময়ের  বিলের তুলনায় তাঁর সাত গুণ বেশি বিল এসেছে! পাগুলে বিল দেখে চুপ থাকেননি তিনি। স্পষ্টভাষী হরভজন ভারতীয় বিদ্যুৎ সরবরাহকারী সংস্থার বিরুদ্ধে টুইটারে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন, ‘পুরো মহল্লার বিল আমাকে পাঠিয়েছ নাকি! অন্যবারের চেয়ে সাত গুণ বেশি।’ লকডাউনে ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিলের ভোগান্তি পোহাচ্ছেন ভারতের সাধারণ মানুষ। তারকারাও বাদ পড়ছেন না। স্বাভাবিক সময়ের অনেক বেশি টাকার বিল পাঠাচ্ছে বিদ্যুৎ সংস্থা। মুম্বাইয়ের বাসিন্দা হরভজনের যেমন চলতি মাসে বিল এসেছে ৩৩ হাজার ৯০০ টাকা, যা অন্য মাসের তুলনায় অনেক বেশি বলে অভিযোগ সাবেক ভারতীয় স্পিনারের।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন