default-image

ছেলেদের বিগ ব্যাশ অবশেষে মাঠে গড়াচ্ছে। আগামী ১০ ডিসেম্বর শুরু হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগ। ব্রিসবেন হিটের হয়ে খেলার জন্য অস্ট্রেলিয়ায় চলে গেছেন মুজিব উর রেহমান। আর গিয়েই পড়েছেন বিপদে। বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন পর্ব কাটানোর শুরুতেই তাঁর শরীরে করোনার লক্ষণ ধরা পড়েছে। হোটেলে থেকে সঠিক যত্ন নেওয়া হচ্ছে না বলে হাসপাতালেই নিতে হয়ে এই অফ স্পিনারকে।

গত সপ্তাহেই অস্ট্রেলিয়া পৌঁছেছেন মুজিব। হোটেলে কোয়ারেন্টিন পর্বের শুরুতেই করোনার লক্ষণ প্রকাশ পায় তাঁর। এরপর তাঁকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। ব্রিসবেন হিট কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কুইন্সল্যান্ড স্বাস্থ্য বিভাগের তত্ত্বাবধানে থাকবেন মুজিব। যত দিন না স্বাস্থ্য বিভাগ তাঁকে ছাড়পত্র দিচ্ছে, তত দিন দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারবেন না এই আফগান স্পিনার। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ও কুইন্সল্যান্ড ক্রিকেট মেডিকেলের কর্মীরা পুরো সময়টা মুজিবের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে।

বিজ্ঞাপন

১৯ বছর বয়সী মুজিব গত মাসেই শুভ কাজ সেরে ফেলেছেন। অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়ার আগে বিয়ে করেছেন এই স্পিনার। বিয়ের অনুষ্ঠানে সতীর্থ ও অন্য অতিথিদের সঙ্গে নাচতেও দেখা গেছে তাঁকে। দেশে থাকা মোহাম্মদ নবী ও গুলবদিন নাইব ছিলেন আমন্ত্রিতদের মধ্যে। আইপিএলে প্রায় দুই মাস কাটিয়ে যাওয়ার পর ব্যক্তিগত কাজটা সেরে নিয়েছেন মুজিব। এরপরই অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। কিন্তু বিগ ব্যাশে শুরু থেকে খেলা প্রায় অসম্ভব তাঁর পক্ষে। আইপিএলেও এবার নিয়মিত খেলতে পারেননি।

মুজিবের ব্যাপারে কুইন্সল্যান্ড ক্রিকেটের প্রধান নির্বাহী টেরি সভেনসন জানিয়েছেন, ‘আমরা সংশ্লিষ্ট সব কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি এ টুর্নামেন্ট নিখুঁত করার জন্য। খেলোয়াড়েরা যেন ভালো থাকেন, সেটা নিশ্চিত করা হচ্ছে। এই তরুণ ঘর থেকে অনেক দূরে আছেন এবং তাঁর যেন যত্ন নেওয়া হয়, সেটা নিশ্চিত করা হবে। এ মৌসুমে সব খেলোয়াড়, স্টাফ ও বাকি সবার স্বাস্থ্য নিয়েই আমাদের মূল চিন্তা। মুজিব ও ব্রিসবেন হিট আমাদের পূর্ণ সমর্থন পাচ্ছে। আমরা নিশ্চিত করব, তাঁর সেরে ওঠার সময়টায় যেন কুইন্সল্যান্ড সরকারের সব নিয়ম মানা হয়।’

বিগ ব্যাশে ভালো করার প্রতিজ্ঞা নিয়েই গেছেন মুজিব। আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে মাত্র দুই ম্যাচ খেলতে পেরেছেন এবার। দুই ম্যাচেই কোনো উইকেট পাননি। রান দিয়েছেন ওভারে দশের বেশি। এমন অবস্থায় বিগ ব্যাশে ভালো পারফর্ম করেই নিজেকে ফিরে পেতে চাইবেন মুজিব।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন