বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ব্রিসবেনে আজ চতুর্থ দিনে ৯ উইকেটে জিতে অ্যাশেজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে অস্ট্রেলিয়া। ২ উইকেটে ২২০ রানে তৃতীয় দিন শেষ করা ইংল্যান্ড আজ ২৯৭ রানে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে গুটিয়ে যায়।

৭৭ রানে শেষ ৮ উইকেট হারায় জো রুটের দল। ২০ রানের লক্ষ্য পেরোতে অস্ট্রেলিয়ার একটা উইকেট যে হারাতে হয়েছে, এ নিয়েই হয়তো অস্ট্রেলিয়ানদের কিছু আপত্তি থাকতে পারে। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অস্ট্রেলিয়ার অনেক সমর্থক বলছেন, ব্রিসবেনে বার্মি আর্মি যেহেতু ইংল্যান্ডের পক্ষে গলা ফাটানোর মতো তেমন কিছু পায়নি, তাই হ্যাজলউডের পেছনে লেগেছিল।

কী করেছে বার্মি আর্মি? ইংল্যান্ড সকালের সেশনে ব্যাট করার সময় ডেলিভারির ফাঁকে সীমানাদড়ির পাশে দর্শকদের অটোগ্রাফ দিচ্ছিলেন হ্যাজলউড। করোনা বিধিনিষেধে গত মৌসুমে দর্শকদের সঙ্গে সেভাবে মিশতে পারেননি কোনো ক্রিকেটারই।

এবার বিধিনিষেধ শিথিল করায় দর্শকদের সেই সুযোগ দেন অস্ট্রেলিয়ার এ পেসার। এর মধ্যে বার্মি আর্মির এক সদস্য হ্যাজলউডের একটি ছবিতে তাঁকে সই করার অনুরোধ জানান। তাড়াহুড়োর মধ্যে সই করে ফেলেন হ্যাজলউড। অস্ট্রেলিয়ান পেসারের জানার কথা নয়, ছবিটির নিচে একটি লেখা জুড়ে দেওয়া ছিল।

হ্যাজলউড নিশ্চিন্ত মনে ছবিতে সই তো করেন, কিন্তু পরে বার্মি আর্মির টুইটার পেজে ছবিটি পোস্ট করতেই হুলুস্থুল কাণ্ড। ছবিতে নিচে জুড়ে দেওয়া কাগজের অংশে লেখা, ‘আমি জশুয়া “জসি” হ্যাজলউড কায়মনোবাক্যে শপথ করে বলছি, ওটা যে সিরিশ কাগজ ছিল, তা জানতাম।’ কিছু বোঝা গেল?

অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে ‘সিরিশ কাগজ’ তিন বছর ধরেই আতঙ্কের নাম। ২০১৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে কেপটাউন টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার ‘স্যান্ডপেপারগেট’ কেলেঙ্কারি নিশ্চয়ই মনে আছে?

সে ম্যাচে সিরিশ কাগজ ঘষে বল বিকৃতির অভিযোগে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভ স্মিথ ও ক্যামেরন ব্যানক্রফট। বলে সিরিশ কাগজ ঘষতে দেখা যায় ব্যানক্রফটকে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার চার বোলার প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, জস হ্যাজলউড ও নাথান লায়নের বিপক্ষে কোনো অভিযোগ গঠন করা হয়নি।

বোলাররা অবশ্য এই ঘটনা জানতেন না বলে দাবি করেন। অস্ট্রেলিয়ানদের কাছে নিজেদের নিরপরাধ প্রমাণে স্টার্কের ওয়েবসাইটে বিবৃতি দিয়েছিলেন বোলাররা, ‘আমরা নিজেদের সততার জন্য গর্ব করি। কিন্তু তাতে আঘাত করাটা দুঃখজনক...বলের কন্ডিশন পাল্টাতে মাঠে বাইরের কিছু ঢোকানো হয়েছে, তা স্ক্রিনে দেখার আগপর্যন্ত আমাদের কাছে অজানা ছিল।’

কিন্তু বার্মি আর্মি ছাড়বে কেন? চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী অস্ট্রেলিয়া বলে কথা!

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন