কোহলির ব্যাটে আজও রান নেই।
কোহলির ব্যাটে আজও রান নেই। ছবি: এএফপি

ভারতের ক্রিকেটভক্তরা এখন হয়তো বিরাট কোহলিকে সামনে পেলে আগে পরখ করে দেখতেন। এই ভদ্রলোক আসলেই বিরাট কোহলি তো?

রান-সেঞ্চুরি তো আসবে-যাবে। বিরাট কোহলি একেবারে রান করছেন না, এমনও নয়। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কদিন আগে শেষ হওয়া টেস্ট সিরিজেই ৬ ইনিংসে ২টি ফিফটি আছে ভারত অধিনায়কের। কিন্তু যে বিরাট কোহলি মানে রানের বান, সে বিরাট কোহলির ইনিংসগুলোই যে শূন্যের খতিয়ান হয়ে যাবে, তা কে ভেবেছিল!

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে সর্বশেষ চার ইনিংসে দুবার ০ রানে আউট হয়েছেন কোহলি। স্পিনবিষে ইংলিশদের নীল করে টেস্ট সিরিজটা অনায়াসেই জিতে গেছে ভারত, দলের জয় আর চেন্নাই-আহমেদাবাদের উইকেট নিয়ে বিতর্কের মধ্যে কোহলির শূন্য নিয়ে এত কথা হয়নি। কিন্তু ফরম্যাট বদলে টেস্টের পর এবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু হলো, আহমেদাবাদে আজ পাঁচ টি-টোয়েন্টির সিরিজের প্রথমটিতে আগে ব্যাট করতে নেমেও ০ রানেই আউট হলেন কোহলি!

কোহলির ব্যাটিং–ব্যর্থতার দিনে ভারতও ধুঁকেছে। ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে করেছে ১২৪ রান। ইংল্যান্ড ৮ উইকেট ও ২৭ বল হাতে রেখেই তা পেরিয়ে গেছে। জস বাটলারের (২৪ বলে ২৮) সঙ্গে উদ্বোধনী জুটিতে ৭২ রান এনে দেন জেসন রয়। বাটলারের বিদায়ের কিছুক্ষণ দলকে ৮৯ রানে রেখে যখন ফেরেন রয়, তাঁর নামের পাশে ৩২ বলে ৪ চার ও ৩ ছক্কায় ৪৯ রান। তৃতীয় উইকেটে ডেভিড ম্যালান (২০ বলে ২৪) ও জনি বেয়ারস্টো (১৭ বলে ২৬) মিলে নিশ্চিত করেন ইংল্যান্ড হেসেখেলেই জিতছে।

দলের বড় হার তো আছেই, কোহলি হয়তো লজ্জায় লাল হয়ে যাবেন তাঁর শূন্যের রেকর্ডগুলো শুনলেও।

বিজ্ঞাপন

ভারতের কিংবদন্তি অধিনায়ক ও বর্তমানে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী আজ দর্শক হয়ে এসেছেন ভারতের ম্যাচ দেখতে। সৌরভের সামনেই শূন্যের রেকর্ডে সৌরভকে ছাড়িয়ে গেছেন কোহলি।

টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে ভারতের অধিনায়ক হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি শূন্য রানে আউট হওয়ার রেকর্ডে ‘একচ্ছত্র আধিপত্য’ এখন কোহলির। সৌরভ ভারতের অধিনায়ক হিসেবে নেমে ১৩ ম্যাচে আউট হয়েছিলেন ০ রানে, আজকের ইনিংসটি কোহলির ১৪তম বার ০ রানে আউট হওয়া! শূন্যের এই রেকর্ডে দুই অঙ্ক ছাড়িয়েছেন ভারতের আর দুই অধিনায়ক—মহেন্দ্র সিং ধোনি (১১ বার) ও কপিল দেব (১০)।

ইংল্যান্ডের এই সফরের আগে কখনো স্পিনারদের হাতে শূন্য রানে আউট হননি কোহলি। এই সিরিজে টেস্টেই সেই ‘অপেক্ষা’ ঘুচিয়ে দিয়েছেন মঈন আলী, চেন্নাইয়ে। আর আজ কোহলি ফিরেছেন আদিল রশিদের বলে, সপাটে মারতে গিয়ে ধরা পড়েছেন মিড-অফে।

আহমেদাবাদে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের সর্বশেষ ইনিংসের পর আজ টি-টোয়েন্টি, টানা দুই ম্যাচে শূন্য রানে আউট হওয়ার অভিজ্ঞতা কোহলির ৪৭৫ ইনিংসের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে এই প্রথম হলো।

default-image

শূন্যের আরও কিছু রেকর্ডও হাতছানি দিচ্ছে কোহলিকে। ভারতের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের মধ্যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি শূন্য রানে আউট হওয়ার রেকর্ড কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকারের (৩৪ বার)।

তাঁর নায়কের অন্য সব রেকর্ডের পানেও তো ছুটছেন কোহলি, শূন্যের রেকর্ডটাও আর বাকি থাকে কেন! অবশ্য একটু পথ পাড়ি দিতে হবে তাঁকে। কোহলির ২৮ বারের চেয়ে বেশিবার শূন্য রানে আউট হওয়ার তালিকায় টেন্ডুলকারের পরে আছে সৌরভ গাঙ্গুলী (৩১ বার) ও বীরেন্দর শেবাগের (২৮ বার) নামও।

এ তো গেল সর্বকালের হিসাব, কালের হিসাবটা ‘সর্ব’ থেকে কমিয়ে অল্প কয়েক বছরে সীমিত করে ফেলুন, কোহলিই সবার ওপরে।

বিজ্ঞাপন

বিশ্বাস হচ্ছে না? গত ১২ মাসে ভারতের জার্সিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বোচ্চ ৩ বার শূন্য রানে আউট হয়েছেন কোহলি, দুইয়ে থাকা চেতেশ্বর পূজারা আউট হয়েছেন ২ বার।

গত দুই বছরের হিসাবেও রেকর্ডটা কোহলির—৬ বার, দুইয়ে আছেন ঋষভ পন্ত (৩ বার)।

তিন বছর? কোহলি (৯ বার), দুইয়ে লোকেশ রাহুল (৬ বার)।

৪ বছরে? ‘জয়’ কোহলি! ১৩ বার তাঁর, দুইয়ে রাহুল (৮ বার)।

পাঁচ বছর? তা-ও কোহলি (১৪ বার)।

default-image

আসলে সময়ের হিসাবই বাদ দিন, ২০০৮ সালের ১৮ আগস্ট কোহলির আন্তর্জাতিক অভিষেকের পর থেকে ভারতের জার্সিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি শূন্য কোহলিরই। তাঁর ২৮টির কাছাকাছি আছেন রোহিত শর্মা (২২টি)।

আজ রোহিতকে বিশ্রাম দিয়ে নেমেছে ভারত। কিন্তু না শিখর ধাওয়ান (৪), না রাহুল (১)—দুই ওপেনার তো রান পানইনি, কোহলিও ব্যর্থ। ইনিংসে ১৫ বলের মধ্যে ৩ রানে রাহুল-কোহলিকে হারানোর পর পঞ্চম ওভারের শেষ বলে দলীয় ২০ রানে ভারত হারায় ধাওয়ানকেও!

সেখান থেকে ভারত যে ১২০ পেরিয়েছে, তার কৃতিত্ব পাঁচে নামা শ্রেয়াস আইয়ারের। ৪৮ বলে ৮ চার ১ ছক্কায় আইয়ার করেছেন ৬৭ রান। পাশাপাশি ঋষভ পন্তের ২৩ বলে ২১ আর হার্দিক পান্ডিয়ার ২১ বলে ১৯ রান ভারতকে এই স্কোরে এনে পৌঁছে দিয়েছে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন