বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে রানের খাতা খোলার আগেই সবচেয়ে বেশি উইকেট হারানোর রেকর্ড মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাব বা এমসিসির। ১৮৭২ সালে ক্রিকেট-তীর্থ লর্ডসে কাউন্টি দল সারের বিপক্ষে ০ রানে প্রথম ৭ উইকেট হারিয়েছিল দলটি।

আজকের আগে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট সর্বশেষ এ ঘটনা দেখে ২০১৫-১৬ মৌসুমে। পাকিস্তানের কায়েদ-ই-আজম ট্রফিতে রাওয়ালপিন্ডির বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ০ রানে প্রথম ৪ উইকেট হারায় ফেডারেলি অ্যাডমিনিস্টারড ট্রাইবাল অ্যারিয়াস। মজার ব্যাপার হচ্ছে প্রথম ইনিংসে ৮৯ রানে অলআউট দলটি শেষ পর্যন্ত জিতেছিল সেই ম্যাচ।

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে রানের খাতা খোলার আগেই সবচেয়ে বেশি উইকেট হারানোর রেকর্ড মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাব বা এমসিসির। ১৮৭২ সালে ক্রিকেট-তীর্থ লর্ডসে কাউন্টি দল সারের বিপক্ষে ০ রানে প্রথম ৭ উইকেট হারিয়েছিল দলটি। ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে আলোচিত চরিত্র ডব্লু জি গ্রেসের আউটেই সূচনা হয়েছিল ধসের। এমসিসি প্রথম ইনিংসে অলআউট হয়েছিল ১৬ রানে।

default-image

সিলেটে আজ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপফেরত বাঁহাতি স্পিনার নাসুম আহমেদই ধস নামিয়েছেন ঢাকার ইনিংসে। বাংলাদেশ টেস্ট দলের পেসার ইবাদত হোসেনের করা প্রথম ওভারে কোনো রান নিতে পারেনি ঢাকা। পরের ওভারে বল করতে এসেই প্রথম বলে রনি তালুকদারকে অলক কাপালির ক্যাচ বানান নাসুম। ওভারের তৃতীয় বলে বোল্ড জয়রাজ শেখ, শেষ বলে এলবিডব্লু রকিবুল হাসান।

পরের ওভারের প্রথম বলে ঢাকার উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান আবদুল মজিদকে এলবিডব্লু করে ঢাকার স্কোরটাকে ৪ উইকেটে ০ বানিয়ে দেন ইবাদত। ঢাকার অধিনায়ক তাইবুর রহমান এরপর মাহিদুল ইসলামকে নিয়ে ৮৯ রানের জুটি গড়ে ওই ধাক্কা সামলান। তবে ২০ রান করে তাইবুর নাসুমের চতুর্থ শিকার হতেই আবার ধসের শুরু ঢাকার। ৩৪ রানে শেষ ৬ উইকেট হারিয়ে দলটি অলআউট ১২৩ রানে। ৬৪ রান করে মাহিদুল ফেরেন দলকে ১০৩ রানে রেখে অষ্টম উইকেট হিসেবে।

default-image

নাসুম ১৮ ওভারে ৪৩ রান দিয়ে নিয়েছেন ৭ উইকেট। ২১ ম্যাচের প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে বাঁহাতি স্পিনারের এটিই সেরা বোলিং। প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে নাসুম এ নিয়ে দ্বিতীয়বার ইনিংসে ৭ উইকেট পেলেন। ২০১৪ সালে প্রথমবার ৯৭ রানে ৭ উইকেট নিয়েছিলেন সিলেটের হয়েই রংপুরের বিপক্ষে। নাসুমের সিলেট আজ প্রথম দিনটা শেষ করেছে ২ উইকেট ৭৯ রান তুলে।

জাতীয় ক্রিকেটে লিগের চতুর্থ রাউন্ডের প্রথম দিনে ৭ উইকেট নিয়েছেন শহীদুল ইসলামও। ঢাকা মহানগরের পেসার বিকেএসপির চার নম্বর মাঠে রাজশাহীর বিপক্ষে ৪৮ রানে নেন ৭ উইকেট। ৩৫ ম্যাচের প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে শহীদুল এবারই প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেট পেলেন। তাঁর দল রাজশাহীকে অলআউট ২৩২ রানে। মহানগর দিন শেষ করেছে ২ উইকেটে ৫৩ রান তুলে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন