default-image
>শনিবার খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে রাইলি রুশোর ক্যাচ ধরতে গিয়ে হাত কেটে ফেলেন ঢাকা প্লাটুনের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। হাতে পরে ১৪টি সেলাই । সবাই ধরেই নিয়েছিলেন তাঁর বিপিএলই বোধ হয় শেষ হয়ে গেল। কিন্তু না, আজ চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে এলিমিনেটর ম্যাচে হাতে সেলাই নিয়েই খেলতে নেমেছেন তিনি

হাতে ১৪ সেলাই পড়লেও বিপিএলের এলিমিনেটর পর্বে খেলতে চেয়েছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। শেষ পর্যন্ত জয়ী তাঁর দৃঢ় প্রত্যয়ই। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে আজ মাঠে নেমেছেন তিনি।

শনিবার মেহেদি হাসানের করা একাদশ ওভারে রাইলি রুশোর ক্যাচটা কাভারে ঝাঁপিয়ে তালুবন্দী করতে চেয়েছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। ক্যাচটা হাতে জমাতে পারেননি। কিন্তু ততক্ষণে যা ক্ষতি হওয়ার হয়ে গিয়েছিল। বাঁ হাতের তালুতে অনেকখানি কেটে গিয়েছিল ঢাকা প্লাটুন অধিনায়কের। মাঠ ছাড়তে হয়েছিল রক্তাক্ত হাত নিয়ে। তালুতে পড়েছিল ১৪টি সেলাই।

সে রাতে হাতে ১৪ সেলাই দেওয়ার সময়ই মাশরাফি নাকি জোরালো কণ্ঠে বলেছিলেন, ‘পরের ম্যাচটা খেলতে চাই!’ তাঁর মানসিক দৃঢ়তার সঙ্গে পরিচয় আছে সকলেরই। কিন্তু তিনি যে আজ আসলেই খেলতে নামবেন—এটা ভেবেছিলেন খুব কম মানুষই।
মারাত্মক চোট পাওয়ার পরও মাশরাফির খেলার আগ্রহ নিয়ে ঢাকার ম্যানেজার আহসানউল্লাহ হাসান বলেছিলেন, ‘সে খেলতে ভীষণ ইচ্ছুক। আমরা বুঝতে পারছি না কী করব। দৃঢ় মনোবলে সে বলছে, খেলবে। জানেনই তো মাশরাফি একজন লড়াকু মানুষ। এখন বিষয়টি তার ওপর ছেড়ে দিয়েছি।’

লড়াকু মাশরাফি সব সময়ই এমন!

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0