পাকিস্তান দল থেকে বাদ পড়েছেন মোহাম্মদ আমির।
পাকিস্তান দল থেকে বাদ পড়েছেন মোহাম্মদ আমির। ফাইল ছবি এএফপি

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ওয়ানডে ও তিন টি-টুয়েন্টি ম্যাচের সিরিজ খেলবে পাকিস্তান। ঘরের মাঠে সেই সিরিজের জন্য আজ ২২ সদস্যের দল ঘোষণা করেছেন পাকিস্তান দলের কোচ ও প্রধান নির্বাচক মিসবাহ-উল-হক। ২২ সদস্যের দলে জায়গা হয়নি পেসার মোহাম্মদ আমিরের। দল থেকে বাদ পড়েছেন অভিজ্ঞ সরফরাজ আহমেদ ও শোয়েব মালিক। দলে নতুন মুখ ২০ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান আবদুল্লাহ শফিক।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গত অক্টোবরের সে সিরিজের পর আর ওয়ানডে খেলেনি পাকিস্তান। এ বছরের প্রথমভাগে বাংলাদেশের বিপক্ষে একটি ওয়ানডে খেলার কথা থাকলে করোনাভাইরাসের কারণে সেটা পিছিয়ে দিতে বাধ্য হয়েছে পিসিবি। এক বছর পর আবার ওয়ানডে খেলতে যাচ্ছে পাকিস্তান। ওয়ানডে ছাড়াও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার জন্য আজ মাঝরাতে পাকিস্তানে পা রাখার কথা জিম্বাবুয়ের। তিন ওয়ানডের এ সিরিজটি এ বছর থেকে শুরু হওয়া আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগের অংশ। এ সিরিজে প্রাপ্ত পয়েন্ট প্রভাব ফেলবে ২০২৩ বিশ্বকাপের বাছাইয়ে। ৩০ অক্টোবর শুরু হবে ওয়ানডে সিরিজ। পরের দুইটি ম্যাচ ১ ও ৩ নভেম্বরে। তিনটি টি-টোয়েন্টি হবে ৭, ৮ ও ১০ নভেম্বর।

বিজ্ঞাপন

সাবেক অধিনায়ক সরফরাজের বয়স ৩৩ হয়েছে। ওদিকে শোয়েব মালিকের বয়স ৩৮ পেরিয়ে যাওয়ার পথে। ক্যারিয়ারের এই পর্যায়ে এসে দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটারের দল থেকে বাদ পড়ার ইঙ্গিত অনেকের কাছেই পরিষ্কার। তবে সরফরাজ ও মালিককে অভয় দিচ্ছেন মিসবাহ-উল হক, ‘শোয়েব মালিক ও সরফরাজ আহমেদকে এই সিরিজের জন্য দলে ডাকা হয়নি। আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই তাদের ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যায়নি। দল নির্বাচনে শুধু পারফরম্যান্স বিবেচনা করা হয়েছে।’ একই কারণে আমিরকেও দলে রাখা হয়নি বলে জানিয়েছেন কোচ ও নির্বাচক মিসবাহ। এই তিনজনই শেষ ইংল্যান্ড সফরের দলে ছিলেন।

অন্য দিকে ঘরোয়া ক্রিকেটে দুর্দান্ত খেলেই পাকিস্তান দলে জায়গা করে নিয়েছেন শফিক। পাকিস্তানের ক্রিকেট ইতিহাসে দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে টি টুয়েন্টি ও ওয়ানডেতে সেঞ্চুরি দিয়ে অভিষেক হয়েছে তাঁর। ন্যাশনাল ব্যাংক টি টুয়েন্টি টুর্নামেন্টে সেন্ট্রাল পাঞ্জাব দলের হয়ে ১০ ম্যাচে ৪৪.৭৫ গড়ে ৩৫৮ করেছেন। দুইটি হাফ সেঞ্চুরির সঙ্গে আছে একটি সেঞ্চুরিও। শিয়ালকোটের সে সেঞ্চুরিটি এসেছে অভিষেক ম্যাচেই।

default-image

শফিকের ব্যাটে পাকিস্তানের ভবিষ্যৎ দেখছেন পাকিস্তান জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান কোচ মিসবাহ, ‘আবদুল্লাহ শফিককে অমিত সম্ভাবনা ও পারফরম্যান্সের জন্য পুরস্কৃত করা হয়েছে। তাঁকে ভবিষ্যতের জন্য বাছাই করা হয়েছে। তাঁকে দলে রাখা হয়েছে সে যেন উন্নতি করতে পারে।’

পাকিস্তান দল: বাবর আজম, হায়দার আলী, আবদুল্লাহ শফিক, ইমাম-উল-হক, হারিস সোহেল, আবিদ আলী, ফখর জামান, মোহাম্মদ হাফিজ, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ রিজওয়ান, ইফতিখার আহমেদ, ফাহিম আশরাফ, ইমাদ ওয়াসিম, রোহেল নাজির, শাদাব খান, শাহীন আফ্রিদি, মোহাম্মদ হাসনাইন, হারিস রউফ, মুসা খান, ওয়াহাব রিয়াজ, উসমান কাদের ও জাফর গওহর।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0