৩৭৬ দিন পর মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে এলেন সাকিব আল হাসান।
৩৭৬ দিন পর মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে এলেন সাকিব আল হাসান।ছবি: শামসুল হক

সেই সন্ধ্যাটি ছিল ঝড়-বৃষ্টির। বাংলাদেশের ক্রিকেটের ভাগ্যাকাশেও সেদিন ছিল কালো মেঘের ছায়া। জুয়াড়ির অনৈতিক প্রস্তাবের কথা সংশ্লিষ্টদের না জানানোর কারণে আইসিসি নিষিদ্ধ করেছিল দেশের সেরা তারকাকে। হালকা আকাশি রঙের শার্ট পরে সাকিব সেদিন মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে এসেছিলেন। আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছিলেন কেন তাঁর এই নিষেধাজ্ঞা। যে ক্রিকেট তাঁর ভালোবাসার জায়গা, সেখান থেকে এক বছরের জন্য বিদায় নিয়েছিলেন জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনে একটা ছোট্ট বক্তব্য দিয়ে। আজ ৩৭৬ দিন পর সাকিব আবার ফিরেছেন সেই একই জায়গায়। এবার নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে, নির্ভার চিত্তে।

default-image
বিজ্ঞাপন

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট দিয়েই ক্রিকেটে ফিরবেন সাকিব। সেটিকে সামনে রেখে ফিটনেস পরীক্ষার জন্যই তাঁর এখানে আসা। ২০১৯ সালের ২৯ অক্টোবর আইসিসি তাঁকে এক বছরের জন্য ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করেছিল। এরপর মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের প্রিয় আঙিনা তাঁর জন্য ছিল নিষিদ্ধ জায়গা। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের অনুশীলন সুবিধাদিও তিনি ব্যবহার করতে পারেননি।

default-image

গত এপ্রিল থেকে ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে। মাঝখানে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের শ্রীলঙ্কা সফরের কথা ছিল। সেই সফরের খেলা হওয়ার কথা ছিল অক্টোবরেই। তাই শ্রীলঙ্কা সফর দিয়েও তাঁর ক্রিকেটে ফেরার সুযোগ তৈরি হয়েছিল। কিন্তু কোয়ারেন্টিন-জটিলতায় সেই সফর বাতিল হয়ে গেলে সেটি আর হয়নি। শ্রীলঙ্কা সফরকে সামনে রেখে সাকিব মাঝখানে একবার দেশে ফিরেছিলেন। অনুশীলন করেছিলেন বিকেএসপির নিভৃত পরিবেশে। তবে সফর বাতিল হয়ে যাওয়ায় তিনি আবারও ফিরে যান যুক্তরাষ্ট্রে। গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে তিনি দেশে ফেরেন।

default-image

আজ তিনি মিরপুরে ফিরবেন—এটা সবারই জানা ছিল। তাই সবারই আলাদা মনোযোগ ছিল তাঁর দিকে। ফিটনেস পরীক্ষার কথা থাকলেও তিনি তা দেননি। সকাল ১০টায় ফিটনেস পরীক্ষার কথা ছিল। সাকিব এলেন সকাল সাড়ে আটটায়। এসেই খুঁজে পেলেন চেনা মুখদের। মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে ড্রেসিং রুমে বসে মেতে উঠলেন আড্ডায়। প্রায় আধ ঘণ্টা ধরে আড্ডা দেন দুই পুরোনো বন্ধু। বেশ অনেক দিন পরই যে দেখা হলো দুজনের।

default-image

এরপর ড্রেসিং রুম থেকে বেরিয়ে যান ইনডোরের দিকে। সেখানেই সাকিব সহ আর ১৯ জনের ফিটনেস পরীক্ষা হওয়ার কথা। কিন্তু ফিটনেস পরীক্ষা না দিয়েই ফিরে এলেন। পথে মিরপুরের উইকেটে একবার চোখ বুলিয়ে গেলেন। এরপর সোজা চলে যান একাডেমির জিমে। বিসিবির ট্রেনার তুষার কান্তি হাওলাদার জানিয়েছেন, আগামী বুধবার ফিটনেস পরীক্ষা দেবেন সাকিব।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0