বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মুমিনুলের সঙ্গে লিটন জুটি বাঁধার পর নতুন গল্পের সূচনা হলো। অসাধারণ ব্যাটিং করলেন দুজন। ৩১৭ বলে ১৫৮ রানের জুটি গড়লেন তাঁরা। নিউজিল্যান্ডের ৩২৮ রানের সংগ্রহ পেরিয়ে তাঁরা দলকে এগিয়ে নিলেন আরও কিছু দূর। কিউই বোলাররা পরীক্ষা নিচ্ছিলেন অধিনায়ক মুমিনুল ও লিটনের। কিন্তু প্রতিটি পরীক্ষাতেই তাঁরা নিজেদের উতরে নিয়েছেন। সেই সঙ্গে নিউজিল্যান্ডের বিশ্বসেরা বোলারদের পাল্টা আঘাতও করেছেন। গুটি গুটি পায়ে দুজনই এগিয়ে চলছিলেন শতকের দিকে। কিন্তু ৮৮ রানে আউট হলেন মুমিনুল। এপ্রিলে পাল্লেকেলেতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১২৭ রানের ইনিংস খেলার পর খুব একটা কথা বলছিল না তাঁর ব্যাট। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই আরেকটি ইনিংসে ৪৯ আর জুলাইয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হারারেতে ৭০ রান ছাড়া বলার মতো আর কিছুই করতে পারেননি বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক। আজ সুযোগ পেয়ে দ্বারপ্রান্তেও পৌঁছেছিলেন। কিন্তু ২৪৪ বলে ৮৮ করে বিদায় নিলেন বোল্টের বলেই। এলবিডব্লু হয়ে।

টেস্ট মর্যাদার পর এই প্রথম আগে ফিল্ডিং করেও লিড নিয়েছে বাংলাদেশ। দারুণ ব্যাটিং পারফরম্যান্সের পরও ইনিংসে একটিও শতক না পাওয়ার ব্যাপারটি আক্ষেপ হয়েই থাকছে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন