শূন্য রানে ফিরেছেন সৌম্য।
শূন্য রানে ফিরেছেন সৌম্য।ছবি: শামসুল হক

ইনিংসের প্রথম ১৪ বলেই দুই উইকেট হারানো বাংলাদেশকে স্বস্তি দিয়েছিল তামিম ইকবাল ও মুমিনুল হকের জুটি। তৃতীয় উইকেট জুটিতে ৫৮ রান যোগ করে ফিরেছেন অধিনায়ক মুমিনুলও। সঙ্গী হারিয়ে খুব বেশিক্ষণ টিকেননি তামিম। ৫ বল পরই বিদায় নিয়েছেন তিনি। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৪ উইকেটে ৭১ রান বাংলাদেশের।

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৪০৯ রানে অলআউট করে ফুরফুরে মেজাজে চা–বিরতিতে গিয়েছিল বাংলাদেশ। দিনের প্রায় অর্ধেকটা সময় পিছিয়ে থাকা বাংলাদেশ ২৫ রানে শেষ ৪ উইকেট তুলে নিয়েছে সফরকারীদের। কিন্তু বিরতি থেকে ফিরে মুখে চায়ের স্বাদ মোছার আগেই বাংলাদেশ হারিয়ে ফেলেছে দুই উইকেট!

যে উইকেটে বাংলাদেশ দুজন পেসার নেওয়ার সাহস করেনি, সে উইকেটে প্রথম ৮ বলে ২ উইকেট তুলে নিয়েছেন শ্যানন গ্যাব্রিয়েল।

বিজ্ঞাপন
default-image

বাংলাদেশ মাত্র এক পেসার নিয়ে নামায় বল করেছেন সৌম্য সরকারও। ১১ ওভার বল করে ১টি উইকেটও পেয়েছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজ অলআউট হওয়ার মিনিট বিশেক আগেই বল করেছিলেন। কে জানে তাতে ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলেন কি না। প্রথম ওভারের শেষ বলে পা নড়ল না, শরীরও সরল না। শর্ট মিড উইকেটের হাতে বল তুলে দিলেন। নামের পাশে তখনো শূন্য সৌম্যর।

মাঝের ওভারটা তামিম খেলেছেন। রাহকীম কর্নওয়ালের বলে একটা ছক্কাও মেরেছেন। এতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কেউ দমে যাননি। পরের ওভারেই যে গ্যাব্রিয়েল আবার আঘাত হানলেন। প্রথম বলটা ব্যাটের সামনে পেয়ে দারুণ এক শটে চার রান পেয়েছিলেন নাজমুল হোসেন। পরের বলেই বিদায় নিলেন। অফ স্টাম্পের বাইরের বলে আগের মতোই ব্যাট চালালেন। পা নড়েনি, শটও নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেননি। বল গালিতে গিয়ে ধরা পড়েছে এনক্রুমা বোনারের কাছে।

আউট হওয়ার আগে মুমিনুল করেছেন ২১ রান। ইতিবাচক ব্যাটিং করা তামিম ফিরেছেন ৪৪ রানে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন