বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দলে জায়গা ধরে রেখেছেন অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার মোহাম্মদ হাফিজ। সম্প্রতি ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বকাপে খেলা অনিশ্চিত হয়ে পড়ে হাফিজের। তবে এবারও দলে জায়গা পাননি আরেক অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার শোয়েব মালিক।

default-image

শঙ্কা আছে ব্যাটসম্যান শোহাইব মাকসুদকে নিয়ে। ৬ অক্টোবর ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের ম্যাচে কোমরের ওপরের অংশে চোট পান তিনি। এরপর এমআরআই করানো হয় তাঁর। পিসিবি বলছে, শোহাইবের দলে থাকার ব্যাপারটা নির্ভর করছে তাঁর চোটের উন্নতির ওপর।

বিশ্বকাপের আগে এভাবে দল বদলে ফেলার কারণ হিসেবে সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সের কথা উল্লেখ করেছে পিসিবি। এখন পর্যন্ত ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হায়দার, ৮ ইনিংসে ৭৮.২৫ গড় ও ১৪৭.৬৪ স্ট্রাইক রেটে ব্যাটিং করে করেছেন ৩১৩ রান। আর সরফরাজ আহমেদ ৭ ইনিংসে ১৮৫ রান করেছেন ৪৬.২৫ গড়ে, ব্যাটিং করেছেন ১২৮.৪৭ স্ট্রাইক রেটে। তবে ফখর খেলেছেন মাত্র ৪ ম্যাচ, সেখানেও ৮৮ রানের বেশি করতে পারেননি এই বাঁহাতি। অন্যদিকে এখন পর্যন্ত ৭ ইনিংসে ১২৩ রান করেছেন আজম। হাসনাইন ৭ ইনিংসে নিয়েছেন ৬ উইকেট।

পাকিস্তানের প্রধান নির্বাচক মোহাম্মদ ওয়াসিম বলছেন, নতুন তিনজনের অন্তর্ভুক্তি দলে ‘ভারসাম্য, শক্তিমত্তা’ বাড়াবে। এ তিনজনের মেধা ও অভিজ্ঞতাও কাজে লাগবে বলে মনে করেন তিনি। একই সঙ্গে বাদ পড়া তিনজনের প্রতিও সহানুভূতি জানিয়েছেন তিনি, ‘নিশ্চিতভাবেই আজম, খুশদিল ও হাসনাইনের জন্য বাদ পড়ার ব্যাপারটা কঠিন হয়ে দাঁড়াবে। তবে তারা আমাদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনায় আছে। এ বিশ্বকাপের পরও অনেক খেলা, ২০২২ সালে অস্ট্রেলিয়ায় আরেকটা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও আছে।’

default-image

নিউজিল্যান্ড সফর বাতিল করে চলে যাওয়ার পর ইংল্যান্ডেরও না আসার ঘোষণা পাকিস্তানের বিশ্বকাপ প্রস্তুতিতে ফেলে দিয়েছিল শঙ্কার মুখে। এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরেও পাঁচ ম্যাচের চারটিই ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। তবে ওয়াসিম বলছেন, ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট সে ক্ষতি পুষিয়ে দিয়েছে, ‘এখানে যে মানের ক্রিকেট দেখেছি, আমি তাতে খুশি। ক্রিকেটাররা যেমন ম্যাচ খেলে প্রস্তুতির সুযোগ পেয়েছে, তেমনি আমাদেরও তাদের উন্নতি পর্যালোচনা করার সুযোগ করে দিয়েছে। ফলে আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে সুবিধা করে দিয়েছে এটা।’

১৭ অক্টোবর শুরু হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আগে থেকেই সুপার টুয়েলভে আছে পাকিস্তান। সেখানে তাদের প্রথম ম্যাচ ২৪ অক্টোবর, দুবাইয়ে ভারতের বিপক্ষে। মিসবাহ-উল-হক সরে যাওয়ার পর বিশ্বকাপে পাকিস্তানের প্রধান কোচের ভূমিকায় থাকবেন সাবেক অফস্পিনার সাকলাইন মুশতাক। সাবেক অস্ট্রেলিয়া ওপেনার ম্যাথু হেইডেন ও সাবেক প্রোটিয়া পেসার ভারনন ফিল্যান্ডারকেও নিয়োগ দেওয়া হয়েছে কোচ হিসেবে।

default-image

পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দল

বাবর আজম (অধিনায়ক), শাদাব খান (সহ-অধিনায়ক), আসিফ আলী, ফখর জামান, হায়দার আলী, হারিস রউফ, হাসান আলী, ইমাদ ওয়াসিম, মোহাম্মদ হাফিজ, মোহাম্মদ নওয়াজ, মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটকিপার), মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়র, সরফরাজ আহমেদ (উইকেটকিপার), শাহিন শাহ আফ্রিদি, শোহাইব মাকসুদ।

রিজার্ভ

খুশদিল শাহ, শাহনওয়াজ দাহানি, উসমান কাদির

মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন