কোপা সুদামেরিকানা জিতেছে হারনান ক্রেসপোর ক্লাব দেফেন্সা ই হুস্তিসিয়া।
কোপা সুদামেরিকানা জিতেছে হারনান ক্রেসপোর ক্লাব দেফেন্সা ই হুস্তিসিয়া। ছবি: রয়টার্স

হারনান ক্রেসপো। দেফেন্সা ই হুস্তিসিয়া।

এত দিন বিখ্যাত কোচের অখ্যাত ক্লাব হিসেবেই পরিচিত ছিল দেফেন্সা ই হুস্তিসিয়া। কিন্তু ক্রেসপো নামের আর্জেন্টাইন ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকার সেই অখ্যাত ক্লাবকেই বিখ্যাত বানিয়ে ছাড়লেন। কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার এক বছর হতে না হতেই দেফেন্সা ই হুস্তিসিয়াকে কোপা সুদামেরিকানা জেতালেন বড় বড় ক্লাবের হয়ে ইউরোপিয়ান ফুটবল মাতানো ক্রেসপো।

কাল ফাইনালে আরেক আর্জেন্টাইন ক্লাব লানুসকে ৩-০ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের কোপা সুদামেরিকানা জিতল ২০১৪ সালে আর্জেন্টিনার শীর্ষ ফুটবল লিগে উঠে আসা দেফেন্সা ই হুস্তিসিয়া। সুদেমেরিকানা জেতার আগে ৮৫ বছরের ইতিহাসে দেফেন্সা ই হুস্তিসিয়ার সাফল্য বলতে ছিল আর্জেন্টাইন ফুটবলের দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ বিভাগের শিরোপা জেতা। সেই ক্লাবই কিনা জিতে নিল মহাদেশীয় শিরোপা। দক্ষিণ আমেরিকান মহাদেশীয় ক্লাব ফুটবলে মর্যাদার দিক দিয়ে কোপা লিবার্তাদোরেসের পরেই অবস্থান কোপা সুদামেরিকানার। টুর্নামেন্টটিকে দক্ষিণ আমেরিকার ‘ইউরোপা লিগ’ও বলে থাকেন অনেকে।

বিজ্ঞাপন
default-image

আর্জেন্টিনার রিভার প্লেটে ক্যারিয়ার শুরু করা ক্রেসপো ১৯৯৬ সালে ইউরোপে পাড়ি জমানোর পর বেশিরভাগ সময়েই খেলেছেন ইতালিতে। সেখানে পার্মা, লাৎসিও, ইন্টার মিলান, এসি মিলান ও জেনোয়ায় খেলেছেন ২০১২ সাল পর্যন্ত। মাঝে ২০০৩ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত কাগজে–কলমে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ক্লাব চেলসির খেলোয়াড় হলেও ক্রেসপোকে বেশিরভাগ সময় ধারে খেলতে হয়েছে এসি মিলান ও ইন্টার মিলানে।

১৯৯৫ থেকে ২০০৭ সালের মধ্যে আর্জেন্টিনার হয়ে ৬৪ ম্যাচে ৩৫ গোল করা ক্রেসপো ২০১২ সালে অবসরের পর যোগ দেন কোচিংয়ে। পার্মার যুব দলের কোচ হিসেবে শুরু করার পর মোদেনা নামের ইতালিয়ান ক্লাব ও পরে আর্জেন্টাইন ক্লাব ব্যানফিল্ডের কোচিং করানোর পর ২০২০ সালের ২৫ জানুয়ারি দেফেন্সা ই হুস্তিসিয়ার দায়িত্ব নেন ৪৫ বছর বয়সী ক্রেসপো। এক বছর যেতে না যেতেই সেই ক্লাব জিতে গেলো কোপা সুদামেরিকানা!

বিখ্যাত না হলেও ক্রেসপো কোচ হওয়ার আগেই খেলার ধরণের কারণেই দেফেন্সা ই হুস্তিসিয়া নজর কাড়ে। ক্রেসপোর দুই পূর্বসুরি আরিয়েল হোলান ও সেবাস্তিয়ান বেকাচেচে দলকে দ্রুত গতির পাসিং ফুটবল খেলিয়ে নজর কেড়েছিলেন। ফল, ওই দুই কোচই পরে যোগ দেন নামী ক্লাবে। ক্রেসপো দায়িত্ব নেওয়ার পর আর বদলাননি খেলার ধরন।

default-image

এই মৌসুমে দেফেন্সা ই হুস্তিসিয়া শুরুতে সুযোগ পেয়েছিল কোপা লিবার্তাদোরেসেই। সেখানে ব্রাজিলেন সান্তোসের সঙ্গে একই গ্রুপ পড়ে দলটি। কিন্তু গ্রুপ পর্বে তৃতীয় হয়ে জায়গা পায় কোপা সুদামেরিকানায়।

দলকে প্রথম বড় কোনো শিরোপা এনে দেওয়া কোচকে দেফেন্সা ই হুস্তিসিয়া ধরে রাখতে পারবে কিনা এখন প্রশ্ন সেটাই। আর্জেন্টিনার বড় তিন ক্লাব রেসিং, সান লরেঞ্জো ও ইনদেপেন্দিয়েন্তে এরইমধ্যে ক্রেসপোকে নিয়ে আগ্রহ দেখিয়েছে।

ক্রেসপো নিজেও জানিয়ে রেখেছেন ডাক পেলে বড় কোনো ক্লাবের দায়িত্ব নেওয়ার ইচ্ছের কথা। এ মাসের শুরুতেই তিইসি র্স্পোটসকে নিজের কথা জানিয়েছিলেন ক্রেসপো, ‘আমার ইচ্ছে দক্ষিণ আমেরিকার বড় ক্লাবে যোগ দেওয়া। ইউরোপে সুযোগ পাওয়া যায় কিনা সেটিও দেখছি।’

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন