বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

আজ রাতে (১টায়) রিয়াল মাদ্রিদের মাঠে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে মুখোমুখি দুই দল। প্রথম লেগে নিজের মাঠে ৪-৩ ব্যবধানে জিতেছে ম্যানচেস্টার সিটি। কিন্তু এই ফলাফলেও রিয়াল সমর্থকেরা হতাশ হননি। ব্যবধান মাত্র এক গোলের। সেই সঙ্গে পরের লেগ তো বার্নাব্যুতে। ইউরোপিয়ান রাতগুলো বার্নাব্যু ম্যাচে কতটা প্রভাব রাখে, সেটা তো শেষ ষোলোয় পিএসজি টের পেয়েছে। কোয়ার্টার ফাইনালে কিছুটা হলেও বুঝেছে চেলসি।

সেই সঙ্গে চ্যাম্পিয়নস লিগে রিয়ালের সমৃদ্ধ ইতিহাস চিন্তা করলে তো আজ লস ব্লাঙ্কোদের এগিয়ে রাখতেই হয়। কিন্তু কাল সংবাদ সম্মেলন করতে এসে আনচেলত্তি এ প্রসঙ্গ উড়িয়ে দিয়েছেন, ‘আমার মনে হয় না ইতিহাস এখানে কোনো ভূমিকা রাখবে। এটা খুব ভিন্ন একটা খেলা এবং প্রতিটি খেলাই অনন্য। ওরা এগিয়ে আছে এবং আমাদের ভালো খেলতে হবে। এটা কঠিন হবে, কিন্তু আরেকটি ফাইনালে ওঠার দারুণ সুযোগ পেয়েছি আমরা।’

default-image

আনচেলত্তি ইতিহাস অর্থাৎ দূর অতীতের ভূমিকা না দেখলেও নিকট অতীতে ঠিকই আস্থা আছে গার্দিওলার। রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে শেষ তিন ম্যাচেই জিতেছেন গার্দিওলা। রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে এবারের আগে আরও চারটি ম্যাচ খেলেছেন। ফলে এমন ম্যাচে খেলোয়াড়দের কী করতে হবে, সেটা জানা আছে তাঁর।

সে অভিজ্ঞতা যে আজ কাজে লাগাবেন, সেটা কাল সংবাদ সম্মেলনে বলে দিয়েছেন গার্দিওলা, ‘প্রশ্ন হলো, অভিজ্ঞতাগুলো থেকে কী শিখেছি? এই প্রতিযোগিতায় প্রতিটা ম্যাচই আলাদা। গত মৌসুমের সঙ্গে আগামীকালের তুলনা করা কঠিন। ছেলেরা কীভাবে নিজেদের জাগিয়ে তোলে, তাদের মনমেজাজ কেমন এবং তারা কেমন করছে, তার ওপর নির্ভর করে। আমরা এই অবস্থানে আগেও এসেছি। আমরা অনেকবার এখানে এসেছি, এটা একটা ভালো দিক। আমরা জানি কীভাবে এই ম্যাচ সামলানো যায়, এটা কাজে লাগে। তার মানে কিন্তু এই নয় যে আমরা ভালো খেলবই। ফাইনালে যেতে আমাদের সেরাটা দিতে হবে।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন