বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

বিশ্বকাপ না হোক, অলিম্পিক ট্রফি জয়ের সুযোগটা আলভেজের চোখের সামনেই। তাঁরই নেতৃত্বে টোকিও অলিম্পিক খেলতে ব্রাজিল দল এখন জাপানে।

আজ জার্মানির বিপক্ষে শুরু হবে ব্রাজিলের অলিম্পিক মিশন। যে জার্মানিকে হারিয়ে ২০১৬ সালের ঘরের মাঠে অলিম্পিক ফুটবলের প্রথম সোনা জিতেছিল ব্রাজিল। দুর্ভাগ্য হলো, নেইমার-জেসুসদের সে দলে ছিলেন না আলভেজ। না হলে কি আর একটা অলিম্পিক মেডেলের জন্য হাপিত্যেশ করতে হতো আলভেজকে!

default-image

ব্রাজিল জাতীয় দলের হয়ে ১১৮টি ম্যাচ খেলেছেন আলভেজ। খেলেছেন দুটি বিশ্বকাপ। অথচ কখনো খেলা হয়নি অলিম্পিক। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া মেলায় ফুটবলে অনূর্ধ্ব-২৩ দল খেলে ঠিকই, কিন্তু এই দলে সিনিয়র খেলোয়াড় থাকতে পারেন তিনজন। সেই কোটায় এবার খেলছেন আলভেজ।

তাঁর কাঁধে তুলে দেওয়া হয়েছে অধিনায়কত্বের দায়িত্বও। জার্মানির বিপক্ষে মাঠে নামার আগে তিনি নাকি তরুণ খেলোয়াড়দের মতোই রোমাঞ্চিত বোধ করছেন।

ম্যাচ–পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে আলভেজ বলেন, ‘যাঁরা আমাকে চেনেন, তাঁরা জানেন, আমি তরুণ খেলোয়াড়দের মতো উদ্দীপ্ত। (টুর্নামেন্টে নামার আগে) দলের একজন তরুণ খেলোয়াড়ের মতোই অনুভূতি হবে আমার। যদিও আমি ক্যারিয়ারে বেশ কিছু বড় মুহূর্ত উপভোগ করেছি। কিন্তু প্রথমবারের মতো অলিম্পিক খেলতে এসে আমি রোমাঞ্চিত অনুভব করছি।’

দলে সুযোগ পাওয়ায় কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন আলভেজ, ‘এখানে থাকতে পেরে বিশেষ অনুভূতি হচ্ছে। এই সুযোগের জন্য আমি কৃতজ্ঞ। আশা করি এই টুর্নামেন্টে প্রত্যাশা পূরণ করতে পারব। সঙ্গে জাতীয় দলের প্রত্যাশাও।’

মূলত অলিম্পিকের পর্দা উঠবে ২৩ জুলাই। তবে ফুটবল মাঠে গড়াচ্ছে আগেই। কাল মেয়েদের ফুটবল শুরু হয়েছে। আজ শুরু হবে ছেলেদের ফুটবল।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন