অস্ট্রেলিয়ায় কোহলির অনুপস্থিতিতে ভারতকে দারুণভাবে সামলেছেন রাহানে।
অস্ট্রেলিয়ায় কোহলির অনুপস্থিতিতে ভারতকে দারুণভাবে সামলেছেন রাহানে। ছবি: টুইটার

অস্ট্রেলিয়া সফরের টেস্ট সিরিজের প্রায় পুরোটা জুড়েই ভারতকে নেতৃত্ব দিয়েছেন অজিঙ্কা রাহানে। সন্তানের জন্মমুহূর্তে স্ত্রীর পাশে থাকার জন্য বিরাট কোহলি দল ছেড়েছিলেন অ্যাডিলেডে প্রথম টেস্টের পরপরই। সে টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৬ রানে অলআউট হয়ে বাজেভাবে হেরেছিল ভারতীয় দল। সিরিজের বাকি তিনটি টেস্টেও অ্যাডিলেডের পুনরাবৃত্তি হয় কি না, সবার মনে যখন এমন প্রশ্ন, তখনই অধিনায়কত্বের ভার উঠেছিল রাহানের কাঁধে।

সেই গুরুদায়িত্ব দারুণভাবেই সামলেছেন রাহানে। পরের তিন টেস্টের দুটিতে জয় আর একটিতে জয়তুল্য ড্র ‘অধিনায়ক’ রাহানেকে নিয়ে গেছে অন্য উচ্চতায়। অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফিরে প্রশংসার বানে ভেসেছিলেন রাহানে। কিন্তু ভারতের ‘ঐতিহাসিক অস্ট্রেলিয়া জয়ে’র পর দেশের মাটিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে বাজে হারের পর তোপ এখন রাহানের দিকেই। বাজে ফর্মের কারণে প্রশ্ন উঠেছে ‘ব্যাটসম্যান’ রাহানেকে নিয়ে।

বিজ্ঞাপন

অ্যাডিলেড টেস্টের পর মেলবোর্নে দারুণ এক জয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছিল ভারত। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ জয়ের শুরুটা হয়েছিল সেই জয় দিয়ে। সে টেস্টে অধিনায়কত্বের গুরুভার নিয়েও রাহানে দারুণ এক সেঞ্চুরিতে মাত করে দিয়েছিলেন।

default-image

কিন্তু এরপর থেকেই রাহানের ব্যাটিং ফর্ম পড়তির দিকে। সেটি এতটাই বাজে যে পরপর সংখ্যাগুলোর দিকে তাকালে একটু ধাক্কা খেতেই হয়। যে ব্যাটসম্যান এমন একটা সেঞ্চুরি করলেন, তিনি তো তাঁর ভালো ফর্মকে এগিয়েই নিয়ে যাবেন। কিন্তু সেঞ্চুরির পর ফর্ম হারিয়ে ফেলাটা অবাক করার মতোই।

প্রশ্নটা তুলেছেন ভারতের সাবেক তারকা ব্যাটসম্যান ও হালের ধারাভাষ্যকার সঞ্জয় মাঞ্জরেকার। তিনি গতকাল টুইটে লেখেন, ‘অধিনায়ক রাহানের ক্ষেত্রে আমার সবচেয়ে বড় প্রশ্ন ব্যাটসম্যান রাহানেকে নিয়ে। মেলবোর্নের সেঞ্চুরির পর টেস্টে তাঁর সংগ্রহ—২৭*, ২২, ৪, ৩৭, ২৪, ১ ও ০। একটা সেঞ্চুরি করার পর উঁচু মানের খেলোয়াড়েরা তাঁর দুর্দান্ত ফর্মকে অনেক দূর টেনে নিয়ে যায়। একই সঙ্গে দলের অন্য খেলোয়াড়দের বাজে ফর্মের বাড়তি বোঝাও সে বয়ে নিয়ে চলে।’

বাজে ফর্মের সঙ্গে সঙ্গে প্রশ্ন উঠছে রাহানের আউটের ধরন নিয়েও। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চেন্নাই টেস্টের দুই ইনিংসে রাহানের ব্যাট থেকে এসেছে যথাক্রমে ১ ও ০। কাল পঞ্চম দিনে জিমি অ্যান্ডারসনের বলে যেভাবে ব্যাট আর প্যাডের ফাঁক গলে বোল্ড হন, সেটি অনেকের কাছে দৃষ্টিকটু ছিল। যদিও ইংলিশ পেসারের বলটি ছিল দুর্দান্ত।

কিন্তু যা-ই হোক না কেন, রাহানের ফর্ম যে মেলবোর্ন টেস্টের পর থেকেই খারাপ, সেটি অস্বীকার করার কোনো উপায়ই নেই। রাহানেকে নিয়ে কাল প্রশ্নের জবাব দিতে হয়েছে অধিনায়ক কোহলিকেও।

অবশ্য এটিকে আলোচনার কোনো বিষয়ই মনে করেন না ভারত অধিনায়ক, ‘এটা একটা টেস্টের দুটি ইনিংসের ব্যাপার। এটা আলোচনার কোনো বিষয়ই নয়। প্রথম ইনিংসে সে আউট হয়েছে বাউন্ডারি মারতে গিয়ে। জো রুটের দুর্দান্ত এক ক্যাচে থামে তাঁর ইনিংস। ওই বলে সে যদি বাউন্ডারিটা পেয়ে যেত, তাহলে এই আলোচনা উঠত না। ওকে নিয়ে কোনো সমস্যাই নেই।’

রাহানেকে নিয়ে এমন কথাবার্তায় কিছুটা বিরক্তও কোহলি, ‘দেখুন, আমিও দ্বিতীয় ইনিংসে বোল্ড হয়েছি। আপনি যদি কোনো কিছু খুঁজতে অযথা মাটি খুঁড়তে থাকেন, তাহলে কেবল খুঁড়তেই থাকবেন। বিশেষ কিছু পাবেন না। আমি যেটা সব সময়ই বলে আসছি, অজিঙ্কা আর ওর সঙ্গে চেতেশ্বর পূজারাও দলে থাকবে, এই দুজন হচ্ছে ভারতীয় দলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দুই টেস্ট ব্যাটসম্যান। এরা দুজনই আমাদের দলের অংশ হয়ে থাকবে, কারণ তাদের ব্যাটিং সামর্থ্যে আমাদের সর্বোচ্চ আস্থা আছে।’

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন