বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আফ্রিকান কাপ অব নেশনসে কাল ঘানার সঙ্গে ১-১ গোলের ড্রয়ে শেষ ষোলোর সুবাস পাচ্ছে গ্যাবন। তবে দলটির দুশ্চিন্তা আপাতত তাঁদের অধিনায়ক অবামেয়াং ও আরও দুজন খেলোয়াড়ের শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে। ঘানার মুখোমুখি হওয়ার আগে অবামেয়াং, মারিও লেমিনা ও অ্যাক্সেল মেয়েকে গ্যাবন স্কোয়াডের বাইরে রাখা হয়।

আর্সেনাল ফরোয়ার্ড অবামেয়াং একে তো অধিনায়ক, তার ওপর আক্রমণে মূল ভরসা; স্বাভাবিকভাবেই হইচই পড়ে যায়। আফ্রিকান ফুটবল কনফেডারেশন (সিএএফ) এবং গ্যাবন ফুটবলের তরফ থেকে জানানো হয়, অবামেয়াং ও তাঁর দুই সতীর্থের হৃদ্‌যন্ত্রের টিস্যুতে ক্ষত ধরা পড়েছে। ঝুঁকি না নিতে তাঁদের খেলার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

সিএএফের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘মেডিকেল কমিশনের মতে, পিয়েরে–এমেরিক অবামেয়াং, মারিও লেমিনা ও অ্যাক্সেল মেয়ে কোভিড থেকে সেরে উঠলেও ম্যাচটা খেলতে পারবেন না। পরীক্ষায় তাঁর (অবামেয়াং) হৃদ্‌যন্ত্রে সমস্যা ধরা পড়েছে। সিএএফ তাই কোনো ঝুঁকি নিতে রাজি নয়।’

গ্যাবন ফুটবল ফেডারেশনের টুইটে বলা হয়, ‘স্বাস্থ্য পরীক্ষায় অবামেয়াংয়ের হৃদ্‌যন্ত্রে ক্ষত ধরা পড়েছে এবং সিএএফ কোনো ঝুঁকি নিতে চায় না।’

অবামেয়াং এখন নিজের কপাল চাপড়াতে পারেন। এই টুর্নামেন্টে তিনি আর কোনো ম্যাচ খেলতে পারবেন কি না, সে বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলা হয়নি। যদিও তিনি সুস্থ আছেন বলেই জানানো হয়। তবে ৩২ বছর বয়সী এ ফরোয়ার্ড কপাল চাপড়াতে পারেন অন্য কারণে।

সর্বশেষ গত ৬ ডিসেম্বর এভারটনের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিলেন আর্সেনাল তারকা। এরপর তো বিতর্ক ও অসুস্থতা মিলিয়ে তাঁর ওপর দিয়ে স্রেফ ঝড় বয়ে গেছে। শৃঙ্খলা ভাঙার দায়ে তাঁকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দেয় আর্সেনাল, মূল দলের বাইরে অনুশীলন করতে বলে দেন কোচ মিকেল আর্তেতা।

মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের এই টুর্নামেন্ট খেলতে গত সপ্তাহে ক্যামেরুনে পা রেখেই বিপদে পড়েন অবামেয়াং। পরীক্ষায় ধরা পড়ে, তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত।

default-image

আইসোলেশনে থাকায় টুর্নামেন্টে গ্যাবনের প্রথম ম্যাচটা খেলতে পারেননি। কাল ঘানার বিপক্ষে মাঠে নামার কথা থাকলেও হৃদ্‌যন্ত্রের সমস্যা তা হতে দিল না। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ‘গার্ডিয়ান’ জানিয়েছে, আর্সেনালের চিকিৎসক দল এরই মধ্যে গ্যাবনের স্টাফদের সঙ্গে অবামেয়াংয়ের শারীরিক অবস্থা নিয়ে কথা বলেছে। ৩২ বছর বয়সী এই তারকা সুস্থ আছেন বলে জানানো হয়েছে আর্সেনালের চিকিৎসকদের।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া থেকে সেরে ওঠার পর অনেকেই হৃদ্‌যন্ত্রের সমস্যায় ভুগে থাকেন। বায়ার্ন মিউনিখের ২১ বছর বয়সী কানাডিয়ান উইঙ্গার আলফনসো ডেভিস যেমন করোনা থেকে সেরে ওঠার পর হৃদ্‌যন্ত্রের সমস্যায় ভুগছেন। কাল জানা গেছে, হৃদ্‌যন্ত্রের পেশিতে প্রদাহের কারণে ডেভিসকে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে তিনটি ম্যাচে পাচ্ছে না কানাডা। জানুয়ারির শুরুতে করোনায় আক্রান্ত হন ডেভিস।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন