বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এবার আবারও গাড়ি দুর্ঘটনা-সংক্রান্ত ঝামেলায় পড়েছেন তিনি। তবে কপাল ভালো, সে দুর্ঘটনায় তাঁর কোনো ক্ষতি হয়নি। তবে তুরিনের এই দুর্ঘটনায় আর্থুরের ধূসর বর্ণের ফেরারি গাড়িটা বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। খবরটা প্রথম জানিয়েছেন ইতালিয়ান সাংবাদিক আলভারো ভন রিকেত্তি। যদিও তাঁর মতে, দুর্ঘটনার জন্য আর্থুরের কোনো দোষ ছিল না।


বহুদিন ধরে চোটের কারণে মাঠের বাইরে আছেন আর্থুর। অস্ত্রোপচারও হয়েছে তাঁর সম্প্রতি। আগামী অক্টোবর থেকে আবারও জুভেন্টাসের হয়ে মাঠে নামতে পারবেন বলে জানা গেছে। মাঝেমধ্যেই ক্লাবে গিয়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে আসা লাগে। অমনই এক পরীক্ষা করাতে গিয়ে এই দুর্ঘটনায় পড়েন আর্থুর।

default-image

জুভেন্টাসের হয়ে সব মিলিয়ে ৩২ ম্যাচ খেলে ১ গোল করেছেন এই ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার। দলের হয়ে জিতেছেন কোপা ইতালিয়া ও ইতালিয়ান সুপার কাপ।

এর আগে বিচিত্র এক কারণে জুভেন্টাসে নাম লিখিয়েছিলেন তিনি। জুভেন্টাস থেকে বসনিয়ান মিডফিল্ডার মিরালেম পিয়ানিচকে এনে বিনিময়ে তাঁদের কাছে আর্থুরকে পাঠিয়েছিল বার্সেলোনা। পিয়ানিচকে বার্সা যতটা না খেলোয়াড়ি নৈপুণ্যের জন্য দলে এনেছিল, তার চেয়ে ঢের বেশি ছিল হিসাববিজ্ঞানের নিয়মের সুযোগ নিয়ে উয়েফার আর্থিক সঙ্গতির নীতিকে ফাঁকি দেওয়ার বিষয়টি।

default-image

সব মিলিয়ে পিয়ানিচও এখন বার্সায় নেই, এবারই নাম লিখিয়েছেন তুরস্কের ক্লাব বেসিকতাসে। ওদিকে আর্থুরের এই হাল।


এর আগেও ২০২০ সালের আগস্টে মদ্যপান করে গাড়ি চালানোর দায়ে ঝামেলায় পড়েছিলেন পিয়ানিচ। সেবারও গাড়ি দুর্ঘটনায় পড়েছিলেন তিনি।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন