default-image

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে আর দুই ম্যাচ বাকি আছে শীর্ষে থাকা দলগুলোর। এক আর দুইয়ে থাকা ম্যানচেস্টার সিটি ও লিভারপুল তো নিজেদের মধ্যে আলাদা এক লিগই খেলছে। তিনে থাকা চেলসিরও চ্যাম্পিয়নস লিগ প্রায় নিশ্চিত। ৩৬ ম্যাচ শেষে ৭০ পয়েন্ট তাদের। পাঁচে থাকা টটেনহাম সমান ম্যাচে ৬৫ পয়েন্ট পেয়েছে। আর মাঝে আছে আর্সেনাল। ৩৬ ম্যাচ থেকে তাদের সংগ্রহ ৬৬ পয়েন্ট। গতকালকের ম্যাচটি তাই মহাগুরুত্বপূর্ণ বলে প্রমাণিত হতে পারে মৌসুম শেষে।

আর্সেনালের পরের দুই ম্যাচ নিউক্যাসল ও এভারটনের বিপক্ষে। আর টটেনহামের ম্যাচ বাকি বার্নলি ও নরউইচ সিটির বিপক্ষে। তুলনামূলক সহজ প্রতিপক্ষ টটেনহামের। ওদিকে আর্সেনালকে খেলতে হবে নিউক্যাসলের মাঠে। আর এভারটন প্রিমিয়ার লিগে টিকে থাকার জন্য গত কয়েক ম্যাচে মরণপর লড়ছে।

default-image

গতকাল টটেনহাম ১ গোলে এগিয়ে থাকা অবস্থাতেই ১০ জনের দলে পরিণত হয়েছিল আর্সেনাল। ৩৩ মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখেছেন রব হোল্ডিং। ম্যাচে আরও কিছু সিদ্ধান্ত নিয়ে অসন্তোষ দেখিয়েছেন আরতেতা। ম্যাচ শেষে তাঁকে রেফারিং নিয়ে প্রশ্ন করলে জবাবে আর্সেনাল কোচ বলেছেন, ‘আমার মনে যা আছে, তা বললে আমাকে ছয় মাসের জন্য নিষিদ্ধ করা হবে। আমি জানি না কীভাবে মিথ্যা বলতে হয়, তাই কী ভাবছি তা বলতে চাচ্ছি না। কী চিন্তা করছি, সেটা বলা যাবে না।’

ম্যাচে শুরু থেকে পিছিয়ে ছিল আর্সেনাল। টটেনহামের গতি ও প্রতি–আক্রমণের মুখে কখনোই স্বস্তিতে থাকতে দেখা যায়নি আর্সেনাল খেলোয়াড়দের। কিন্তু আরতেতার সব ক্ষোভ রেফারিং নিয়ে, ‘আমার খেলোয়াড়দের নিয়ে মোটেও অসুখী নই। আমার খেলোয়াড়দের নিয়ে গর্বিত। আমি চাই রেফারি ক্যামেরার সামনে এসে তাঁর সিদ্ধান্ত ব্যাখ্যা করুক। এটা লজ্জাদায়ক, কারণ সুন্দর একটা খেলা নষ্ট হলো।’

default-image

আরতেতার এমন অনুযোগকে পাত্তা দিচ্ছেন না কন্তে। টটেনহাম কোচ বলেছেন, আরতেতার উচিত অভিযোগে মন না দিয়ে নিজের দল নিয়ে কাজ করা, ‘সে বেশি অভিযোগ করে। ওর নিজের দলে মনোযোগ দেওয়া উচিত। নিজের কাজে মন দেওয়া জরুরি। তার মনোযোগ দেওয়া উচিত, কারণ সে খুব ভালো কোচ। সব সময় কারও এভাবে অভিযোগ করা শুনতে ভালো লাগে না। গত শনিবার লিভারপুলে ফাবিনিও এবং ওর ফাউলগুলো নিয়ে অভিযোগ করতে শুনেছেন? না। সে চাইলে আমার পরামর্শ নিতে পারে, কিন্তু না নিলেও আমার কিছু যায় আসে না।’

কন্তের দাবি, শুধু গতকাল নয়, আরতেতা সব সময় নানা অভিযোগ তুলে নিজের দলের দুর্বলতা ঢাকতে চান, ‘আমি শুনি আর সে অনেক বেশি অভিযোগ করে। আমার মতে, এত অভিযোগ না করে ওর নিজের দলে আরও মনোযোগ দেওয়া উচিত। কারণ, ওর ক্যারিয়ার মাত্র শুরু হলো। ওকে শান্ত থাকতে হবে এবং কাজ করার চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে। একজন কোচকে এত বেশি অভিযোগ করতে শোনা ভালো কিছু না।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন