বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

এমন হাজারো দলবদলের গুঞ্জনে মুখরিত ইউরোপের ফুটবল। কিলিয়ান এমবাপ্পে কি পিএসজি ছাড়তে পারবেন? কী লেখা আছে গ্যারেথ বেল কিংবা ফিলিপ কুতিনিওদের ভাগ্যে? আর্লিং হরলান্ড কি চেলসিতে যাবেন? সের্হিও আগুয়েরোর উত্তরসূরি হিসেবে হ্যারি কেইন না রবার্ট লেভানডফস্কি—কাকে চান পেপ গার্দিওলা? সের্হিও রামোস যাওয়ার পর কীভাবে দল সাজাচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদ? আঁতোয়ান গ্রিজমান কি বার্সেলোনা ছেড়ে আতলেতিকোয় ফিরবেন? অন্যান্য লিগেরই-বা অবস্থা কেমন? ইউরো ও কোপায় আলো ছড়ানো কাদের দিকে নজর দিচ্ছে বড় ক্লাবগুলো?

এমন অনেক প্রশ্নের উত্তর নিশ্চিত হয়ে যাবে কিছুদিনের মধ্যেই। ইউরোপীয় ফুটবলে গ্রীষ্মকালীন দলবদল চলছে। ইউরোপের প্রধান লিগগুলোর দলবদল চলবে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত। এ পর্যন্ত কোন কোন খেলোয়াড় দল পরিবর্তন করলেন? কারা এখনো করেননি, কিন্তু করতে পারেন? লম্বা তালিকাটা একনজরে দেখে নেওয়া যাক—

সম্ভাব্য যেসব দলবদল হতে পারে


লেওন গোরেৎস্কা (মিডফিল্ডার, বায়ার্ন মিউনিখ)
বায়ার্ন থেকে এই মৌসুমেই ফ্রি–তে একজন খেলোয়াড়কে দলে ভিড়িয়েছে রিয়াল। শুধু তাই নয়, ডেভিড আলাবাকে চার নম্বর জার্সি দিয়ে আক্ষরিক অর্থেই বানিয়েছে সাবেক অধিনায়ক সের্হিও রামোসের উত্তরসূরি। আগামী বছর একই প্রক্রিয়ায় বায়ার্ন থেকে আরেকজন খেলোয়াড় আনতে পারে দলটি। জার্মান মিডফিল্ডার লেওন গোরেৎস্কার সঙ্গে বায়ার্নের চুক্তি বাকি আছে আর মাত্র এক বছর। এক বছর শেষ হলেই ফ্রি–তে এই মিডফিল্ডারকে দলে আনতে চাইছে রিয়াল। গোরেৎস্কার ব্যাপারে আগ্রহী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও।

default-image

জর্ডান হেন্ডারসন (মিডফিল্ডার, লিভারপুল)
ক্লাবের অধিনায়ক জর্ডান হেন্ডারসনের বয়স তিরিশ পেরিয়েছে। এই অবস্থায় নতুন করে হেন্ডারসনের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন হবে কি না, দেখা দিয়েছে ধোঁয়াশা। ফলে বেশ কিছু ক্লাব হেন্ডারসনের ব্যাপারে আগ্রহী হয়ে উঠেছে। পিএসজি, জুভেন্টাস, আতলেতিকো মাদ্রিদের পাশাপাশি হেন্ডারসনকে দলে নেওয়ার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছে আর্সেনালও।

নুনো মেন্দেস (লেফটব্যাক, স্পোর্তিং লিসবন)
জোয়াও কানসেলো, রাফায়েল গেরেইরো, রিকার্দো পেরেইরা, সেড্রিক সোয়ারেস, নেলসন সেমেদো, মারিও রুইদের পথ ধরে পর্তুগাল আরেকজন প্রতিভাবান ফুলব্যাক পেয়েছে, যার নাম নুনো মেন্দেস। স্পোর্তিং লিসবনে খেলা এই লেফটব্যাকের ওপর নজর পড়েছে ম্যানচেস্টার সিটির। মেন্দেসকে বিক্রি করার জন্য স্পোর্তিং ৫ কোটি ইউরো চাইলেও ম্যানসিটি অতটা দিতে রাজি নয়। আড়াই কোটি ইউরোর সঙ্গে স্কোয়াডের যেকোনো একজন খেলোয়াড় স্পোর্তিংয়ে পাঠাতে রাজি হয়েছে সিটি। তবে স্পোর্তিং এই প্রস্তাবে রাজি নয়।

জোভান্নি দি লরেনৎসো (রাইটব্যাক, নাপোলি)
ইংলিশ রাইটব্যাক কিয়েরান ট্রিপিয়ের আতলেতিকো মাদ্রিদ ছাড়তে পারেন এবার। সেটা যদি হয় তাহলে ট্রিপিয়েরের জায়গায় কাকে আনবেন কোচ দিয়েগো সিমিওনে? সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে ইউরোজয়ী রাইটব্যাক জোভান্নি দি লরেনৎসোর কথা।

default-image

রুবেন নেভেস (মিডফিল্ডার, উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স)
আন্ডারলেখট থেকে আলবার্ট সাম্বি লোকোঙ্গাকে নেওয়ার পরেও আরেক নতুন মিডফিল্ডারের খোঁজে আর্সেনালের কোচ মিকেল আরতেতা। উলভস থেকে আনতে চাইছেন পর্তুগিজ মিডফিল্ডার রুবেন নেভেসকে। নেভেস নিজেও বড় কোনো ইংলিশ ক্লাবের হয়ে খেলতে আগ্রহী।

লুইস দিয়াজ (উইঙ্গার, এফসি পোর্তো)
উইঙ্গার খুঁজছেন জোসে মরিনিও। দুজনকে পছন্দ হয়েছে তাঁর। এদের মধ্যে একজন ২৮ বছর বয়সী সার্বিয়ার উইঙ্গার ফিলিপ কস্তিচ। আরেকজন এবার কোপা আমেরিকায় আলো ছড়ানো কলম্বিয়ার লুইস দিয়াজ। দিয়াজের জন্য আড়াই কোটি ইউরো খরচ করতেও রাজি রোমা, এমনটাই জানিয়েছেন কলম্বিয়াভিত্তিক সংবাদমাধ্যমগুলো।

হুসাম আউয়ার (মিডফিল্ডার, ফ্রান্স)
দুবছর ধরে লিওঁর ফরাসি মিডফিল্ডার হুসাম আউয়ারকে দলে চাইছে আর্সেনাল। এবার সে তালিকায় নাম লিখিয়েছে আর্সেনালের নগরপ্রতিদ্বন্দ্বী টটেনহামও। দরকার পড়লে আউয়ারকে পাওয়ার জন্য নিজেদের ফরাসি মিডফিল্ডার তাঙ্গি এনদোম্বেলেকেও লিওঁতে পাঠাতে রাজি আছে তাঁরা।

ব্রায়ান গিল (মিডফিল্ডার, সেভিয়া)
গত এক বছর ধরেই রিয়াল কিংবা বার্সায় খেলেন না এমন ফুটবলারদের মধ্যে সবচেয়ে প্রতিভাবান খেলোয়াড় মানা হচ্ছে স্প্যানিশ উইঙ্গার ব্রায়ান গিলকে। সেভিয়ায় নিজেকে সেভাবে পোক্ত করতে না পারা সেই উইঙ্গারকেই এবার দলে চাইছে টটেনহাম । গিলকে পাওয়ার জন্য আড়াই কোটি ইউরোর পাশাপাশি নিজেদের আর্জেন্টাইন উইঙ্গার এরিক লামেলাকে সেভিয়ায় পাঠাতেও রাজি হয়েছে টটেনহাম, এমনটাই খবর।

পিয়েরলুইজি গোলিনি (গোলকিপার, আতালান্তা)
আতলান্তার হয়ে খেলা ইতালির গোলকিপার পিয়েরলুইজি গোলিনিকে দলে আনছে টটেনহাম। এর মধ্যে দলটার সঙ্গে প্রথম ভাগের মেডিকেল পরীক্ষাও হয়ে গিয়েছে গোলিনির। আপাতত এক বছরের ধারে আসছেন গোলিনি, আগামী বছর চাইলে এক কোটি ৩০ লাখ পাউন্ড দিয়ে এই গোলকিপারকে রেখে দিতে পারবে তাঁরা।

দনিয়েল মালেন (উইঙ্গার, পিএসভি আইন্দহোভেন)
জেডন সানচো দলে নেই। তাঁর জায়গায় পিএসভি থেকে ডাচ উইঙ্গার দনিয়েল মালেনকে আনতে চাইছে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। আর্লিং হরলান্ডের মুখপাত্র মিনো রাইওলা আবার মালেনেরও মুখপাত্র। কিন্তু এই দলবদলের জন্য কমিশনবাবদ আকাশছোঁয়া অর্থ দাবি করছেন রাইওলা, পিএসভি যেটা দিতে নারাজ।

জ্যারড বাওয়েন (উইঙ্গার, ওয়েস্ট হাম ইউনাইটেড)
ওয়েস্ট হামের ইংলিশ উইঙ্গার জারড বাওয়েনকে দলে আনতে পারে লিভারপুল। তবে তাঁর আগে দিভক অরিগি, জের্দান শাকিরির মতো খেলোয়াড়দের বিক্রি করতে হবে তাঁদের। গত মৌসুমে ৩৮ ম্যাচ খেলে ৮ গোল আর পাঁচবার গোলসহায়তা করেছিলেন বাওয়েন।

default-image

সাশা কালায়জিচ (স্ট্রাইকার, ভিএফবি স্টুটগার্ট)
একজন স্ট্রাইকার খুঁজছে চেলসি, এটা পুরোনো খবর। স্ট্রাইকার হিসেবে ডর্টমুন্ডের আর্লিং হরলান্ডকে চাইছে তাঁরা, এই খবরও আগের। কিন্তু হরলান্ডকে যদি না পাওয়া যায়? সে ক্ষেত্রে চেলসি কাকে দলে আনবে? শোনা যাচ্ছে আরেক জার্মান ক্লাব স্টুটগার্টের অস্ট্রিয়ার স্ট্রাইকার সাশা কালায়জিচের নাম। এবার ইউরোতে আলো ছড়ানো এই স্ট্রাইকারের প্রতি আগ্রহ আছে চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ী দলটির।

ক্রিস্টিয়ান রোমেরো (সেন্টারব্যাক, আতালান্তা)

একজন সেন্টারব্যাক খুঁজছে টটেনহাম। সে লক্ষ্যে সেভিয়ার ফরাসি সেন্টারব্যাক জুলস কুন্দে থেকে শুরু করে ফুলহামের ড্যানিশ ডিফেন্ডার জোয়াকিম অ্যান্ডারসেন, সাউদাম্পটনের ড্যানিশ ডিফেন্ডার ইয়ানিক ভেস্টারগার্ড, বোলোনিয়ার জাপানিজ ডিফেন্ডার তাকেহিরো তোমিয়াসু - অনেকের দিকেই চোখ পড়েছে তাঁদের। এই তালিকার সর্বশেষ সংযোজন, আর্জেন্টিনার কোপাজয়ী সেন্টারব্যাক ক্রিস্টিয়ান রোমেরো।

ফেলিপে কায়সেদো (স্ট্রাইকার, লাৎসিও)
পুরোনো শিষ্যকে নিজের সঙ্গে নতুন দলে আনতে চাইছেন ইন্টার কোচ সিমোনে ইনজাঘি। তিনি লাৎসিওর ইকুয়েডরিয়ান স্ট্রাইকার ফেলিপে কায়সেদো। ইনজাঘির অধীনে ‘সুপার সাব’ হিসেবে বেশ নাম কামিয়েছেন ম্যানচেস্টার সিটির সাবেক এই স্ট্রাইকার। সেই জাদু কায়সেদো যেন ইন্টারেও দেখান, সেটাই আশা করছেন ইনজাঘি।

default-image

সর্বশেষ সম্পাদিত গুরুত্বপূর্ণ দলবদল


জাস্টিন ক্লুইভার্ট (উইঙ্গার, নেদারল্যান্ডস)
এএস রোমা থেকে নিস, ধার


আন্দ্রোস টাউনসেন্ড (উইঙ্গার, ইংল্যান্ড)
ক্রিস্টাল প্যালেস থেকে এভারটন, ফ্রি


আলবার্ট সাম্বি লোকোঙ্গা (মিডফিল্ডার, বেলজিয়াম)
আন্ডারলেখট থেকে আর্সেনাল, ১ কোটি ৭২ লাখ পাউন্ড


ব্রাহিম দিয়াজ (উইঙ্গার, স্পেন)
রিয়াল মাদ্রিদ থেকে এসি মিলান, ধার


ক্রিস্তোফার আজার (সেন্টারব্যাক, নরওয়ে)
সেল্টিক থেকে ব্রেন্টফোর্ড, ১ কোটি ৩৫ লাখ পাউন্ড


মার্কো সিলভেস্ত্রি (গোলকিপার, ইতালি)
হেল্লাস ভেরোনা থেকে উদিনেসে, ২৪ লাখ পাউন্ড


লুকা রোমেরো (মিডফিল্ডার, আর্জেন্টিনা)
রিয়াল মায়োর্কা থেকে লাৎসিও, ৮ লাখ পাউন্ড


আসমির বেগোভিচ (গোলকিপার, বসনিয়া)
বোর্নমাথ থেকে এভারটন, ৯ লাখ পাউন্ড


মার্কো গ্রুইচ (মিডফিল্ডার, সার্বিয়া)
লিভারপুল থেকে পোর্তো, ১ কোটি ৫ লাখ পাউন্ড

ইতিমধ্যে গুরুত্বপূর্ণ যেসব দলবদল হয়ে গিয়েছে


আশরাফ হাকিমি (রাইটব্যাক, মরক্কো)
ইন্টার মিলান থেকে পিএসজি, ৫ কোটি ১৩ লাখ পাউন্ড


জিয়ানলুইজি দোন্নারুম্মা (গোলকিপার, ইতালি)
এসি মিলান থেকে পিএসজি, ফ্রি


ডেভিড আলাবা (সেন্টারব্যাক, অস্ট্রিয়া)
বায়ার্ন মিউনিখ থেকে রিয়াল মাদ্রিদ, ফ্রি


রদ্রিগো দি পল (মিডফিল্ডার, আর্জেন্টিনা)
উদিনেসে থেকে আতলেতিকো মাদ্রিদ, ৩ কোটি পাউন্ড


জেডন সানচো (উইঙ্গার, ইংল্যান্ড)
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ৭ কোটি ৩০ লাখ পাউন্ড


সের্হিও রামোস (সেন্টারব্যাক, স্পেন)
রিয়াল মাদ্রিদ থেকে পিএসজি, ফ্রি


ইব্রাহিমা কোনাতে (সেন্টারব্যাক, ফ্রান্স)
আর বি লাইপজিগ থেকে লিভারপুল, ৩ কোটি ৬০ লাখ পাউন্ড


ফেলিপে অ্যান্ডারসন (উইঙ্গার, ব্রাজিল)
ওয়েস্ট হাম ইউনাইটেড থেকে লাৎসিও, ৩৫ লাখ পাউন্ড


সের্হিও আগুয়েরো (স্ট্রাইকার, আর্জেন্টিনা)
ম্যানচেস্টার সিটি থেকে বার্সেলোনা, ফ্রি


হোসে সা (গোলকিপার, পর্তুগাল)
অলিম্পিয়াকোস থেকে উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স, ৬৮ লাখ পাউন্ড

জুনিয়র ফিরপো (লেফটব্যাক, স্পেন)
বার্সেলোনা থেকে লিডস ইউনাইটেড, ১ কোটি ৩০ লাখ পাউন্ড


রুই পাত্রিসিও (গোলকিপার, পর্তুগাল)
উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স থেকে এএস রোমা, ১ কোটি পাউন্ড


সান্দ্রো তোনালি (মিডফিল্ডার, ইতালি)
ব্রেসিয়া থেকে এসি মিলান, ৬৪ লাখ পাউন্ড


মাইক মাইনিয়ান (গোলকিপার, ফ্রান্স)
লিল থেকে এসি মিলান, ১ কোটি ১২ লাখ পাউন্ড


মাত্তেও গেনদোজি (মিডফিল্ডার, ফ্রান্স)
আর্সেনাল থেকে মার্শেই, ধার


উইলিয়াম সালিবা (সেন্টারব্যাক, ফ্রান্স)
আর্সেনাল থেকে অলিম্পিক মার্শেই, ধার


প্যাটসন দাকা (স্ট্রাইকার, জাম্বিয়া)
রেড বুল সালজবুর্গ, ২ কোটি ৩০ লাখ পাউন্ড


কার্লোস বাক্কা (স্ট্রাইকার, কলম্বিয়া)
ভিয়ারিয়াল থেকে গ্রানাদা, ফ্রি


জর্জিনিও ভাইনালডম (মিডফিল্ডার, নেদারল্যান্ডস)
লিভারপুল থেকে পিএসজি, ফ্রি


রায়ান বার্ট্রান্ড (লেফটব্যাক, ইংল্যান্ড)
সাউদাম্পটন থেকে লেস্টার সিটি, ফ্রি

কালভিন স্টেংস (উইঙ্গার, নেদারল্যান্ডস)
এজেড আলকমার থেকে নিস, ৮৫ লাখ পাউন্ড


মিচেল বাকার (লেফটব্যাক, নেদারল্যান্ডস)
পিএসজি থেকে বায়ার লেভারকুসেন, ৮৫ লাখ পাউন্ড


ম্যাথিউস ফার্নান্দেস (মিডফিল্ডার, ব্রাজিল)
বার্সেলোনা থেকে পালমেইরাস, ফ্রি


জোয়াও মারিও (মিডফিল্ডার, পর্তুগাল)
ইন্টার মিলান থেকে বেনফিকা, ফ্রি


এরিক গার্সিয়া (সেন্টারব্যাক, স্পেন)
ম্যানচেস্টার সিটি থেকে বার্সেলোনা, ফ্রি


এমারসন রয়্যাল (রাইটব্যাক, ব্রাজিল)
রিয়াল বেতিস থেকে বার্সেলোনা, ৭৩ লাখ পাউন্ড


থিও ওয়ালকট (উইঙ্গার, ইংল্যান্ড)
এভারটন থেকে সাউদাম্পটন, ফ্রি


জাভি মার্তিনেজ (মিডফিল্ডার, স্পেন)
বায়ার্ন মিউনিখ থেকে কাতার স্পোর্টস ক্লাব, ফ্রি


মার্ক গুয়েহি (সেন্টারব্যাক, ইংল্যান্ড)
চেলসি থেকে ক্রিস্টাল প্যালেস, ১ কোটি ৮০ লাখ পাউন্ড


কনরাড দে লা ফুয়েন্তে (উইঙ্গার, যুক্তরাষ্ট্র)
বার্সেলোনা থেকে অলিম্পিক মার্শেই, ২৬ লাখ পাউন্ড

অলিভিয়ের জিরু (স্ট্রাইকার, ফ্রান্স)
চেলসি থেকে এসি মিলান, ১৭ লাখ পাউন্ড


ফোদে বাল্লো-তোরে (লেফটব্যাক, ফ্রান্স)
মোনাকো থেকে এসি মিলান, ৩২ লাখ পাউন্ড


লুকাস এনমেচা (স্ট্রাইকার, জার্মানি)
ম্যানচেস্টার সিটি থেকে ভলফসবুর্গ, ১ কোটি ১০ লাখ পাউন্ড


কার্লেস আলেনিয়া (মিডফিল্ডার, স্পেন)
বার্সেলোনা থেকে হেতাফে, ৩৫ লাখ পাউন্ড


এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া (মিডফিল্ডার, আর্জেন্টিনা)
নরউইচ সিটি থেকে অ্যাস্টন ভিলা, ৩ কোটি পাউন্ড


কেকি (স্ট্রাইকার, ব্রাজিল)
ফ্লুমিনেন্স থেকে ম্যানচেস্টার সিটি, ৮৬ লাখ পাউন্ড


হুয়ান মুসো (গোলকিপার, আর্জেন্টিনা)
উদিনেসে থেকে আতালান্তা, ১ কোটি ৭২ লাখ পাউন্ড


নুনো তাভারেস (লেফটব্যাক, পর্তুগাল)
বেনফিকা থেকে আর্সেনাল, ৬৮ লাখ পাউন্ড


মেম্ফিস ডিপাই (স্ট্রাইকার, নেদারল্যান্ডস)
অলিম্পিক লিওঁ থেকে বার্সেলোনা, ফ্রি


নিকোলাস গঞ্জালেস (উইঙ্গার, আর্জেন্টিনা)
ভিএফবি স্টুটগার্ট থেকে ফিওরেন্তিনা, ২ কোটি ৩১ লাখ পাউন্ড

জিয়ানলুইজি বুফন (গোলকিপার, ইতালি)
জুভেন্টাস থেকে পারমা, ফ্রি


পাও লোপেস (গোলকিপার, স্পেন)
এএস রোমা থেকে অলিম্পিক মার্শেই, ধার


গেরসন (মিডফিল্ডার, ব্রাজিল)
ফ্লামেঙ্গো থেকে অলিম্পিক মার্শেই, ১ কোটি ৭৩ লাখ পাউন্ড


রায়ান আইত নুরি (লেফটব্যাক, ফ্রান্স)
অজেঁ থেকে উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স, ১ কোটি ইউরো


সভেন উলরিয়েখ (গোলকিপার, জার্মানি)
হামবুর্গ থেকে বায়ার্ন মিউনিখ, ফ্রি


টম হিটন (গোলকিপার, ইংল্যান্ড)
অ্যাস্টন ভিলা থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ধার


হাকান চালহানোলু (মিডফিল্ডার, তুরস্ক)
এসি মিলান থেকে ইন্টার মিলান, ফ্রি


জশুয়া কিং (স্ট্রাইকার, নরওয়ে)
এভারটন থেকে ওয়াটফোর্ড, ফ্রি


রাফায়েল সান্তোস বোরে (স্ট্রাইকার, কলম্বিয়া)
রিভার প্লেট থেকে বায়ার লেভারকুসেন, ফ্রি


অ্যাশলি ইয়ং (উইঙ্গার, ইংল্যান্ড)
ইন্টার মিলান থেকে অ্যাস্টন ভিলা, ফ্রি

ড্যানি রোজ (লেফটব্যাক, ইংল্যান্ড)
টটেনহাম হটস্পার থেকে ওয়াটফোর্ড, ফ্রি


ফিকায়ো তোমোরি (সেন্টারব্যাক, ইংল্যান্ড)
চেলসি থেকে এসি মিলান, ৩ কোটি পাউন্ড


আলেক্সান্দার নুবেল (গোলকিপার, জার্মানি)
বায়ার্ন মিউনিখ থেকে মোনাকো, ধার


জ্যাঁ-ক্লাইর তোদিবো (সেন্টারব্যাক, ফ্রান্স)
বার্সেলোনা থেকে নিস, ৭৩ লাখ পাউন্ড


চেঙ্গিজ ইউন্দা (উইঙ্গার, তুরস্ক)
এএস রোমা থেকে অলিম্পিক মার্শেই, ধার


বুবাকারি সুমাওরে (মিডফিল্ডার, ফ্রান্স)
লিল থেকে লেস্টার সিটি, ১ কোটি ৭০ লাখ পাউন্ড


ফ্রান্সিসকো ত্রিনকাও (উইঙ্গার, পর্তুগাল)
বার্সেলোনা থেকে উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স, ধার


লিওনার্দো বালের্দি (সেন্টারব্যাক, আর্জেন্টিনা)
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড থেকে অলিম্পিক মার্শেই, ৬৯ লাখ পাউন্ড


কেভিন স্ট্রুটমান (মিডফিল্ডার, নেদারল্যান্ডস)
অলিম্পিক মার্শেই থেকে কালিয়ারি, ধার


হুয়ান ফয়থ (সেন্টারব্যাক, আর্জেন্টিনা)
টটেনহাম হটস্পার থেকে ভিয়ারিয়াল, ১ কোটি ৩০ লাখ পাউন্ড


ভিক্টর মোজেস (উইঙ্গার, নাইজেরিয়া)
চেলসি থেকে স্পার্তাক মস্কো, ৪৩ লাখ পাউন্ড


বিলি গিলমোর (মিডফিল্ডার, স্কটল্যান্ড)
চেলসি থেকে নরউইচ সিটি, ধার


আন্দ্রে সিলভা (স্ট্রাইকার, পর্তুগাল)
আইনট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট থেকে আর বি লাইপজিগ, ১ কোটি ৯৮ লাখ পাউন্ড

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন