বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

দায় আছে আরেকটা জিনিসেরও। অন্তত আর্জেন্টাইন খেলোয়াড়দের কথা শুনলে সেটিই মনে হবে। আজকের এই গোলশূন্য ড্রয়ের পেছনে দায় প্যারাগুয়ের মাঠ!


মাঠ খেলার জন্য একেবারেই উপযোগী ছিল না বলে উঠে এসেছে বিভিন্ন আর্জেন্টাইন খেলোয়াড়দের কথায়। গোলকিপার এমিলিয়ানো মার্তিনেজের কথাই ধরুন, দুর্দান্ত দুটি সেভ করেছেন ম্যাচে। কিন্তু মার্তিনেজ নিজের কাজ ঠিকমতো করতে পারলেও মার্তিনেজের আক্রমণ-সতীর্থরা পারেননি।

কেন পারেননি, সেটাও বোঝার চেষ্টা করেছেন অ্যাস্টন ভিলার এই গোলকিপার। ইনস্টাগ্রামে মার্তিনেজ বলেছেন, 'এ মাঠে খেলাটা কঠিন ছিল। তবে আমরা আমাদের মান বুঝিয়েছি। শতভাগ উজাড় করে খেলেছি।'


মার্তিনেজের সুরে সুর মিলিয়েছেন পিএসজির মিডফিল্ডার লিয়ান্দ্রো পারেদেসও। পারেদেসই আর্জেন্টিনার একমাত্র মিডফিল্ডার, যিনি এই ম্যাচটা পুরো খেলেছেন। মাঝমাঠে পারেদেসের সঙ্গী জোভান্নি লো সেলসো ও রদ্রিগো দি পলের প্রত্যেককেই উঠিয়ে নেওয়া হয়েছিল। টিওয়াইসি স্পোর্তসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পারেদেস বলেন, ‘অদ্ভুত লাগছে, কারণ আমরা যেভাবে খেলেছি, আমাদের জেতা উচিত ছিল। তিন পয়েন্ট পাওয়া উচিত ছিল। আমরা অনেক গোলের সুযোগ সৃষ্টি করেছি কিন্তু সেভাবে কাজে লাগাতে পারিনি। দুই-একটা বিচ্ছিন্ন প্রতি আক্রমণ ছাড়া প্যারাগুয়ে আমাদের ভোগাতে পারেনি। তবে আমরা হেরে যাইনি, এটাও একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।’

default-image

পিচ নিয়ে অসন্তুষ্ট ছিলেন পারেদেসও, ‘পিচ আজকে ভালো অবস্থায় ছিল না। তাও, আমরা চেষ্টা করেছি। আমরা গোলের সুযোগ নষ্ট করেছি। বেশ ভালো একটা ম্যাচ খেলেছি আমরা।’


সেভিয়ার হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলতে গিয়ে চোটে পড়া ডিফেন্ডার মার্কাস আকুনিয়া এই ম্যাচটা খেলতে পারবেন না বলে মনে হলেও শেষ পর্যন্ত তাঁকে মাঠে নামিয়েছিলেন কোচ লিওনেল স্কালোনি। দ্বিতীয়ার্ধে আবারও চোটে পড়লে তাঁকে উঠিয়ে আয়াক্সের লেফটব্যাক নিকোলাস তালিয়াফিকোকে নামানো হয়।

তালিয়াফিকোর কাছেও প্যারাগুয়ের পিচ তেমন ভালো বলে মনে হয়নি, ‘একটা ইতিবাচক ম্যাচ খেলেছি আমরা। যদিও আমরা যেমন ফলাফল প্রত্যাশা করেছিলাম, সেটা পাইনি। মাঠ ভালো অবস্থায় ছিল না। তবে এটা কোনো অজুহাত হতে পারে না। আজ ড্র করার মূল কারণ আমরা গোল করতে পারিনি। অনেক দিন যাবৎ আমরা মাঠে দর্শকদের সামনে খেলিনি, সেই উত্তেজনা ফিরে পেয়ে ভালো লাগছে।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন