বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

কাল লিভারপুলের মাঠে প্রথমার্ধ শেষে ২-০ গোলে পিছিয়ে ছিল ইউনাইটেড। বিরতির সময় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে গিয়ে ইউনাইটেড সমর্থকেরা দেখলেন, নির্মম রসিকতা হচ্ছে ইউনাইটেডের খেলা নিয়ে।

সন্দেহ নেই নির্মম রসিকতা। লিভারপুলের বিপক্ষে কাল ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত হওয়ার ম্যাচে প্রথমার্ধে স্বাগতিকদের পোস্টে কোনো শট নিতে পারেনি ইউনাইটেড। প্রথমার্ধের খেলা শেষে ইংল্যান্ডের চশমা ও লেন্স প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান স্পেকসেভার্স তাই মজা করে একটি পোস্ট করে ইউনাইটেডের খেলা নিয়ে।

খেলায় বিরতি চলাকালে প্রতিষ্ঠানটির টুইটার অ্যাকাউন্টে পোস্ট করা হয়, ‘ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সব সমর্থকের জন্য আমরা বিনা পয়সায় চোখের লেন্স অপসারণের অফার দিচ্ছি। আমাদের স্থানীয় শোরুমে ঢুঁ মারলেই চলবে, আমরা লেন্স অপসারণ করে নেব, যেন ওদের খেলা আর না দেখতে হয়।’ ইউনাইটেড সমর্থকদের একটি ভেরিফায়েড পেজ এই পোস্টের খোঁচা টের পেয়ে মন্তব্য করে, ‘আউচ!’

মাঠে দল ভালো খেলছে না। ওদিকে খেলাধুলার সঙ্গে কোনো সম্পর্ক নেই, এমন একটি প্রতিষ্ঠানও সুযোগ পেয়ে খোঁচা মারছে। ইউনাইটেড সমর্থকদের অনেকেই প্রতিবাদ জানাতে চলে এসেছেন। এক টুইটার ব্যবহারকারী সেই পোস্টে হুমকি দেন, ‘ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কোনো সমর্থক আর স্পেকসেভার্সে যাবে না। তোমাদের লন্ডন শাখা লাটে উঠবে।’

আরেক টুইটার ব্যবহারকারী অবশ্য এই পোস্টে মজা পেয়েছেন। তাঁর মন্তব্য, ‘ব্রিটিশ রসিকতা। ব্রিটেনে এসব রসিকতা অমূল্য। সব সমর্থক হৃদয় দিয়ে খেলা দেখেন (অ্যানফিল্ডে ম্যাচের সপ্তম মিনিট খেয়াল করুন)।’ অ্যানফিল্ডে ম্যাচের সাত মিনিটে গ্যালারির সব সমর্থক উঠে দাঁড়িয়ে ইউনাইটেড তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সন্তান হারানোর শোকের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করে লিভারপুলের ‘ইউ উইল নেভার ওয়াক অ্যালোন’ গান গেয়েছেন। ম্যাচটি খেলেননি রোনালদো।

তবে এই খোঁচায় রাগ করা সমর্থকের সংখ্যাই বেশি। স্পেকসেভার্স তবু পিছু হটেনি। পাল্টা জবাবে আরও নির্মম রসিকতা করেছে স্পেকসেভার্স, ‘দুঃখিত, দ্বিতীয়ার্ধে ওরা যদি শট নিতে পারে, তাহলে আমরা এই অফার তুলে নেব।’ অবশ্য স্পেকসেভার্স রসিকতা করলেও কথা রাখতে পারেনি। দ্বিতীয়ার্ধে লিভারপুলের পোস্টে একটি শট রাখতে পেরেছে ইউনাইটেড।

খেলাধুলা নিয়ে মজার সব পোস্টের জন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলাদা পরিচিতি পেয়েছে স্পেকসেভার্স। ২০১৯ সালে হেডিংলি টেস্টে ইংল্যান্ডের অবিস্মরণীয় জয়ে শেষ উইকেট জুটিতে ক্রিজে আঁকড়ে থাকা জ্যাক লিচকে আজীবন বিনা মূল্যে চশমা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল স্পেকসেভার্স।

ক্রিজে লিচকে চশমা মুছতে দেখা গেছে। জয়ের পর স্পেকসেভার্স তাই টুইট করেছিল, ‘লিচকে আমরা আজীবন বিনা মূল্যে চশমা সরবরাহ করব।’গত বছর টটেনহামের নতুন মৌসুমের অ্যাওয়ে জার্সি দেখে খুশি হতে পারেননি ক্লাবটির বেশির ভাগ সমর্থক।

কালো ও নীলের প্রাধান্য রেখে হরেক রকম রঙের মিশেলে বানানো সে জার্সি নিয়ে ব্যঙ্গাত্মক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। টটেনহাম এই জার্সির ছবি পোস্ট করে জানতে চেয়েছিল, ‘এক শব্দে জানান জার্সিটা কেমন হয়েছে?’

স্পেকসেভার্সের পক্ষ থেকে টুইট করা হয়, ‘শুডহ্যাভ (উচিত ছিল)...’স্পেকসেভার্সের স্লোগান ‘শুডহ্যাভ গোন টু স্পেকসেভার্স’-এর সঙ্গে মিল রেখে মন্তব্যটি করা হয়। মানে স্পেকসেভার্সে গেলে চোখের যত্নটা ঠিকমতো নিলে আর এমন কিছু ঘটত না।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন