বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

ফরোয়ার্ড হুয়ান আর্সের জোড়া গোল আর স্ট্রাইকার মার্সেলো মোরেনোর এক গোল মিলিয়ে নিশ্চিত হয়েছে উরুগুয়ের এ হার। এ নিয়ে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে টানা চার ম্যাচ হারল উরুগুয়ে। নিজেদের ইতিহাসে এই প্রথমবারের মতো বাছাইপর্বে টানা চার ম্যাচ হারল উরুগুয়ে।

ফলে কাতার বিশ্বকাপে আদৌ সুয়ারেজদের খেলা হবে কি না, তা নিয়ে দেখা যাচ্ছে ঘোরতর সংশয়। লাতিন অঞ্চলের বাছাইপর্বের সেরা চার দল সরাসরি খেলবে বিশ্বকাপ। পঞ্চম দল খেলবে প্লে-অফ। পয়েন্ট তালিকার বর্তমান অবস্থা অনুযায়ী উরুগুয়ে প্লে-অফেও সুযোগ পাবে না। ১৪ ম্যাচ খেলার পর মাত্র ১৬ পয়েন্ট নিয়ে সাত নম্বরে আছে দলটি।

default-image

তবে এই প্লে-অফে সুযোগ পাওয়া নিয়ে বেশ হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হচ্ছে কলম্বিয়া, পেরু, চিলি, উরুগুয়ে ও বলিভিয়ার মধ্যে। উরুগুয়ের চেয়ে মাত্র এক পয়েন্ট বেশি কলম্বিয়া আর পেরুর। পয়েন্ট তালিকার চার ও পাঁচ নম্বর দলে আছে তারা।

ছয়ে থাকা চিলির পয়েন্ট উরুগুয়ের সমান হলেও গোল ব্যবধানে পিছিয়ে আছেন সুয়ারেজরা। আট নম্বরে থাকা বলিভিয়া আছে মাত্র এক পয়েন্ট পেছনে। শেষ দুই রাউন্ডে তাই এখনো অনেক কিছুই হতে পারে। সুয়ারেজ, কাভানিরা থাকার পরও গোল করতে খাবি খাচ্ছে উরুগুয়ে। ১৪ ম্যাচ খেলে মাত্র ১৪ গোল করেছে তারা, হজম করেছে আরও সাত গোল বেশি।

বহুদিনের অভিজ্ঞ কোচ অস্কার তাবারেজকে যেন ছাঁটাই করা হয়, এ নিয়ে শোরগোল উঠেছে উরুগুয়েজুড়ে। তাবারেজ নিজে অবশ্য চাকরি ছাড়তে রাজি নন, ‘আমি এখনই হাল ছেড়ে দিতে রাজি নই। আমাকে ছাঁটাই করার সিদ্ধান্ত যদি নেওয়া হয়ে যায়, আমি সেটা সম্মান করব। কিন্তু আমি জানি না সেটা কে আমার কাছ থেকে চাইবে, বিশেষ করে আমি দেড় দশক ধরে দলটার জন্য যা করেছি।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন