বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জাতীয় দলের হয়ে এটাই প্রথম হ্যাটট্রিক মেম্ফিসের। প্রথমার্ধে দুই গোলের পর দ্বিতীয়ার্ধে আরও একটি গোল তুলে নেন তিনি। এর মধ্যে ৩৮ মিনিটে পেনাল্টি থেকে তাঁর দ্বিতীয় গোলটি ছিল দর্শনীয় ‘পানেনকা’ শট। দেশের হয়ে শেষ ১০ ম্যাচে এ নিয়ে ১২ গোল করলেন মেম্ফিস। নেদারল্যান্ডসের হয়ে ৭১ ম্যাচে এ নিয়ে ৩৩ গোল করলেন তিনি। বাছাইপর্বে গোলের মধ্যে থেকে ডাচদের হয়ে শীর্ষ ১০ গোলদাতার তালিকায় উঠে এলেন মেম্ফিস।

default-image

ডাচদের হয়ে এখন যৌথভাবে অষ্টম সর্বোচ্চ গোলদাতা মেম্ফিস। ৪৮ ম্যাচে ৩৩ গোল করা ডাচ কিংবদন্তি ইয়োহান ক্রুইফ এবং আবে লেনস্ত্রার পাশে বসলেন তিনি। ডাচদের ইতিহাসে অন্যতম সেরা খেলোয়াড় লেনস্ত্রা ৪৭ ম্যাচে ৩৩ গোল করেছেন। ১৯৫৯ সালে দেশের হয়ে অবসর নেন লেনস্ত্রা। ১৯৭৪ বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলা ক্রুয়েফ ও লেনস্ত্রার পাশে বসতে পেরে গর্ব অনুভব করলেও আরও এগিয়ে যেতে চান মেম্ফিস, ‘ক্রুইফ ও লেনস্ত্রা দুজনেই কিংবদন্তি। তাদের সঙ্গে তুলনা চলে না। নেদারল্যান্ডসের জন্য তারা অনেক করেছেন। তবে আমি আরও সাফল্য পেতে চাই, গোল করতে চাই। সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় শীর্ষ তিনে থাকতে চাই।’ ১০২ ম্যাচে ৫০ গোল নিয়ে ডাচদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতা রবিন ফন পার্সি।

default-image

অন্য ম্যাচে আজারবাইজানকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে পর্তুগাল। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো এক ম্যাচ নিষিদ্ধ হওয়ায় আজারবাইজানের বিপক্ষে খেলতে পারেননি। বের্নাদো সিলভা, আন্দ্রে সিলভা এবং ডিয়েগো জোতা পর্তুগালের হয়ে গোল করেন। ৫ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে ‘এ’ গ্রুপের শীর্ষে উঠে এল পর্তুগাল। ইসরাইলকে ৫-০ গোলে হারিয়েছে ডেনমার্ক। স্লোভেনিয়াকে ৩-০ গোলে হারায় ক্রোয়েশিয়া।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন