পূর্ব সূচি অনুযায়ী এ বছর ডিসেম্বরে ভারতে হওয়ার কথা সাফ ফুটবল টুর্নামেন্ট। ভারতেই টুর্নামেন্টটি হচ্ছে এতে কোনো সংশয় নেই। কিন্তু সময় একটু হেরফের হতে পারে।
বছরের শেষ দিকে ভারতের ঘরোয়া টুর্নামেন্ট আইএসএল, সেটির সূচি ঠিক থাকলে ডিসেম্বরে সাফ ফুটবল কীভাবে হবে সেটা বড় প্রশ্ন। গত বছর টুর্নামেন্টটির প্রথম আসর হয়েছে ১২ অক্টোবর থেকে ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত। আগামী বছরও এই সময়ে টুর্নামেন্টটি হওয়ার কথা। কাজেই সাফের জন্য সময় বের করা তখন কঠিনই।
তা ছাড়া ভারতের নিজস্ব অনেক আয়োজন আছে। সাফ তারা ডিসেম্বরে করতে পারবে কি না, করলে কখন করবে, ভেন্যু কোন শহর সেসব প্রশ্ন খোদ নবনিযুক্ত সাফ সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলালের। গত সপ্তাহে দিল্লি গিয়ে সাফের সবকিছু বুঝে নিয়েছেন বিদায়ী সাফ সাধারণ সম্পাদক আলবার্তো কোলাসোর কাছ থেকে।
ঢাকা ফিরে সেই অভিজ্ঞতার কথা জানালেন বাফুফের এই সাবেক সাধারণ সম্পাদক, ‘ডিসেম্বরে সাফ হবে নাকি আরও আগেই হবে, সে ব্যাপারে ভারত ভাবছে। সময় বের করে জুনের দিকে এটি করা যায় কি না, এ ব্যাপারটিও ভারতের শীর্ষ ফুটবল কর্মকর্তাদের মাথায় আছে।’
ভেন্যুও ঠিক হয়নি সাফের। টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আফগানিস্তান সাফ থেকে বের হয়ে মধ্য এশিয়ায় নাম লিখেয়েছে। তবে হেলাল বললেন, ‘আমি যতদূর জানি, আফগানিস্তানের ২০১৫ সাফে খেলার কথা। কিন্তু খেলেব কি না নিশ্চিত নই। ব্যাপারটা পরিষ্কার হতে হবে দ্রুতই। কারণ, সাফের স্পনসর প্রতিষ্ঠান জানতে চেয়েছে আফগানিস্তান এই সাফটা খেলবে কি না।’
আফগানিস্তানের সাফ ছেড়ে দেওয়ার ব্যাপারটা এএফসির সভায় আনুষ্ঠানিক অনুমোদন হওয়ার কথা শিগগিরই। তখনই নাকি জানা যাবে আফগানিস্তান আসন্ন সাফে থাকছে কি থাকছে না। আফগানিস্তান না থাকলেই বাংলাদেশের জন্য ভালো, চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পথে একটা বড় বাধা না থাকা তো স্বস্তিরই। তবে পরের সাফ থেকে আফগানরা যে নেই, সেটি না বললেই চলছে।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন