পিএসজি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে
পিএসজি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পেছবি: এএফপি

গ্রীষ্মকালীন দলবদলে মেম্ফিস ডিপাই আর এরিক গার্সিয়াকে চেয়েও কিনতে পারেনি বার্সেলোনা। এই শীতকালীন দলবদলে কি তা হবে? লিভারপুল কি রক্ষণভাগের নতুন কোনো খেলোয়াড় কিনবে? ম্যানচেস্টার সিটি আগুয়েরো-জেসুসদের সঙ্গী হিসেবে আরেক স্ট্রাইকার কেনার কথা ভাবছে? রামোসের রিয়ালের সঙ্গে চুক্তিরই-বা কী অবস্থা? তিনি রিয়ালে না থাকলে কোথায় যেতে পারেন?

এমন হাজারো দলবদলের গুঞ্জনে মুখর ইউরোপীয় ফুটবলপাড়া। এমন অনেক প্রশ্নের উত্তর নিশ্চিত হয়ে যাবে আর কিছুদিনের মধ্যেই।

ইউরোপীয় ফুটবলে শীতকালীন দলবদল চলছে এখন। মাসজুড়ে ক্লাবগুলো পছন্দের খেলোয়াড় কিনে নিজেদের দুর্বলতা ঢাকতে চাইবে, অপ্রয়োজনীয় খেলোয়াড় ছেড়ে খরচ কমাতে চাইবে। ইউরোপের প্রধান লিগগুলোর দলবদল চলবে চলতি মাসের শেষ দিন পর্যন্ত।

সম্ভাব্য দলবদলের জন্য বাতাসে ভাসছে অনেক খেলোয়াড় ও তাঁদের প্রতি আগ্রহী ক্লাবের নাম। সাম্প্রতিক গুঞ্জনগুলো একনজরে দেখে নেওয়া যাক!

বিজ্ঞাপন

রামোসকে তিন বছরের চুক্তিতে ডাকছে পিএসজি?

সের্হিও রামোস রিয়াল ছাড়ছেন, নাকি ছাড়ছেন না? পিএসজি রামোসকে দলে নিতে আগ্রহী, নাকি শুধুই গুজব? কোনো প্রশ্নের উত্তর এখনো সঠিকভাবে কেউ জানে না। একেক সূত্র থেকে আসছে একেক খবর। কিছুদিন আগে জানা গিয়েছিল, দুই ক্লাবের সভাপতির মধ্যে একটা অলিখিত চুক্তির কারণে একে অন্যের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়ের দিকে হাত বাড়ায় না রিয়াল ও পিএসজি। তাই রামোসের দিকেও হাত বাড়াচ্ছে না ফরাসি ক্লাবটি। কিন্তু এবার স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ওনদা চেরো জানিয়েছে, রামোসকে তিন বছরের চুক্তির প্রস্তাব দিয়েছে পিএসজি। প্রতিবছর দেড় কোটি ইউরো বেতন দেওয়া হবে তাঁকে। এত বেতন রিয়ালের পক্ষে এই করোনাকালে দেওয়া সম্ভব নয়।

default-image

অবশেষে ইউনাইটেডে আসছেন সানচো?

বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের ইংলিশ উইঙ্গার জেডন সানচোর প্রতি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের আগ্রহ নতুন নয়। গত দলবদলের পুরোটা সময় সানচোর পিছে ঘুরে ব্যর্থ হয় ইউনাইটেড। কারণ একটাই, ডর্টমুন্ড ১২ কোটি ইউরোর এক পয়সা কমেও এই তারকাকে ছাড়বে না। আর সানচোর জন্য এত টাকা খসাতে আগ্রহী ছিল না ইউনাইটেড। এবার স্পোর্ত ওয়ানের বরাত দিয়ে ইংল্যান্ডের সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস একটা নতুন তথ্য দিয়েছে, ডর্টমুন্ডের এখন টাকাপয়সার অনেক দরকার। তাই আগের ১২ কোটি দামের চেয়ে বেশ কম দামেই সানচোকে এবার ছেড়ে দেবে তারা। দেখা যাক, ইউনাইটেড এগিয়ে আসে কি না!

এমবাপ্পেকে নিয়ে রিয়ালের দোটানার সুযোগ নেবে লিভারপুল?

করোনাকালে সব ক্লাবেরই আর্থিক অবস্থা খারাপ। খরচ করতে হচ্ছে বুঝেশুনে। রিয়াল মাদ্রিদও তার ব্যতিক্রম নয়। ফলে বহুদিন ধরে যে এমবাপ্পেকে দলে আনার ইচ্ছা ছিল ক্লাবটির, কাঙ্ক্ষিত সেই দলবদলই হচ্ছে না। রিয়ালের এই সমস্যার ফায়দা লিভারপুল লুটতে পারে বলে জানিয়েছে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মুন্দো দেপোর্তিভো। এদিকে পিএসজির সঙ্গে এমবাপ্পে চুক্তি নবায়ন করবেন কি না, সেটাও এখনো নিশ্চিত নয়।

রিয়ালে যাওয়ার সম্ভাবনার কথা উড়িয়ে দিলেন নাগলসমান

রিয়ালে জিনেদিন জিদানের অবস্থা ঠিক সুখকর নয়। প্রত্যাশিত ফলাফল না পেলে জিদানের ওপরও খড়্গহস্ত হতে পারেন ক্লাবের সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ। কিন্তু তারপর? কে আসবেন রিয়ালের দায়িত্ব নিতেন? সর্বাগ্রে শোনা যাচ্ছে লাইপজিগের জার্মান কোচ ইউলিয়ান নাগলসমানের নাম। কিন্তু স্কাই স্পোর্টস জার্মানিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এই সবকিছু উড়িয়ে দিয়েছেন এই তরুণ ম্যানেজার, ‘পত্রপত্রিকায় আমরা যা দেখি, তা সব সময় সত্যি হয় না!’

default-image

নতুন রাইটব্যাকের খোঁজে চেলসি

দলে আছেন রিস জেমস ও সেজার আজপিলিকুয়েতার মতো রাইটব্যাক। তা-ও আতলেতিকো মাদ্রিদের ইংলিশ রাইটব্যাক, সাবেক টটেনহাম তারকা কিয়েরান ট্রিপিয়েরের প্রতি আগ্রহী হয়েছে চেলসি। শোনা যাচ্ছে, অভিজ্ঞ এই ফুলব্যাকের জন্য আড়াই কোটি ইউরো পর্যন্ত খরচ করতে রাজি আছে তারা।

বিজ্ঞাপন

কোচের সঙ্গে ঝগড়া, ইংল্যান্ডে ফিরছেন সাবেক সিটি তারকা?

ম্যানচেস্টার সিটি ছেড়ে ইতালিতে পাড়ি জমিয়েছেন বহুদিন হলো। এবার ৩৪ বছর বয়সী বসনিয়ান স্ট্রাইকার এডিন জেকো আবার ইংল্যান্ডে ফিরবেন বলে শোনা যাচ্ছে। কারণ? কোচ পাওলো ফনসেকার সঙ্গে মনোমালিন্য। জেকোর জন্য অতীতে জুভেন্টাস, ইন্টারের মতো ক্লাবগুলো আগ্রহী হলেও এবার এভারটন তাঁকে দলে আনতে পারে বলে শোনা যাচ্ছে।

ব্রাজিলের তরুণকে নিয়ে টানাটানি করছে তিন ক্লাব

পালমেইরাসের ব্রাজিলীয় ফরোয়ার্ড গ্যাব্রিয়েল ভেরনকে দলে টানার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ম্যানচেস্টার সিটি, জুভেন্টাস ও বার্সেলোনার মতো ক্লাবগুলো।

আতালান্তার আর্জেন্টাইন তারকাকে নিয়ে গেল সেভিয়া

আতালান্তা কয়েক বছর ধরে আলো ছড়াচ্ছে। আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার আলেহান্দ্রো পাপু গোমেজ এর মূল কুশীলব। কোচ জিয়ান পিয়েরে গাসপেরিনির সঙ্গে মতদ্বৈততার কারণে সেই গোমেজ ক্লাব ছাড়বেন, বহু আগেই জানা গিয়েছিল। সেটাই নিশ্চিত হচ্ছে মাত্র। জানা গেছে, ইতালি ছেড়ে স্পেনের সেভিয়ায় পাড়ি জমাচ্ছেন এই তারকা। গোমেজকে পাওয়ার জন্য ৫৫ লাখ ইউরো খরচ করছে সেভিয়া। সেভিয়ার সঙ্গে এই আর্জেন্টাইনের চুক্তি হতে চলেছে ২০২৪ সাল পর্যন্ত।

default-image

পুরোনো শিষ্যকে দলে চান মরিনিও

রিয়াল মাদ্রিদে আর্জেন্টাইন উইঙ্গার আনহেল দি মারিয়াকে এই জোসে মরিনিওই এনেছিলেন। এখন ইংলিশ ক্লাব টটেনহামের দায়িত্বে থাকা এই কোচ দি মারিয়াকে আবার ইংল্যান্ডে আনতে চান বলে জানিয়েছে ফরাসি সংবাদমাধ্যম লেকিপ। পিএসজির সঙ্গে মারিয়ার চুক্তি শেষ হচ্ছে কিছুদিন পর। চুক্তি শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দি মারিয়াকে টটেনহামে আনতে চাইছেন মরিনিও, এমনটাই জানা গেছে।

ফরাসি লেফটব্যাক দলে চাইছে তারা

মার্শেইয়ের ফরাসি লেফটব্যাক জর্ডান আমাভিকে দলে আনার ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছে আর্সেনাল, নাপোলির মতো ক্লাবগুলো। এককালে ইংলিশ ক্লাব অ্যাস্টন ভিলায় খেলে যাওয়া এই লেফটব্যাকের সঙ্গে বর্তমান ক্লাব মার্শেইয়ের চুক্তি শেষ হবে কিছুদিন পর। চুক্তি শেষ হলে তাঁকে ফ্রিতে দলে আনার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ক্লাব দুটি।

দলে মিডফিল্ডার চায় ডর্টমুন্ড

দলে নতুন সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার চাইছে জার্মান ক্লাব বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। তাদের নজরে আছে বরুসিয়া মনশেনগ্লাডবাখের সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার ফ্লোরিয়ান নয়হাউস, সাসসুয়োলোর ইতালিয়ান মিডফিল্ডার মানুয়েল লোকাতেল্লি।

বার্সা ডিফেন্ডারের দিকে নজর লাৎসিওর

বার্সেলোনার ফরাসি ডিফেন্ডার জ্যাঁ-ক্লাইর তোদিবোকে দলে চাইছে ইতালিয়ান ক্লাব লাৎসিও। যদিও এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে আলোচনা করা শুরু করেনি ক্লাব দুটি।

default-image

রিয়াল তারকাকে পাকাপাকিভাবে কেনার সুযোগ পাচ্ছে না আর্সেনাল

রিয়াল মাদ্রিদের নরওয়েজিয়ান মিডফিল্ডার মার্টিন ওডেগার্ডকে দলে আনার জন্য আর্সেনাল কোচ মিকেল আরতেতা আগ্রহী, খবরটা নতুন নয়। এমনকি তরুণ এই তারকাকে দলে পেতে এর মধ্যেই কোচ নাকি নিজেই ফোন করে রাজি করিয়ে ফেলেছেন। তবে পাকাপাকিভাবে নয়, আর্সেনালে ধারে আসছেন ওডেগার্ড। আগামী জুন পর্যন্ত থাকবেন। ধারের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও রিয়াল থেকে পাকাপাকিভাবে এই তারকাকে দলে আনার সুযোগ পাচ্ছে না আর্সেনাল। ইংল্যান্ডের সংবাদমাধ্যম টাইমসের মাধ্যমে জানা গেছে, ধার বাবদ রিয়ালকে ১ কোটি ৮০ লাখ পাউন্ডের মতো দিচ্ছে আর্সেনাল।

চুক্তি বাড়াচ্ছেন মদরিচ?

বয়স হয়ে গেছে ৩৫। এই সময়ে সাধারণত খেলোয়াড়দের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করতে চায় না কোনো ক্লাব। কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদ লুকা মদরিচের ক্ষেত্রে সে পথে হাঁটতে রাজি নয়। রিয়ালের পরিচালক এমিলিও বুত্রাগুয়েনোর বরাত দিয়ে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মার্কা জানিয়েছে, মদরিচকে নতুন চুক্তির প্রস্তাব দেবে রিয়াল।

লিভারপুলে আরেক কিশোর?

মূল দলে যেখানে সেন্টারব্যাক দরকার, সেদিকে লক্ষ্য না রেখে দলে আরও এক কিশোর ফরোয়ার্ডকে আনতে চলেছে লিভারপুল। এবার তাদের নজরে পড়েছে ইংলিশ ক্লাব ডার্বি কাউন্টির ১৬ বছর বয়সী আক্রমণাত্মক মিডফিল্ডার কাইদে গর্ডন। গর্ডনকে কেনার জন্য ১০ লাখ পাউন্ড পর্যন্ত খরচ করতে রাজি হয়েছে ক্লাবটি।

এ তো গেল গুঞ্জনের খবর। কিন্তু এ পর্যন্ত কোন কোন খেলোয়াড় দল পরিবর্তন করলেন? লম্বা তালিকাটা একনজরে দেখে নেওয়া যাক—

সম্পাদিত ধার চুক্তি:
আরকাদিউশ মিলিক (নাপোলি থেকে মার্শেই)
উইলিয়ান জোসে (রিয়াল সোসিয়েদাদ থেকে উলভারহ্যাম্পটন)
ড্যানি ড্রিঙ্কওয়াটার (চেলসি থেকে কাসিমপাসা)
ফিকায়ো তোমোরি (চেলসি থেকে এসি মিলান)
ম্যাথিউ রায়ান (ব্রাইটন থেকে আর্সেনাল)
সোয়ালিহো মেইতে (তুরিনো থেকে এসি মিলান)
লুকা ইয়োভিচ (রিয়াল মাদ্রিদ থেকে আইনট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট)
মুসা দেম্বেলে (অলিম্পিক লিওঁ থেকে আতলেতিকো মাদ্রিদ)
তাকেফুসা কুবো (রিয়াল মাদ্রিদ থেকে হেতাফে)
কার্লেস আলেনিয়া (বার্সেলোনা থেকে হেতাফে)
রাজ্জা নাইনগোলান (ইন্টার মিলান থেকে ক্যালিয়ারি)

default-image

সম্পাদিত পূর্ণাঙ্গ চুক্তি:

পাপু গোমেজ (আতালান্তা থেকে সেভিয়া, ৪.৫ মিলিয়ন পাউন্ড)
সকরাতিস পাপাস্থাতোপোলোস (আর্সেনাল থেকে অলিম্পিয়াকোস, ফ্রি)
আলেকসান্দর কোকোরিন (স্পার্তাক থেকে ফিওরেন্তিনা, ৪.৫ মিলিয়ন পাউন্ড)
ক্লাস-ইয়ান হুন্টেলার (আয়াক্স থেকে শালকে, ফ্রি)
জ্যাক উইলশেয়ার (ওয়েস্ট হাম থেকে বোর্নমাউথ, ফ্রি)
ক্রেপিন দিয়াত্তা (ক্লাব ব্রুজেস থেকে মোনাকো, ১১.৭ মিলিয়ন পাউন্ড)
মেসুত ওজিল (আর্সেনাল থেকে ফেনেরবাচে, ফ্রি)
সেবাস্তিয়েন আলের (ওয়েস্ট হাম থেকে আয়াক্স, ২০ মিলিয়ন পাউন্ড)
আমাদ দিয়ালো (আতালান্তা থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ১৮.৭ মিলিয়ন পাউন্ড)

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন