এমবাপ্পে খেলতে পারবেন আশা জাগছে

বিজ্ঞাপন
default-image

সন্দেহটা জেগেছিল সেঁত এতিয়েনের বিপক্ষে ফরাসি কাপের ফাইনালেই। খোঁড়াতে খোঁড়াতে মাঠ ছেড়েছিলেন পিএসজি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে। পরে ডাগআউটে ফিরেছেন ক্রাচে ভর করে। দৃশ্যটা পিএসজির জন্য মোটেও সুখকর কিছু না। ইএসপিএন এবং এএফপি জানিয়েছিল, চ্যাম্পিয়নস লিগ কোয়ার্টার ফাইনালে এমবাপ্পে খেলতে পারবেন কি না তা নিয়ে সন্দেহ আছে।

একই সুর শোনা গিয়েছিল ক্লাব কর্তৃপক্ষের কাছ থেকেও। ক্লাবের ওয়েবসাইটে পিএসজি বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছিল, ‘সেঁত এতিয়েনের বিপক্ষে ফ্রেঞ্চ কাপ ফাইনালের পর ঘোষণা অনুযায়ী সোমবার কিলিয়ান এমবাপ্পের ডান অ্যাঙ্কেলের চোটের অবস্থা জানার জন্য পরীক্ষা করা হয়েছে। পরীক্ষায় নিশ্চিত হওয়া গেছে অ্যাঙ্কেলে আঘাতের সঙ্গে লিগামেন্টও ছিঁড়ে গেছে। এ চোট থেকে সেরে উঠতে অন্তত তিন সপ্তাহ সময় লাগে।’

বিবৃতি অনুযায়ী ১২ আগস্টের মধ্যে এমবাপ্পের সেরে ওঠার সম্ভাবনা প্রায় শূন্য। এই দিনেই দুর্দান্ত আতালান্তার বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে মাঠে নামার কথা ছিল পিএসজির।

তবে ফরাসি সংবাদমাধ্যম ‘লা প্যারিসিয়ান’ কিন্তু চ্যাম্পিয়নস লিগে এমবাপ্পের খেলা নিয়ে আশাবাদী ছিল। তারা জানিয়েছিল, এই চোটের কারণে এমবাপ্পেকে সর্বোচ্চ ১০ থেকে ১৫ দিন মাঠের বাইরে থাকতে হবে। সংবাদপত্রটি তাদের প্রতিবেদনে এক গোড়ালি বিশেষজ্ঞের উদ্ধৃতি প্রকাশ করে, ‘হাড়ে বড় আঘাত না পেলে সে অবশ্যই (চ্যাম্পিয়নস লিগ) খেলতে পারবে।’ আরেক ক্রীড়া চিকিৎসক বলেছিলেন, ‘প্রথম দেখায় মনে হয়েছে সে খেলতে পারবে।’ এসব বিশেষজ্ঞের মতে, চোট কাটিয়ে মাঠে খেলার মতো অবস্থায় ফিরতে সর্বোচ্চ দুই সপ্তাহ লাগতে পারে এমবাপ্পের।

শেষমেশ লা পারিসিয়েনের কথাই সত্যি হতে চলেছে। ফিট হওয়ার পথেই আছেন এমবাপ্পে। গতকাল অনুশীলন করে আতালান্তার বিপক্ষে মাঠে নামার গুঞ্জনটা আরও জোরালো করে দিয়েছেন। সতীর্থদের সঙ্গে অনুশীলন করেননি, একাই করেছেন। তবে যেভাবে অনুশীলন করেছেন, তা দেখে আবারও আশায় বুক বেঁধেছেন পিএসজি সমর্থকেরা। একে তো নিষেধাজ্ঞার কারণে ম্যাচটা খেলতে পারবেন না আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া, চোটের কারণে আগেই বাদ পড়ে গেছেন থিলো কেহরার ও লেভিন কুরজাওয়া। হয়তো চোটের কাছে হার মানতে হবে মার্কো ভেরাত্তিকেও। এমন অবস্থায় এমবাপ্পের ফেরার খবরটা একটু হলেও স্বস্তি দেবে পিএসজিকে।

তবে পিএসজির কোচ টমাস টুখেল নিজেও কয়েক দিন আগে স্বীকার করেছিলেন, এমবাপ্পেকে ফিরে পাওয়া যাবে খুব তাড়াতাড়ি, 'ম্যাচের আগে সময় অনেক কম। আমরা আমাদের ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলেছি এ বিষয়ে, শনিবারে আবারও দেখা করব আমরা এটা নিশ্চিত হওয়ার জন্য যে এমবাপ্পের চোটের কী অবস্থা। আতালান্তার বিপক্ষে ওকে অন্তত বেঞ্চে রাখা যাবে কি না। যদিও আমি অত বেশি আশাবাদী নই।'

এমবাপ্পের অনুশীলন করা না দেখে টুখেল আশাবাদী না হয়ে কোথায় যাবেন এবার!

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন