এসি মিলান না ইন্টার মিলান—শিরোপার সমীকরণ কী?

এসি মিলান না ইন্টার মিলান—আজ শিরোপা জিতবে কোন দল?ছবি : রয়টার্স

শুধু প্রিমিয়ার লিগের শিরোপাদৌড় নিয়েই যত আলোচনা! ইতালিয়ান ফুটবলের অনুরাগীদের তাতে কি একটু রাগ হচ্ছে? হতেই পারে। ইতালিতেও তো শিরোপার উল্লাস শেষ দিনে গড়িয়েছে, সেখানে লড়াইটা আবার দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী, দুই প্রতিবেশি এসি মিলান আর ইন্টার মিলানের। কিন্তু ইংল্যান্ডে লিভারপুল আর ম্যানচেস্টার সিটির লড়াইয়ের মধ্যে সেদিকে যেন সেভাবে নজরই পড়ছে না।

বাংলাদেশ সময় আজ রাত ১০টায় লিগে নিজেদের শেষ ম্যাচে নামবে ইন্টার মিলান ও এসি মিলান। দুই দলই এক মাঠ ব্যবহার করে বলে একই দিনে তো আর তাদের ‘হোম’ ম্যাচ খেলা সম্ভব নয়, শেষ দিনে ইন্টার সে সুবিধাটা পাচ্ছে। এসি মিলান যাচ্ছে সাসসুয়োলোর মাঠে, ইন্টার নিজেদের মাঠ সান সিরোতে খেলবে সাম্পদোরিয়ার বিপক্ষে।

দুই দলের মধ্যে পয়েন্টের ব্যবধান ২, শীর্ষে এসি মিলান। শেষ দিনে নাটকীয় কোনো টুইস্টে এসি মিলানের শিরোপা কেড়ে নিতে পারবে ইন্টার মিলান, জিতবে টানা দ্বিতীয় শিরোপা? সমীকরণ কী বলে, কার সম্ভাবনা কতটুকু?

মাঝে ৯ বছর জুভেন্টাসের একাধিপত্যের অবসান গত বছর ইন্টারের হাতেই হয়েছে। আন্তোনিও কন্তের হাত ধরে ২০১০ সালের পর প্রথম লিগ শিরোপা জিতেছে ইন্টার। তা গত বছর ইন্টারের ১১ বছরের অপেক্ষা ঘুচেছে, এবার এসি মিলানের ১১ বছরের অপেক্ষা ঘুচবে? জুভেন্টাসের একাধিপত্যের আগে ২০১১ সালে তো শিরোপা জিতেছিল এসি মিলানই।

এবার শুরু থেকেই লড়াইয়ে এগিয়ে থাকা এসি মিলান আজ শেষ দিনে নামছে ৩৭ ম্যাচে ৮৩ পয়েন্ট নিয়ে। দুইয়ে থাকা ইন্টারের পয়েন্ট ৩৭ ম্যাচে ৮১। এসি মিলানের জন্য তাই সমীকরণটা সহজ, সাসসুয়োলোর মাঠে জিতলেই শিরোপা। ইন্টার মিলানের দিকে তখন আর তাকাতে হবে না।

কিন্তু এসি মিলান না জিতলে? সে ক্ষেত্রেই আসবে সমীকরণের হিসাব-নিকাশ।

মিলানে সম্ভাব্য শেষ মৌসুমে শিরোপা উপহার দিয়ে যেতে পারবেন ইব্রাহিমোভিচ?
ছবি: এএফপি

মিলান ড্র করলে

যদি মিলান নিজেদের ম্যাচে ড্র করে আর সান সিরোতে ইন্টার জেতে, তাহলে দুই দলেরই পয়েন্ট সমান (৮৪) হবে। ইতালিয়ান লিগে পয়েন্টে সমতার ক্ষেত্রে ব্যবধান গড়ে দেয় মুখোমুখি লড়াইয়ের পর, সে হিসেবে ইন্টারের সঙ্গে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে থাকায় মিলান চ্যাম্পিয়ন হবে। গত নভেম্বরে এসি মিলানের ‘হোম’ ম্যাচ ১-১ গোলে ড্র হয়েছিল, এরপর ফেব্রুয়ারিতে ইন্টারের হোম ম্যাচে এসি মিলান জেতে ২-১ গোলে।

মিলান হারলে ও ইন্টার ড্র করলে

সে ক্ষেত্রে মিলানের পয়েন্ট ৮৩-ই থাকবে, কিন্তু ইন্টারের পয়েন্ট হবে ৮২। অর্থাৎ, মিলানই চ্যাম্পিয়ন হবে।

মিলানের হার, ইন্টারের জয়

টানা দ্বিতীয় শিরোপার স্বাদ পেতে শুধু এই একটা প্রার্থনাই করতে হবে ইন্টার সমর্থকদের। মুখোমুখি লড়াইয়ে পিছিয়ে থাকায় শুধু পয়েন্টে এগিয়ে থাকাই ইন্টারের একমাত্র পথ। এসি মিলান হেরে গেলে আর ইন্টার মিলান নিজেদের ম্যাচটা জিতলে সে ক্ষেত্রে এসি মিলানের পয়েন্ট ৮৩-ই থাকবে, কিন্তু ইন্টারের পয়েন্ট হয়ে যাবে ৮৪। অর্থাৎ, ইন্টার চ্যাম্পিয়ন হবে।