default-image

বিতর্ক যেন পিছুই ছাড়ছে না লিওনেল মেসির। করোনা বিরতির পর বার্সেলোনা তো লিগ শিরোপাটা রীতিমতো আত্মসমর্পণই করল রিয়াল মাদ্রিদের কাছে। মেসিও বিতর্কে জড়ালেন ক্লাব নিয়ে নানা মন্তব্য করে। তবে এবার তিনি বিতর্কে জড়িয়েছেন খেলার বাইরের ঘটনায়। নতুন করে করোনার এই সময় স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গ করার অভিযোগের আঙ্গুল উঠছে তাঁর দিকে।

করোনায় জেরবার হয়েছিল স্পেন। এখনো পর্যন্ত দেশটিতে ৩ লাখ ১৯ হাজারের বেশি মানুষ কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়েছিলেন। মৃতের সংখ্যা ২৮ হাজারেরও বেশি। এখন প্রকোপ অনেকটাই কমে এলেও স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্বের ব্যাপারে কড়াকড়ি আছে গোটা স্পেনজুড়েই। কাতালুনিয়ার কিছু জায়গায় (বার্সেলোনা ক্লাব যে প্রদেশে অবস্থিত) সম্প্রতি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আবারও শুরু হওয়ার পর স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্বের ব্যাপারে নতুন করে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। খুব প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে যেতেই নিষেধ করা হয়েছে। কিন্তু মেসি এর মধ্যেই স্ত্রী অ্যান্তোলিনা রোকুজ্জোকে সঙ্গে নিয়ে ইবিজা নামের এক জায়গায় বেড়াতে গিয়েছিলেন। সেখানে প্রমোদতরীতে বসে কিংবা জেট স্কি নিয়ে সমুদ্রে তাঁর ঘুরে বেড়ানোর ছবি প্রকাশিত হয়েছে স্পেনের বিভিন্ন গণমাধ্যমে। সমালোচনাও হচ্ছে। কেবল মেসিই নন স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব ভঙ্গের অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছেন তাঁর সতীর্থ লুইস সুয়ারেজও।

লা লিগা হাত ছাড়া হওয়ার যন্ত্রণা ভুলতেই কি মেসিদের এই প্রমোদ ভ্রমণ? আর কিছু দিন পরেই চ্যাম্পিয়নস লিগে নাপোলির বিপক্ষে ম্যাচ বার্সার। প্রথম পর্বে ঘরের মাঠেই বার্সেলোনাকে আটকে দিয়েছিল ইতালির ক্লাবটি। মেসি সে ম্যাচে ছিলেন নাপোলি কোচ জেনারো গাত্তুসোর রণকৌশলের কাছে বন্দী। আগামী ৮ আগস্ট ন্যু ক্যাম্পে এই ম্যাচের আগে খেলোয়াড়দের ফুরফুরে মেজাজে দেখতেই তাদের ছুটি দিয়েছে বার্সেলোনা ক্লাব কর্তৃপক্ষ।

চ্যাম্পিয়নস লিগের আগে লা লিগার শেষাংশে বার্সেলোনার পারফরম্যান্স বড় অস্বস্তিই সমর্থকদের জন্য। করোনায় খেলা বন্ধ হয়ে যাওয়ার আগে লিগ টেবিলের শীর্ষেই ছিল বার্সেলোনা। কিন্তু বিরতির পর দূরন্ত গতিতে পেছন থেকে এসে বার্সেলোনাকে ধরাশায়ী করে রিয়াল মাদ্রিদ। কোচ সেতিয়েনের প্রকাশ্য সমালোচনাই করেছেন মেসি। ঘরের মাঠে হারতে হয়েছে ওসাসুনার কাছে। দলে ব্যাপক পরিবর্তনের ডাকই দিয়েছেন তিনি।
লিগে দল শিরোপা জিততে না পারলেও শেষ অবধি পিচিচি ট্রফি জিতে ব্যক্তিগত সাফল্যের মুকুটে আরও একটি পালক যোগ করেছেন মেসি। এ নিয়ে সাতবার এই পিচিচি জিতলেন মেসি। মৌসুমে সবচেয়ে বেশি গোলে সহায়তারও রেকর্ডটাও এবার জাভির কাছ থেকে বেড়ে নিয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন