default-image

করোনাভাইরাস মহামারি আসার পর পাল্টে গেছে মানুষের ভাবনার জগৎ। এই ভাইরাস মোকাবিলায় ক্রীড়াজগতে চলছে নানাভাবে অর্থ সংগ্রহ। কেউ বেতনের টাকা থেকে দিচ্ছেন, কেউ আবার নিলামে তুলছেন খেলাধুলার সরঞ্জাম। কিন্তু এমন অদ্ভুত পরিকল্পনা বোধ হয় এই প্রথম!

সেটিও স্পেনের মতো মহামারিতে ভীষণ ক্ষতিগ্রস্ত দেশে। সেখানে এর মধ্যেই মৃতের সংখ্যা ২৮ হাজার ছাড়িয়েছে। সংক্রমিত প্রায় তিন লাখ। কিন্তু ভয়ংকর এ পরিস্থিতিকে পাত্তা দেননি ২৩ বছর বয়সী ক্রীড়াপ্রেমী এক যুবক। সংবাদমাধ্যমে তাঁর নাম এখন প্রকাশ হয়নি। ইএসপিএন জানিয়েছে, স্পেনের নাভারা অঞ্চলে কোভিড-১৯–এ ‘সংক্রমিত বনাম অসংক্রমিত’ প্রদর্শনী ফুটবল ম্যাচ আয়োজনের পরিকল্পনা করেছিলেন তিনি। পুলিশ তাঁকে চিহ্নিত করেছে।

প্যাম্পলোনা শহরের মেন্দিল্লোরিতে এ ম্যাচ থেকে প্রাপ্ত অর্থ তুলে করোনার বিপক্ষে যুদ্ধে দান করার পরিকল্পনা করেন তিনি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে ‘মেন্দিল্লোরি কিকবাউট’ নামে ম্যাচটি আয়োজনের পরিকল্পনা করেন সেই যুবক। কাল এ ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ম্যাচের প্রচারের খবর নাভারা পুলিশের কান পর্যন্ত পৌঁছায়। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম এএস জানিয়েছে, পুলিশ তাঁকে চিহ্নিত করে ভীষণ তিরস্কার করেছে।

করোনায় যাঁরা আক্রান্ত হননি এবং এ ভাইরাসে এর আগে আক্রান্ত হয়েছেন, এমন দুটি দলে ভাগ হয়ে ম্যাচটা খেলার পরিকল্পনা হয়েছিল। খেলায় অংশ নিতে ইচ্ছুক এবং যাঁরা দেখতে চান, তাঁদের ইনস্টাগ্রামে যোগাযোগ করতে বলা হয়। নাভারা অঞ্চলে নাগরিক আইনের ৩৪ নম্বর ধারা ভাঙার দায়ে অভিযুক্তকে এখন তিন হাজার ইউরো জরিমানা দিতে হবে।

স্পেনে করোনা মহামারিতে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত জায়গাগুলোর একটি মেন্দিল্লোরি। স্থানীয় পুলিশ সে অঞ্চলের অধিবাসীদের উদ্দেশে বলেছে, ‘বোধবুদ্ধি প্রয়োগ করুন। এ ধরনের আয়োজন কিংবা জনসমাবেশ এড়িয়ে চলুন, যেখানে সামাজিক দূরত্বের নিশ্চয়তা নেই।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন