default-image

গতকাল রাতে বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের যৌথ বাছাইয়ে কাতারের বিপক্ষে ৫-০ গোলে হেরেছে বাংলাদেশ। এত বড় ব্যবধানের হারও বোধ হয় দোহায় স্বাগতিকদের বিপক্ষে জামাল ভূঁইয়াদের অসহায়ত্ব বোঝাতে পারছে না। কাতারের গোল পোস্টে একটি শটও নিতে পারেনি দল। এশিয়ান চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে এই ম্যাচে বাংলাদেশের ফুটবলের সামগ্রিক চিত্রটাই যেন ফুটে উঠেছে। তবে সে চিত্র হয়তো বাফুফে সভাপতির নজরে পড়েনি। খেলাটি যে দেখা হয়নি বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনের।

আজ বিকেলে বাফুফে ভবনে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে খেলা না দেখার বিষয়টি নিজেই জানিয়েছেন কাজী সালাউদ্দিন। তবে খেলা না দেখলেও কিছুক্ষণ পর পর ম্যাচের স্কোর লাইন জেনেছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
আমার ইচ্ছে থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়ার সঙ্গে ম্যাচ খেলা। তিনটি ম্যাচের জন্য আমাদের ৬ কোটি টাকার প্রয়োজন।
কাজী সালাউদ্দিন, বাফুফে সভাপতি

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে কাতার-বাংলাদেশ প্রসঙ্গ উঠলে বাফুফে সভাপতি বলেন, ‘সত্যি কথা কি, আমি ম্যাচ দেখেনি। ধারাভাষ্য শুনেছি। ১৫ মিনিট পর পর খেলার তথ্য নিয়েছি। আসলে বাংলাদেশ খেললে আমি নিতে (চাপ) পারি না। আমার শরীরটাও ভালো ছিল না।’ করোনায় আক্রাক্ত হওয়ার পর আজই প্রথম বাফুফে ভবনে এসেছিলেন তিনি।

কাতারের বিপক্ষে বাংলাদেশের ফলাফল নিয়ে বাফুফে সভাপতির মূল্যায়ন, ‘আমরা এক মাস আগে খেলা শুরু করেছি। আমরা সবাই জানি কাতার এশিয়ার এক নম্বর দল। তারা নিয়মের মধ্যে থেকে বিদেশি ফুটবলারদের নিয়ে দল গঠন করেছে। তারা ফুটবলে পুরোপুরি মনোযোগ দিয়েছে। শেষ আড়াই বছরে তারা ১৭০ কোটি ডলার খরচ করেছে। আমরা নেপালের সঙ্গে ম্যাচ খেলে কাতারে গিয়েছি। ওরা খেলেছে দক্ষিণ কোরিয়া, কোস্টারিকা ও ঘানার সঙ্গে। আমার কাছে সবচেয়ে বড় বিষয় হলো, এত আপদ-বিপদের মধ্যেও আমরা ফুটবলটা শুরু করেছি। গোল আরও কম হলে ভালো হতো।’

default-image

বাছাইপর্বে এখনো আরও তিন ম্যাচ বাকি আছে বাংলাদেশের। ম্যাচগুলোর আগে এক মাসের প্রস্তুতি ও বিদেশি দলগুলোর সঙ্গে ম্যাচ খেলার প্রত্যাশার কথা জানিয়েছেন কাজী সালাউদ্দিন, ‘আমাদের আরও তিনটি ম্যাচ আছে ভারত, আফগানিস্তান ও ওমানের সঙ্গে। ক্লাবগুলোর সঙ্গে বসব। প্রতি ম্যাচের জন্য এক মাসের সময় চাই। কারণ প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে হবে। আমার ইচ্ছে থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়ার সঙ্গে ম্যাচ খেলা। তিনটি ম্যাচের জন্য আমাদের ৬ কোটি টাকার প্রয়োজন।’

বাছাইপর্বের বাকি তিন ম্যাচের দিনক্ষণ এখনো চূড়ান্ত হয়নি। তবে ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে মার্চ ও জুনে। এখন পর্যন্ত গ্রুপ ‘ই’তে পাঁচ ম্যাচ খেলে ভারতের বিপক্ষে এক ড্রয়ে ১ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের তলানিতে বাংলাদেশের অবস্থান। ৬ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে সবার শীর্ষে কাতার।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন