আর্জেন্টিনা দলে পরিবর্তন আসছে দুটি।
আর্জেন্টিনা দলে পরিবর্তন আসছে দুটি। ছবি : রয়টার্স

আগের ম্যাচে হোঁচট খেয়েছে আর্জেন্টিনা। ২০২২ বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে ঘরের মাঠে লিওনেল মেসিরা ড্র করেছেন প্যারাগুয়ের সঙ্গে। বাংলাদেশ সময় আগামীকাল সকালে লিমায় পেরুর বিপক্ষে ম্যাচটা তাই জয়ের ধারায় ফেরার বেশ ভালো উপলক্ষ দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের জন্য। তবে পেরুকে সহজ প্রতিপক্ষ বলার উপায় নেই মোটেও। ২০১৯ সালে কোপা আমেরিকার সর্বশেষ আসরে ফাইনালে উঠেছিল দলটি। পেরুভিয়ানদের কোচের দায়িত্বে আছেন আর্জেন্টিনারই সন্তান রিকার্দো গারেকা।

পেরুর বিপক্ষে কে কে নামবেন আর্জেন্টিনার হয়ে? লিওনেল মেসির চোটের অবস্থা কেমন এখন? ম্যাচের আগের ভার্চ্যুয়াল সংবাদ সম্মেলনে মোটামুটি সব প্রশ্নের উত্তরই দিয়েছেন আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি। পেরুর বিপক্ষে ম্যাচটা যে সহজ হবে না, সেটা স্কালোনি বেশ ভালোই বোঝেন। পেরুর বেশ কিছু খেলোয়াড় আছেন, যাঁরা আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে পছন্দ করেন। দলে আছেন জিয়ানলুকা লাপাদুলা, আন্দ্রে কারিয়ো, রেনাতো তাপিয়া, ইয়োশিমার ইয়োতুন, ক্রিস্তিয়ান কেভা, মিগুয়েল ত্রকো, লুইস আদভিঙ্কুলার মতো বেশ কয়েকজন কার্যকর খেলোয়াড়।

বিজ্ঞাপন

গারেকার অধীনে নিজেদের দিনে তাঁরা যে বেশ ভালোই জ্বলে উঠতে পারেন, সেটা জানেন স্কালোনি। আর ম্যাচটা হবেও পেরুর মাঠে, রাজধানী লিমায়। সব মিলিয়ে স্কালোনি তাই একটু সতর্ক, ‘আমার মনে হয় পেরু সুন্দর ফুটবল খেলতে পছন্দ করে। তাদের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় আছে, যারা বল পায়ে অনেক দক্ষ। তারাও আক্রমণের চিন্তা নিয়েই মাঠে নামবে। ফলে আমরাও আক্রমণ করার জন্য জায়গা পাব সামনে।’

default-image

সতর্ক হলেও ম্যাচের আগে নিজেদের মূল একাদশ ঠিকই ফাঁস করে দিয়েছেন। জানিয়ে দিয়েছেন, প্যারাগুয়ের বিপক্ষে মূল একাদশে যে ১১ জন খেলেছিলেন, তাঁদের মধ্যে নয়জন থাকছেন পেরু ম্যাচের একাদশেও। বাদ পড়বেন সেভিয়ার উইঙ্গার লুকাস ওকাম্পোস ও বায়ার লেভারকুসেনের মিডফিল্ডার এজেকিয়েল পালাসিওস।

পালাসিওসকে বাদ না দিয়ে অবশ্য উপায়ও ছিল না। গত ম্যাচে প্যারাগুয়ের স্ট্রাইকার আনহেল রোমেরোর এক কড়া চ্যালেঞ্জের শিকার হয়ে সোজা হাসপাতালে চলে গেছেন এই তরুণ মিডফিল্ডার। পালাসিওসের জায়গায় টটেনহামের জিওভানি লো সেলসোকে প্রথম থেকেই খেলাবেন স্কালোনি। লেফট উইঙ্গার ওকাম্পোসের জায়গায় ওদিকে দলে ঢুকবেন আয়াক্সের লেফটব্যাক নিকোলাস তাগলিয়াফিকো।

তাগলিয়াফিকো মূল একাদশেরই খেলোয়াড়। চোটের কারণে আগের ম্যাচটা খেলতে পারেননি দেখে স্কালোনি দলের ছকটাই ৪-৩-৩ থেকে বদলে ৩-৪-৩ করে ফেলেছিলেন। লেফট উইংব্যাক হিসেবে খেলেছিলেন জার্মান ক্লাব ভিএফবি স্টুটগার্টের হয়ে লেফট উইংয়ে খেলা নিকোলাস গঞ্জালেজ। তবে আগের ম্যাচে সমতাসূচক গোল করে কোচের আস্থা জয় করে নিয়েছেন গঞ্জালেজ। গঞ্জালেজ এই ম্যাচেও ঠিকই খেলবেন, তবে আগের ম্যাচের মতো উইংব্যাক হিসেবে নয়, ৪-৩-৩ ছকে নিজের স্বাভাবিক পজিশন উইঙ্গার হিসেবে।

বিজ্ঞাপন
default-image

ফলে গত ম্যাচে লেফট উইংয়ে খেলা সেভিয়ার ওকাম্পোস জায়গা হারাচ্ছেন। গঞ্জালেজের ওপর স্কালোনির আস্থার কথা বোঝা গেছে তাঁর কথাতেই, ‘আমার মনে হয়েছে, নিকো গঞ্জালেজ বেশ ভালো একটা ম্যাচ খেলেছে ওদিন। ওর সামর্থ্য নিয়ে আমার কখনোই কোনো সন্দেহ ছিল না। ও বেশ ভালো ফর্মে আছে। আমার মনে হয় পেরুর বিপক্ষে ও আমাদের বেশ গুরুত্বপূর্ণ একজন খেলোয়াড় হতে পারবে।’

বাকি দল একই থাকছে। গোলবারের নিচে রিভার প্লেটের ফ্রাঙ্কো আরমানি, রক্ষণভাগে বেনফিকার নিকোলাস ওতামেন্দি ও ফিওরেন্তিনার লুকাস মার্তিনেজ কার্তা। দুপাশে রিভার প্লেটের গঞ্জালো মন্তিয়েল ও আয়াক্সের নিকোলাস তাগলিয়াফিকো। মিডফিল্ডে লো সেলসোর সঙ্গে খেলবেন উদিনেসের রদ্রিগো দি পল ও পিএসজির লিয়ান্দ্রো পারেদেস। ওদিকে আক্রমণভাগে দলের অধিনায়ক লিওনেল মেসির সঙ্গে থাকবেন ইন্টার মিলানের লাওতারো মার্তিনেজ ও নিকোলাস গঞ্জালেজ।

মন্তব্য পড়ুন 0