কিরগিজস্তানে জামালের জয়

বিজ্ঞাপন
default-image

সামর্থ্য অনুযায়ী খেলার কথা বলেছিলেন শেখ জামালের কোচ যোসেফ আপুসি। বলেছিলেন, সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারলে এএফসি কাপের প্লে অফের দুটো ম্যাচে জয় পাওয়াটা কোনো সমস্যা নয়। আজ ম্যাকাওয়ের সিএএসএ বেনফিকার বিপক্ষে সামর্থ্যের পুরোটা ঢেলে দিয়েই ৪-১ গোলের দুর্দান্ত এক জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশের চ্যাম্পিয়ন ক্লাবটি।
কিরগিজস্তানের রাজধানী বিশকেকের দোলেন ওমুরজাকভ স্টেডিয়ামে শুরু থেকেই গোছানো ফুটবল খেলে প্রতিপক্ষের ওপর আধিপত্য বজায় রেখেছিল শেখ জামাল। কিন্তু ২৬ মিনিটে সিএএসএ ১-০ গোলে এগিয়ে যায় সিএএসএর নিকোলাস মারিও তারাওয়ের গোলে।
গোল খেয়ে কিছুটা থমকে গেলেও নিজেদের গুছিয়ে নিয়ে প্রতিপক্ষের ওপর আবারও ঝাঁপিয়ে পড়ে মামুনুল ইসলামের দল। ম্যাচের ৪৪ মিনিটে নিজেদের ভালো ফুটবলের ফল হাতেহাতেই পেয়ে যায় ম্যাচে সমতা ফিরিয়ে। গোলটি করেন নাইজেরিয়ান রিক্রুট এমেকা আনুহা।
দ্বিতীয়ার্ধে নতুন উদ্যমেই জয়ের লক্ষ্য তাড়া করা শুরু করে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপাধারীরা। তবে নিজেদের দ্বিতীয় গোলটি পেতে ৭২ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয় ঢাকার ধানমন্ডির ক্লাবটিকে। ৭২ মিনিটে দলকে ২-১ গোলে এগিয়ে দেন অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম। ৭৭ মিনিটে দলের তৃতীয় গোলটি করেন সাখাওয়াৎ রনি।
সাখাওয়াৎ রনি ম্যাচের ৮৬ মিনিটের সময় পেয়ে যান তাঁর দ্বিতীয় গোলটি। তাঁর গোলেই ৪-১ গোলের বড় জয় নিশ্চিত করে শেখ জামাল।
জামালের পরের প্রতিপক্ষ কিরগিজস্তানের এফসি আলগা। সূত্র: এএফসি ওয়েবসাইট।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন