default-image

প্রতিটি কোপা আমেরিকা আসরেই ‘আমন্ত্রিত’ দল খেলে থাকে। লাতিন ফুটবল সংস্থা এতে দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলোর বাইরে থেকে কোনো একটা বা দুটি দেশকে আমন্ত্রণ জানিয়ে থাকে। টুর্নামেন্টের জৌলুশ বাড়াতে বা এটিকে আরও বড় বাজারে ছড়িয়ে দিতেই এটি করে তারা। এবারের কোপায় খেলার কথা ছিল ২০২২ বিশ্বকাপের আয়োজক কাতার ও এশিয়ান কাপজয়ী অস্ট্রেলিয়ার।

এ বছরের জুনে কোপা যখন আয়োজিত হবে, তখন বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের এশিয়া অঞ্চলের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। করোনার কারণে গত বছর স্থগিত হয়ে যাওয়া ম্যাচগুলোই খেলবে এশিয়ার দেশগুলো। কাতার ও অস্ট্রেলিয়া সে কারণেই কোপা আমেরিকা থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আর এতেই কপাল খুলে যাচ্ছিল ভারতের।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়ার ফুটবল ফেডারেশন নিজেরাই কনমেবলের (লাতিন ফুটবল সংস্থা) কাছে নিজেদের বিকল্প হিসেবে ভারতের নাম প্রস্তাব করেছে। এটি নিশ্চিত করেছেন সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের (আইএফএ) সাধারণ সম্পাদক কুশল দাস, ‘কোপা আমেরিকায় এশিয়া থেকে এবার দুটি দেশের খেলার কথা ছিল, অস্ট্রেলিয়া ও কাতার। তারা খেলতে পারবে না বিভিন্ন কারণে। অস্ট্রেলিয়া কনমেবলের সঙ্গে কথা বলে ভারতের প্রসঙ্গ তুলেছে। কনমেবলও ভারতের সম্ভাব্য অংশগ্রহণের কথা ভেবে অনেক খুশি। তারা চায় আমরা যেন কোপা আমেরিকা খেলি।’

বিজ্ঞাপন
default-image

কিন্তু যে কারণে অস্ট্রেলিয়া ও কাতার কোপায় খেলতে পারছে না, সেই বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচ আছে ভারতেরও। আর সে কারণেই এত বড় সুযোগ পেয়েও তা হারানোর শঙ্কায় আছে ভারত। জুনেই বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের সঙ্গে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচ খেলতে হবে তাদের। এই দুটি ম্যাচই এখন স্বপ্ন পূরণের পথে ভারতের বাধা বলে টাইমস অব ইন্ডিয়াকে জানিয়েছেন কুশল, ‘সময়সূচি নিয়ে ঝামেলা হচ্ছে অনেক। কোপা আমেরিকাও জুনেই আয়োজিত হবে। তখনকার বাছাইপর্বের ম্যাচগুলো মার্চ-এপ্রিলে খেলা যায় কি না, এ নিয়ে আমরা চেষ্টা করেছি, কিন্তু বাংলাদেশ-আফগানিস্তান সে প্রস্তাবে রাজি হয়নি।’

তবে শুধু সময়সূচি মিলছে না বলে এই সুযোগ কি হারানো যায়? ভারতও সেটি হারাতে চাচ্ছে না। তারা চাচ্ছে দুটি জাতীয় দল গঠন করে একটিকে কোপায় পাঠাতে, মেসিদের সঙ্গে খেলার জন্য। যে দলটায় খেলবেন তরুণেরা, ‘মার্চ বা এপ্রিলে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচগুলো হলে ভালো হতো। কিন্তু কিছু করার নেই। তাই আমরা চাচ্ছি এই টুর্নামেন্টে তরুণদের সুযোগ দেওয়ার জন্য। ওদের উন্নতির জন্য অনেক সহায়ক হবে ব্যাপারটা। আর আগামী টুর্নামেন্টের জন্য আমন্ত্রণ পেলে তখন তো সিনিয়রদের পাঠাবই।’

default-image

তবে এবার এত বড় সুযোগ পেয়েও সিনিয়রদের কোপায় নিয়ে না যেতে পেরে বেশ হতাশ ভারতের কোচ আইগর স্টিমাচ, ‘বেশ বড় একটা সুযোগ এসেছিল আমাদের সামনে। এমন একটা প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পেয়ে আমরাও বেশ রোমাঞ্চিত ছিলাম। আশা করি, এবার না হোক, পরেরবার সুযোগ পাবই!’

কোপা আমেরিকার গ্রুপ 'এ' তে আর্জেন্টিনা, বলিভিয়া, উরুগুয়ে, চিলি ও প্যারাগুয়ের সঙ্গে রাখা হয়েছিল অস্ট্রেলিয়াকে। ওদিকে ব্রাজিল, কলম্বিয়া, ভেনেজুয়েলা, ইকুয়েডর ও পেরুর সঙ্গে গ্রুপ 'বি' তে খেলার কথা ছিল কাতারের।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন