বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

তবে বরখাস্ত করলেও সেটি এখনই নয়, আগামী অক্টোবরে আন্তর্জাতিক বিরতির সময়ে করতে পারে বার্সা। তাঁর বিকল্প হিসেবে ঠেকায় চালানো কোচকে আনবে না বার্সা, একেবারে চূড়ান্তভাবে দীর্ঘ মেয়াদে কাউকে নিয়োগ দেবে বলে শোনা যাচ্ছে।

সে ক্ষেত্রে গুঞ্জনে সবচেয়ে বেশি আসছে বেলজিয়াম জাতীয় দলে হ্যাজার্ড-ডি ব্রুইনাদের কোচ রবের্তো মার্তিনেজের নাম।

default-image

মাঠের বাইরে বার্সেলোনার সময়টা জঘন্য কাটছে। দেনার দায়ে জর্জরিত কাতালান ক্লাবটি। মূল স্পনসর রাকুটেনের সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়ে আসছে, কিন্তু কেউ বড় অঙ্কের বিনিয়োগ করে ক্লাবটার নতুন স্পনসর হওয়ার আগ্রহ এখনো দেখাচ্ছে না। চাইবেই–বা কেন! লিওনেল মেসি চলে গেছেন, এরপর আঁতোয়ান গ্রিজমানও গেছেন।

দর্শক টানার মতো বার্সার বড় তারকা কোথায়! শেষ পর্যন্ত স্পনসর পেলেও সে ক্ষেত্রে বার্সাকে বাজার মূল্যের চেয়ে কম অঙ্কেই রাজি হয়েই চুক্তিটা করতে হতে পারে, এমন শঙ্কার কথা জানিয়েছেন ইএসপিএনের স্প্যানিশ ফুটবল বিশেষজ্ঞ ও লা লিগার ধারাভাষ্যকার গ্রাহাম হান্টার।

মাঠেও সময়টা ভালো কাটছে না বার্সার। লিগে ৪ ম্যাচ শেষে ৮ পয়েন্ট হয়তো অতটা খারাপ মনে হবে না, কিন্তু চ্যাম্পিয়নস লিগে বার্সা কদিন আগে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ৩-০ গোলে হেরেছে নিজেদেরই মাঠে।

তার চেয়েও যেটি চোখে লেগেছে তা হলো, বায়ার্নের বিপক্ষে সেদিন বার্সা ইউরোপের কোনো বড় শক্তির মতো মাথা উঁচু করে খেলেনি, খেলেছে যেন কোনো দ্বিতীয়-তৃতীয় সারির ক্লাবের মতো। গতকাল লিগে গ্রানাদার বিপক্ষে ম্যাচেও বার্সার খেলাকে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম বলছে, স্মরণকালে সবচেয়ে জঘন্য।

default-image

এমন অবস্থায় মাঠের বাইরের চিত্রটা তো আর চাইলেই বদলে ফেলা সম্ভব নয়। মাঠের ভেতরের চিত্রটা অন্তত বদলানোর কথা ভাবছে বার্সেলোনা, এমনটাই জানাচ্ছে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম। কোচ কোমানকে বরখাস্ত করার কথা ভাবছে বার্সা।

এখনই কেন কোমানকে বরখাস্ত করবে না বার্সা, সেটির ব্যাখ্যায় এএস ও গোলডটকম জানাচ্ছে, সামনে বার্সার বেশ কয়েকটি ম্যাচ আছে। আগামী রোববার লেভান্তের বিপক্ষে ম্যাচ, তারপর চ্যাম্পিয়নস লিগে বেনফিকার বিপক্ষে ম্যাচের পর লিগে আবার ম্যাচ আতলেতিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে।

এই অবস্থায় হঠাৎ করে কোচ বদলাতে চাইছে না বার্সা। পাশাপাশি কোমানকে বরখাস্ত করতে গেলে ‘ক্ষতিপূরণ’ হিসেবে ১ কোটি ২০ লাখ ইউরো দিতে হবে, আর্থিকভাবে নড়বড়ে বার্সা সেই অঙ্কটাও জোগাড় করার চেষ্টা করছে। বার্সায় কোমানের বর্তমান চুক্তি ২০২২ সালের জুন পর্যন্ত।

সে কারণে এর পরের আন্তর্জাতিক বিরতি পর্যন্ত অপেক্ষা করবে বার্সা, গুঞ্জন এমনই। এর পরের আন্তর্জাতিক বিরতি আসবে অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি সময়ে। এই সময়ের মধ্যে আগামী কয়েকটি ম্যাচে বার্সা দারুণ কিছু না করলে কোমানের বার্সা থেকে বিদায়ই লেখা সমাপ্তিতে।

তা কোমানের বদলি হয়ে কে আসবেন বার্সায়? কাতালান ক্লাবটির কোচসংক্রান্ত আলোচনা মানেই তো গত দুই মৌসুমে জাভি হার্নান্দেজকে নিয়ে মাতামাতি। কিন্তু বার্সার কিংবদন্তি মিডফিল্ডার মাস তিনেক আগে কাতারের ক্লাব আল-সাদের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করেছেন। তাঁর চুক্তিতে বার্সাসংক্রান্ত কোনো শর্ত না থাকলে বার্সার পক্ষে সম্ভব হবে না আল-সাদকে ক্ষতিপূরণ দিয়ে জাভিকে নিয়ে আসা। তার ওপর যেখানে কোমানকেও বরখাস্ত করার সময়ে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

default-image

বেলজিয়াম কোচ রবের্তো মার্তিনেজের নামও বার্সার কোচের পছন্দের তালিকায় সব সময় শোনা যায়। কাতালুনিয়ার মানুষ তিনি, তাঁর খেলার ধরন বার্সার সঙ্গে যায়, কোচিংয়ে হাতেখড়ির সময়ে বার্সেলোনায় অনেকবার এসে শেখার চেষ্টা করেছেন মার্তিনেজ...এসব কারণে বার্সার কোচ হিসেবে তাঁর নাম সম্ভাব্য পছন্দের তালিকায় সব সময়ই থাকে, এবার সম্ভবত সবার ওপরেই থাকছে।

এ ছাড়া গত মৌসুমে জুভেন্টাসের কোচ থাকা আন্দ্রেয়া পিরলো, গত মৌসুমে ইন্টার মিলানকে লিগ জেতানো আন্তোনিও কন্তে এবং গত মৌসুম পর্যন্ত বার্সেলোনার ‘বি’ দলের কোচ গার্সিয়া পিমিয়েন্তার নামও শোনা যায়।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন