ইউরোপ শ্রেষ্ঠত্বের প্রতিযোগিতায় এখন পর্যন্ত ছয়টি মুকুট জিতেছে লিভারপুল। যার সর্বশেষটি এসেছে ২০১৮–১৯ মৌসুমে, ক্লপেরই হাত ধরে।
ইউরোপ শ্রেষ্ঠত্বের প্রতিযোগিতায় এখন পর্যন্ত ছয়টি মুকুট জিতেছে লিভারপুল। যার সর্বশেষটি এসেছে ২০১৮–১৯ মৌসুমে, ক্লপেরই হাত ধরে। ছবি : রয়টার্স

শিরোপা ধরে রাখা দূরে থাক, শীর্ষ চারে থেকে লিগ শেষ করাই এখন বড় চ্যালেঞ্জ লিভারপুলের জন্য। এই মুহূর্তে ২৮ ম্যাচে ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার অষ্টম স্থানে আছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। শীর্ষে থাকা সিটির পয়েন্ট ৩০ ম্যাচে ৭১। ২৯ ম্যাচে ৫১ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থান আছে চেলসি। অবস্থা যখন এই, চলতি মৌসুমে আর কী চাওয়া–পাওয়া থাকতে পারে লিভারপুলের জার্মান কোচের? ‘সপ্তম স্বর্গ’—আপাতত এটাতেই চোখ ক্লপের!

প্রিমিয়ার লিগে বাজে সময় কাটলেও চ্যাম্পিয়নস লিগে তার প্রভাব পড়তে দেননি ক্লপ। ইউরোপের শীর্ষ প্রতিযোগিতার গ্রুপ পর্বে ৬ ম্যাচের চারটিতেই জিতেছে লিভারপুল। ১৩ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে উঠেছে নকআউট পর্বে। শেষ ষোলোতেও দাপট দেখিয়েছে ‘অল রেড’রা। দুই লেগ মিলিয়ে লাইপজিগকে ৪–০ ব্যবধানে পেছনে ফেলে উঠেছে শেষ আটে। ক্লপের চোখেও এখন শুধুই চ্যাম্পিয়নস লিগের স্বপ্ন।

বিজ্ঞাপন

সেই স্বপ্ন দেখা থেকেই লিভারপুলকে সপ্তম স্বর্গে নিয়ে যাওয়ার কথা বলেছেন ক্লপ। স্বপ্তম স্বর্গ কীভাবে? ইউরোপ শ্রেষ্ঠত্বের প্রতিযোগিতায় এখন পর্যন্ত ছয়টি মুকুট জিতেছে লিভারপুল। যার সর্বশেষটি এসেছে ২০১৮–১৯ মৌসুমে, ক্লপেরই হাত ধরে। চ্যাম্পিয়নস লিগের আরেকটি শিরোপা লিভারপুলকে এনে দিয়ে মৌসুমটা দুর্দান্তভাবে শেষ করতে চান ক্লপ। লিভারপুলকে জেতাতে চান ইউরোপের সর্বোচ্চ প্রতিযোগিতার সপ্তম শিরোপা।

default-image

প্রিমিয়ার লিগে আগামীকাল উলভারহ্যাম্পটনের বিপক্ষে খেলবে লিভারপুল। সেই ম্যাচের সংবাদ সম্মেলনেই নিজের স্বপ্নের কথা বলেছেন ক্লপ, ‘চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়? অবশ্যই এটা একটি স্বপ্ন। তবে এই মুহূর্তে এটা নিয়ে ভাবার মতো অবস্থায় আমরা নেই। লাইপজিগকে হারাতে পেরে আমরা সত্যি খুব খুশি। আমরা খুশি কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে পেরে।’ ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় যে ক্লপের লিভারপুলের খুব ভালো সময় কাটছে সেটা সবাইকে তিনি মনে করিয়ে দিলেন এভাবে, ‘জেমস মিলনার আমাকে বলেছে আমি এখানে আসার পর এটা আমাদের চতুর্থ কোয়ার্টার ফাইনাল।’

স্বপ্ন দেখলেও সতর্ক ক্লপ। তাই তো আবার সবাইকে মনে করিয়ে দিয়েছেন, ‘এখনই বলা যায় না যে আমরা রূপকথা রচনা করতে পারব। আমরা যা ভাবি, আমরা যে স্বপ্ন দেখি; অনেক সময়ই বাস্তবে সেটা হয় না। আর চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনাল ঐতিহাসিকভাবেই একটু কঠিন। বাকি সাতটি দলও খুব ভালো হবে। এখনো কোয়ার্টার ফাইনালের সব দল চূড়ান্ত হয়নি। আগে সব দল চূড়ান্ত হোক, তারপর দেখা যাবে কে কেমন।’

কোয়ার্টার ফাইনাল কতটা কঠিন হতে পারে, সেই বিষয়ে ক্লপ বলেছেন, ‘এই পর্বে কোনো ম্যাচই সহজ নয়। তবে পরের রাউন্ড শুরু হতে আরও তিন বা চার সপ্তাহ বাকি। এর আগে আমরা অনেক সময় পাচ্ছি। এই সময়টাকে যত ভালোভাবে কাজে লাগানো যায়, আমরা সেই চেষ্টাই করব।’

বিজ্ঞাপন

ইউরোপ শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট সবচেয়ে বেশি পরেছে রিয়াল মাদ্রিদ। এই প্রতিযোগিতায় এখন পর্যন্ত ১৩ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মাদ্রিদের দলটি। প্রতিযোগিতার প্রথম পাঁচটি আসরের শিরোপাই জিতেছে তারা। এ ছাড়া ২০১৩–১৪ থেকে ২০১৭–১৮; এই ৫ মৌসুমের মধ্যে চারবারই সেরার মুকুটও রিয়ালের। চ্যাম্পিয়নস লিগে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সাতটি শিরোপা এসি মিলানের। তবে মিলানের সর্বশেষ জেতা শিরোপাটায় ধুলা জমতে শুরু করেছে অনেক আগেই। ইতালির ক্লাবটি স্বপ্তম স্বর্গে উঠেছে যে সেই ২০০৭ সালে! ৬টি করে শিরোপা জিতে মিলানের পরই অবস্থান লিভারপুল ও বায়ার্ন মিউনিখের।

এবার কি সত্যি লিভারপুল পারবে বায়ার্নকে ছাড়িয়ে সপ্তম স্বর্গে উঠে মিলানকে ছুঁতে! সত্যি হবে ক্লপের স্বপ্ন?

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন