দারুণ খেলে জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ কাল।
দারুণ খেলে জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ কাল।ছবি: রয়টার্স

এক ম্যাচে চার গোল কীভাবে করতে হয়, ভুলেই যেন গিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। শুধু তা–ই নয়, গত তিন ম্যাচের হিসাব করলে বলতে হয় জিততেও ভুলে গিয়েছিল তারা। এক ম্যাচ দিয়েই ভুলে যাওয়া সব স্বাদ পেল রিয়াল মাদ্রিদ। গত রাতে আলাভেসের মাঠে লিগ ম্যাচ খেলতে যাওয়া রিয়াল মাদ্রিদ ১৮ ম্যাচ পর পেয়েছে চার গোল করার স্বাদ। ফলে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে তিন ম্যাচ জয়হীন থাকা ক্লাবটা জয়ের সুবাসও পেয়েছে আবার।

জয়ের পেছনে সবচেয়ে বড় অবদান, নিঃসন্দেহে করিম বেনজেমার। দুটি গোলই করেছেন এই ফরাসি স্ট্রাইকার। বাকি দুটি গোল করেছেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার কাসেমিরো ও বেলজিয়ান উইঙ্গার এদেন হ্যাজার্ড। এই মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ১৫ গোল করা হয়ে গেল এই বর্ষীয়ান স্ট্রাইকারের। কাসেমিরোও পেয়েছেন মৌসুমে নিজের পঞ্চম গোল। ওদিকে হ্যাজার্ডও গোল করে আক্ষেপ ভুলিয়েছেন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন মূল কোচ জিনেদিন জিদান। ফলে স্বাভাবিকভাবেই গত রাতে ডাগআউটে দেখা যায়নি তাঁকে। তাঁর জায়গায় ছিলেন সহকারী কোচ দাভিদ বেত্তোনি। সশরীরে না থাকলেও বাড়িতে বসে ঠিকই ম্যাচ দেখেছেন জিদান। জানিয়েছেন নিজের প্রতিক্রিয়া। বেত্তোনি জানিয়েছেন সে কথা, ‘জিদান আমাকে ফোন করেছিলেন। জানিয়েছেন, খেলোয়াড়দের মানসিকতা দেখে তিনি মুগ্ধ।’

default-image
বিজ্ঞাপন

এদিকে গোল করার পাশাপাশি এক গোলে সহায়তাও করেছেন হ্যাজার্ড। প্রায় গোটা মৌসুম ধরে চোটে চোটে জর্জরিত থাকা এই খেলোয়াড় নিঃসন্দেহে এমন পারফরম্যান্সে সাহস ফিরে পাবেন, এমনটাই মনে করেছেন বেত্তোনি, ‘এদেন এখন বেশ ভালো আছে। বিভিন্ন চোটের কারণে ও বেশ হতাশার এক মৌসুম কাটাচ্ছে। কিন্তু আপনাকে ধৈর্য ধরতে হবে। তবে এটাও সত্যি, রিয়ালের মতো ক্লাবে ধৈর্য ধরা বেশ কঠিন একটা জিনিস। তবে এদেন ফর্মে ফিরছে, আজ সে একটা গোল করেছে, একটা করিয়েছে। আশা করি প্রতি ম্যাচেই তার আরও ভালো সংস্করণ দেখা যাবে।’

এদিকে এভাবে হেসেখেলে ম্যাচ জিতে আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছেন বেনজেমাও। জানিয়েছেন, লিগ জয়ের জন্য পরিশ্রম করে যাওয়ার কথা, ‘মৌসুমের এখনো অনেক বাকি। আমাদের জন্য ম্যাচটা অনেক ভালো ছিল। আমাদের আত্মবিশ্বাস জুগিয়েছে। আমাদের পরিশ্রম করে যেতে হবে।’

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন