বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

এমবাপ্পেকে দেখে পাস দিলেন মেসি। তবে নিজে গোল না করে দুর্দান্ত এক ব্যাকহিলে মেসিকে আবার সেই পাস ফেরত পাঠালেন এমবাপ্পে। বল পেয়েই বক্সের একটু বাইরে থেকে বাঁ পায়ের দুর্দান্ত প্লেসিংয়ে মেসি পরাস্ত করলেন ম্যানচেস্টার সিটির ব্রাজিলিয়ান গোলকিপার এদেরসনকে।

পিএসজির জার্সি গায়ে মেসির গোলটা এমন ছবির মতো সুন্দরই হলো। গোটা ম্যাচে তেমন কিছু না করতে পারলেও মেসি দেখিয়ে দিলেন, এমন দু-একটা জাদুকরি মুহূর্তেই সবকিছু তছনছ করে দেওয়ার সামর্থ্য আছে তাঁর। প্যারিসের দর্শকেরাও দেখলেন, মেসি কী করতে পারেন!

default-image

পিএসজির হয়ে মেসির প্রথম গোলের দিনে পিএসজি জয় পাবে না, তা কি হয়? তেমনটা হয়ওনি। সেনেগালের মিডফিল্ডার ইদ্রিসা গানা গেয়ে ও মেসির গোলের সাহায্যে পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটিকে ২-০ গোলে হারিয়েছে পিএসজি। সাবেক গুরু পেপ গার্দিওলার বর্তমান দল ম্যানচেস্টার সিটি দেখল নতুন জার্সিতে মেসির উল্লাস।

অথচ মেসি যে ম্যাচে খেলবেন, সেটাই নিশ্চিত ছিল না। পায়ের চোটটা বেশ কয়েক দিন ধরেই ভোগাচ্ছিল আর্জেন্টাইন অধিনায়ককে। যে কারণে অলিম্পিক লিওঁর বিপক্ষে মূল একাদশে খেলা এই তারকা মেস ও মঁপেলিয়ের বিপক্ষে লিগের পরের দুই ম্যাচে খেলতে পারেননি।

আজকেও সিটির বিপক্ষে খেলতে পারবেন কি না, যথেষ্ট সংশয় ছিল। তবে কোচ মরিসিও পচেত্তিনো আশাবাদী ছিলেন মেসিকে পাওয়ার ব্যাপারে। কোচের ভরসার মূল্য দিয়েছেন মেসি।

শুধু মেসিই নন, চোটের কারণে ইতালিয়ান মিডফিল্ডার মার্কো ভেরাত্তিও খেলতে পারেন কি না, সেটা নিয়েও সন্দেহ ছিল। মেসির মতো ভেরাত্তিও এই ম্যাচেই ফিরেছেন মাঠে। দুজন মিলে দর্শকদের উপহার দিয়েছেন অসাধারণ এক গোল। তাতেই ম্যানচেস্টার সিটির মতো শক্তিশালী দলের বিপক্ষে ২-০ গোলে জেতার সুখ নিয়ে বাড়ি ফিরতে পেরেছেন পিএসজির সমর্থকেরা।

ম্যাচে এই দুজনের ভূমিকা এতই বেশি ছিল, ম্যাচ শেষে সিটির কোচ পেপ গার্দিওলা দুজনের সুনাম করতে ভোলেননি, ‘মেসি যদি প্যারিসে খুশি থাকে, আমিও মেসির জন্য খুশি হব। তবে আমাকে মার্কো ভেরাত্তিকে নিয়ে কিছু বলতে দিন। অসাধারণ একজন খেলোয়াড়। ছোটখাটো একজন খেলোয়াড় হলেও আপনি ওর ওপর সব সময় ভরসা করতে পারবেন। ও চোট থেকে ফিরে এসেছে, আমি অনেক খুশি।’

এদিকে গ্রুপের আরেক ম্যাচে ক্লাব ব্রুগার বিপক্ষে হেরে বসেছে জার্মান ক্লাব আর বি লাইপজিগ। পাঁচ মিনিটে ফরাসি মিডফিল্ডার ক্রিস্টোফার এনকুনকুর গোলে লাইপজিগ প্রথমে এগিয়ে গেলেও পরে দুই বেলজিয়ান মিডফিল্ডার হান্স ভানাকেন ও মাৎস রিতসের গোলে জয় ছিনিয়ে আনে ব্রুগা। গ্রুপে এক জয় ও এক ড্র থেকে পাওয়া ৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে পিএসজি। সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় স্থানে আছে ব্রুগা। ১ পয়েন্ট কম নিয়ে তৃতীয় ও চতুর্থ স্থানে আছে যথাক্রমে সিটি ও লাইপজিগ।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন