গ্রিজমানকে পেনাল্টি ছেড়ে দিলেন মেসি।
গ্রিজমানকে পেনাল্টি ছেড়ে দিলেন মেসি।ছবি: রয়টার্স

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, গ্যারেথ বেলরা তখন রিয়াল মাদ্রিদে। আলাভেসের বিপক্ষে ২০১৮ সালে লা লিগার সেই ম্যাচে হ্যাটট্রিকের দ্বারপ্রান্তে ছিলেন রোনালদো। চাই আর এক গোল। হঠাৎ পেনাল্টি পায় রিয়াল। রোনালদো সবাইকে অবাক করে দিয়ে স্পটকিকটা নিতে বলেন করিম বেনজেমাকে। সে ম্যাচে রোনালদো শেষ পর্যন্ত হ্যাটট্রিক না পেলেও তাঁর নিঃস্বার্থ মানসিকতার বন্দনায় মেতেছিল সবাই। কাল বার্সেলোনা-হেতাফে ম্যাচে লিওনেল মেসিও করলেন একই জিনিস। আর্জেন্টাইন তারকার প্রশংসায় মুখর সবাই। তাঁর জোড়া গোলেই ম্যাচটি ৫-২ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা।

৩৩ মিনিটের মধ্যে জোড়া গোল পেয়ে গিয়েছিলেন মেসি। অপেক্ষা ছিল হ্যাটট্রিক তুলে নেওয়ার। যোগ করা সময়ে ২ মিনিটের মাথায় সুযোগটা পেয়ে যান মেসি। হেতাফে বক্সের মধ্যে বার্সেলোনার ফরাসি তারকা আঁতোয়ান গ্রিজমানকে ফাউল করেন অতিথি দলটির সেন্টার ব্যাক সোফিয়ান চাকলা। পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। স্পটকিকটি মেসি নিতে পারতেন। হ্যাটট্রিকের মুখে দাঁড়িয়ে সেটিই হয়তো স্বাভাবিক হতো। কিন্তু তা না করে গ্রিজমানকে গোল করার সুযোগ করে দেন মেসি। ম্যাচের শেষ গোলটি করে গ্রিজমানও তাঁর সতীর্থকে হতাশ করেননি।

default-image

এর আগে বার্সাকে ম্যাচে এগিয়ে দেন মেসি। ৮ মিনিটে সের্হিও বুসকেটসের নিখুঁত পাস থেকে গোল করেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। কিন্তু এই ‘এগিয়ে যাওয়া’ ৪ মিনিটের বেশি ধরে রাখতে পারেনি বার্সা। ১২ মিনিটে আত্মঘাতী গোল করে বসেন বার্সা ডিফেন্ডার ক্লেঁম লংলে। হেতাফে এই ‘উপহার’ ফিরিয়ে দিতে মাত্র ১৬ মিনিট দেরি করেছে। ২৮ মিনিটে প্রতিপক্ষের কাছ থেকে আত্মঘাতী গোল উপহার পায় বার্সাও। সতীর্থ গোলরক্ষক ডেভিড সোরিয়াকে ব্যাক-পাস দিতে গিয়ে নিখুঁত প্লেসিং শটে বল নিজেদের জালে পাঠানোর অনিচ্ছাকৃত ‘অপরাধ’ করে বসেন চাকলা।

বিজ্ঞাপন

প্রথমার্ধের ৩৩ মিনিটে আরও একটি গোল পান মেসি। প্রথমে গোলপোস্টে মেরে পরে দুরূহ কোণ থেকে লা লিগায় নিজের ২৫তম গোলটি তুলে নেন তিনি। টানা ১২ মৌসুম স্পেনের শীর্ষস্থানীয় লিগে এ নিয়ে ন্যূনতম ২৫ গোল করলেন তিনি। ম্যাচে হেরেও পেনাল্টি পেয়েছে। ৬৯ মিনিটে বার্সা সেন্টার ব্যাক রোনাল্ড আরাউজোর ফাউল থেকে পেনাল্টি পায় হেতাফে, গোল করেন এনেস ইউনাল। নির্ধারিত সময়ের ৩ মিনিট আগে মেসির কর্নার থেকে হেডে গোল করে ভুলের প্রায়শ্চিত্ত করেন আরাউজো। এ জয়ে ৩১ ম্যাচে ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের তিনে উঠে এল বার্সা। দুইয়ে থাকা রিয়ালের সঙ্গে ২ পয়েন্ট ব্যবধানে পিছিয়ে রোনাল্ড কোমানের দল। ৩২ ম্যাচে রিয়ালের সংগ্রহ ৭০ পয়েন্ট। তাদের সমান ম্যাচে ৭৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আতলেতিকো মাদ্রিদ।

default-image

কোপা দেল রে জেতায় ম্যাচের আগে বার্সাকে গার্ড অব অনার দেয় হেতাফে। তবে বার্সার সমালোচনাসূচক টি-শার্টও পরেছিল দলটি। ‘অর্জন করে নাও’—কথাটা লেখা ছিল তাদের টি-শার্টে। সুপার লিগে বার্সা অংশ নেওয়ার সমালোচনা করেই এই কথা—সেটির ব্যাখ্যা হতে পারে দুরকম। ভক্তদের ভালোবাসা পাওয়া এবং ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় খেলার যোগ্যতা অর্জন। মহাবিতর্কিত সুপার লিগ নিয়ে তোড়জোড় প্রায় থেমে যাওয়ার পথে।

এ লিগ আয়োজনের জন্য যে ১২টি ক্লাব এক জোট বেঁধেছিল, বার্সাও আছে তাদের মধ্যে। বাকিরা সরে এলে এখনো সুপার লিগ নিয়ে পড়ে আছে রিয়াল ও বার্সা। শুরুতে বলা হয়েছিল, এ টুর্নামেন্টে প্রতিষ্ঠাতা ১৫টি ক্লাব প্রতি মৌসুমেই খেলার সুযোগ পাবে। অর্থাৎ কোনো অবনমন নেই—এমন নিয়মের সমালোচনা করেই ওই টি-শার্ট পরেছিলেন হেতাফের খেলোয়াড়েরা।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন