বিজ্ঞাপন

ওদিকে গুঞ্জন চলছে লন্ডনের আরেক ক্লাব টটেনহামের স্ট্রাইকার হ্যারি কেইনকে নিয়ে। ইংল্যান্ডের হয়ে ইউরো অভিযান শেষে আপাতত তিন সপ্তাহের ছুটি কাটাচ্ছেন কেইন। ছুটি শেষে তাঁর যোগ দেওয়ার কথা ক্লাব টটেনহামের অনুশীলনে। কিন্তু আসলেই কি টটেনহামে থাকতে চান ইংল্যান্ড অধিনায়ক? ইউরোতে তাঁর সঙ্গে প্রায় ছয় সপ্তাহ কাটানো ইংল্যান্ড দলের সতীর্থরা সেটা মনে করেন না। তাঁদের অনেকের কাছেই নাকি কেইন বলেছেন, তিনি ক্লাব বদল করতে চান এবং যেতে চান ম্যানচেস্টার সিটিতে।


এমন হাজারো দলবদলের গুঞ্জনে মুখরিত ফুটবলপাড়া। কিলিয়ান এমবাপ্পে কি পিএসজি ছাড়তে পারবেন? কী লেখা আছে গ্যারেথ বেল কিংবা ফিলিপ কুতিনিওদের ভাগ্যে? আর্লিং হরলান্ড কি চেলসিতে যাবেন? আগুয়েরোর উত্তরসূরি হিসেবে হ্যারি কেইন না রবার্ট লেফানডফস্কি—কাকে চান পেপ গার্দিওলা? জিদান-রামোস যাওয়ার পর কাদের দিয়ে দল সাজাচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদ? আতোয়ান গ্রিজমান কি বার্সেলোনা ছেড়ে আতলেতিকোয় ফিরবেন? অন্যান্য লিগেরই-বা অবস্থা কেমন? ইউরো ও কোপায় আলো ছড়ানো কাদের দিকে নজর দিচ্ছে বড় ক্লাবগুলো?
এ রকম অনেক প্রশ্নের উত্তর নিশ্চিত হয়ে যাবে আর কিছুদিনের মধ্যেই। ইউরোপীয় ফুটবলে গ্রীষ্মকালীন দলবদল চলছে এখন। ইউরোপের প্রধান লিগগুলোর দলবদল চলবে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত। এ পর্যন্ত কোন কোন খেলোয়াড় দল পরিবর্তন করলেন? কে কে এখনো করেননি কিন্তু করতে পারেন? লম্বা তালিকাটা এক নজরে দেখে নেওয়া যাক—

সম্ভাব্য যেসব দলবদল হতে পারে


আর্লিং হরলান্ড
বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের এই স্ট্রাইকারকে পেতে অনেকে আগ্রহী থাকলেও সবচেয়ে উঠেপড়ে লেগেছে চেলসি। এই স্ট্রাইকারকে পেতে নিজেদের রেকর্ড ফি দিতেও পিছপা নয় তারা। ইংলিশ স্ট্রাইকার ট্যামি আব্রাহামকে বিক্রি করে যেকোনো মূল্যে হরলান্ডকে দলে আনতে চায় তারা। কিন্তু মাত্র জেডন সানচোকে বিক্রি করা ডর্টমুন্ড এখনই হরলান্ডকে ছাড়বে কেন? স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, মাথা ঘুরিয়ে দেওয়ার মতো কোনো প্রস্তাব না পেলে হরলান্ডকে ছাড়বে না তারা। এই মাথা ঘুরিয়ে দেওয়ার মতো প্রস্তাব যে ১৫ কোটি ইউরোর কাছাকাছি, এমন একটা গুঞ্জনই ভাসছে বাতাসে।

default-image

এদিকে চেলসি বেশ ভালোই জানে, করোনার সময় যেখানে সব বড় ক্লাবই রয়েসয়ে খরচ করছে, এ অবস্থায় তাদের জন্য হরলান্ডকে কেনার এটাই উপযুক্ত সময়। কারণ, এক বছর পর হরলান্ডের রিলিজ ক্লজ চালু হয়ে যাবে, সাড়ে সাত কোটি ইউরো। যে দামে তখন অনেকেই হরলান্ডকে দলে চাইবে। চেলসি ওই প্রতিযোগিতায় যেতে চায় না।

মিরালেম পিয়ানিচ
বসনিয়ার এই মিডফিল্ডারকে দলে রাখতে চাইছে না বার্সেলোনা। ওদিকে জুভেন্টাসের কোচ মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রি তাঁর পুরোনো এই শিষ্যকে ফিরে পেতে আগ্রহী। যে কারণে ওয়েলসের মিডফিল্ডার অ্যারন র‍্যামসির সঙ্গে পিয়ানিচের অদলবদল চুক্তি করতে চাইছে জুভেন্টাস। বার্সেলোনা এমন কোনো চুক্তিতে রাজি নয়, কারণ র‍্যামসির আকাশছোঁয়া বেতন দেওয়ার ইচ্ছা বা সামর্থ্য, কোনোটাই আপাতত দলটার নেই।

default-image

আতোয়ান গ্রিজমান
লিওনেল মেসির নতুন চুক্তি যাতে ঠিকঠাক হয়, সে জন্য খরচ বাঁচাতে বার্সেলোনা আতোয়ান গ্রিজমানকে ছেড়ে দিতে পারে, এটা পুরোনো খবর। আতলেতিকোর স্প্যানিশ মিডফিল্ডার সল নিগেজের সঙ্গে অদলবদল চুক্তিতে গ্রিজমানকে আবারও আতলেতিকোয় পাঠানো হতে পারে—এমন গুঞ্জন শোনা গেলেও গ্রিজমানের বাড়তি বেতন সে সম্ভাব্য চুক্তিতে বাধা দিচ্ছে।

সল নিগেজ
এদিকে গ্রিজমানের সঙ্গে অদলবদল চুক্তিতে সল নিগেজ বার্সায় না যেতে পারলে তাঁর জন্য আগ্রহী হতে পারে লিভারপুল ও চেলসির মতো ক্লাবগুলো। এর মধ্যে লিভারপুল সলের জন্য ৪ কোটি পাউন্ডের একটা প্রস্তাব দিয়ে রেখেছে বলে খবর।

রাফায়েল ভারান
শুধু সের্হিও রামোসই নন, রিয়াল ছাড়তে পারেন রামোসের রক্ষণসঙ্গী ভারানও। রিয়ালের সঙ্গে ভারানের চলতি চুক্তি শেষ হবে আগামী বছরের জুনে। চুক্তির বেশি দিন বাকি নেই। এ অবস্থায় ভারানকে নতুন চুক্তির আওতায় বহুদিন ধরেই আনতে চাইছে রিয়াল। কিন্তু ভারান নিজেই রিয়ালে থাকতে আগ্রহী নন বলে শোনা যাচ্ছে। রিয়ালের হয়ে সম্ভাব্য সবকিছুই জিতেছেন ভারান, জাতীয় দলের হয়ে জিতেছেন বিশ্বকাপ। এ অবস্থায় ক্যারিয়ারে নতুন চ্যালেঞ্জ চাইছেন ২৮ বছর বয়সী সেন্টারব্যাক। সেই লক্ষ্যেই হয়তো রিয়ালে থাকতে চাইছেন না ভারান!


এদিকে বিশ্বস্ত ফরাসি সাংবাদিক মুহামেদ বুহাফসি জানিয়েছেন, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে ভারানের চুক্তির সবকিছুই প্রায় চূড়ান্ত। বাকি আছে শুধু রিয়ালের রাজি হওয়া। স্প্যানিশ রেডিও এল ত্রানসিস্তরও একই খবর দিয়েছে।

default-image

নিকোলো বারেল্লা
ইন্টারের এই ইতালিয়ান মিডফিল্ডার কয়েক মৌসুম ধরেই দুর্দান্ত ফর্মে আছেন। এবার ইতালির ইউরো জয়ের পেছনের তাঁর বড় ভূমিকা ছিল। এই মিডফিল্ডারকে দলে টানার ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছে লিভারপুল ও টটেনহামের মতো ক্লাবগুলো। যে কোচের অধীনে গত মৌসুমে লিগ জিতেছিলেন বারেল্লা, সেই আন্তোনিও কন্তে নেই দলে। আশরাফ হাকিমির মতো খেলোয়াড় ক্লাব ছেড়েছেন, নতুন কোনো ভালো খেলোয়াড় ইন্টার আদৌ কিনবে কি না, ঠিক নেই। এই অবস্থায় ইন্টার বারেল্লাকে ছাড়ে কি না, দেখার বিষয়।

জ্যাক গ্রিলিশ
ইংলিশ এই মিডফিল্ডারের প্রতি ম্যানচেস্টার সিটি থেকে শুরু করে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, টটেনহাম, আর্সেনাল—সব ক্লাবই আগ্রহী। গ্রিলিশের দল অ্যাস্টন ভিলা সাফ জানিয়ে দিয়েছে, ১০ কোটি ইউরো না পেলে গ্রিলিশকে ছাড়বে না তারা।

এদুয়ার্দো কামাভিঙ্গা
ফরাসি এই মিডফিল্ডারের ব্যাপারে আগ্রহী ছিল রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে বেশি খরচ করতে আগ্রহ দেখাচ্ছে না দলটি। ওদিকে কামাভিঙ্গার ক্লাব রেনেঁও গত মৌসুমে আট কোটি ইউরো দাম হাঁকিয়েছিল তাঁর জন্য। এ মৌসুমে রেনেঁও বুঝেছে, অত দাম চাইলে ক্রেতা পাওয়া যাবে না, ওদিকে তাঁদের সঙ্গে কামাভিঙ্গার চুক্তিরও মাত্র এক বছর বাকি আছে। চুক্তি নবায়ন না করলে ফ্রিতে আগামী মৌসুমে রেনেঁ ছাড়বেন কামাভিঙ্গা। এই অবস্থায় কামাভিঙ্গার দাম কমিয়ে অর্ধেক করে দিয়েছে ফরাসি ক্লাবটা। তবে এখন আগ্রহী ক্লাবের তালিকায় রিয়াল নয়, চলে এসেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

default-image

মানুয়েল লোকাতেল্লি
এবার ইউরোতে আলো ছড়ানো সাসসুয়োলোর এই মিডফিল্ডারের ব্যাপারে প্রথম থেকেই আগ্রহী ছিল জুভেন্টাস। কিন্তু পুরো ৪ কোটি ইউরো পরিশোধ করতে তাদের বড্ড অনীহা। লোকাতেল্লি নিজেও জুভেন্টাসে যেতে চান, কিন্তু জুভেন্টাসের প্রস্তাব মনে ধরছে না সাসসুয়োলোর। আপাতত ধারে লোকাতেল্লিকে দলে নিয়ে পরে ৩ কোটি ইউরো পরিশোধ করতে চায় জুভেন্টাস। ওদিকে আর্সেনাল পুরো ৪ কোটি ইউরো খরচ করতে প্রস্তুত।

বেন হোয়াইট
ব্রাইটনের এই ইংলিশ সেন্টারব্যাককে পাওয়ার জন্য ৫ কোটি ইউরো খরচ করতে রাজি হয়েছে আর্সেনাল। কিছুদিনের মধ্যেই আনুষ্ঠানিক ঘোষণা চলে আসবে। ২০২৬ সাল পর্যন্ত আর্সেনালে থাকতে রাজি হয়েছেন হোয়াইট। হোয়াইট ছাড়াও আন্ডারলেখটের বেলজিয়ান মিডফিল্ডার আলবার্ট সাম্বি লোকোঙ্গাকে দলে আনছে আর্সেনাল।

সর্বশেষ সম্পাদিত দলবদল
অলিভিয়ের জিরু (স্ট্রাইকার, ফ্রান্স)
চেলসি থেকে এসি মিলান, ১৭ লাখ পাউন্ড


ফোদে বাল্লো-তোরে (লেফটব্যাক, ফ্রান্স)
মোনাকো থেকে এসি মিলান, ৩২ লাখ পাউন্ড


লুকাস এনমেচা (স্ট্রাইকার, জার্মানি)
ম্যানচেস্টার সিটি থেকে ভলফসবুর্গ, ১ কোটি ১০ লাখ পাউন্ড

ইতিমধ্যে গুরুত্বপূর্ণ যেসব দলবদল হয়ে গিয়েছে
জিয়ানলুইজি দোন্নারুম্মা (গোলকিপার, ইতালি)
এসি মিলান থেকে পিএসজি, ফ্রি


ডেভিড আলাবা (সেন্টারব্যাক, অস্ট্রিয়া)
বায়ার্ন মিউনিখ থেকে রিয়াল মাদ্রিদ, ফ্রি


রদ্রিগো দি পল (মিডফিল্ডার, আর্জেন্টিনা)
উদিনেসে থেকে আতলেতিকো মাদ্রিদ, ৩ কোটি পাউন্ড


জেডন সানচো (উইঙ্গার, ইংল্যান্ড)
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ৭ কোটি ৩০ লাখ পাউন্ড


সের্হিও রামোস (সেন্টারব্যাক, স্পেন)
রিয়াল মাদ্রিদ থেকে পিএসজি, ফ্রি

ইব্রাহিমা কোনাতে (সেন্টারব্যাক, ফ্রান্স)
আর বি লাইপজিগ থেকে লিভারপুল, ৩ কোটি ৬০ লাখ পাউন্ড


ফেলিপে অ্যান্ডারসন (উইঙ্গার, ব্রাজিল)
ওয়েস্ট হাম ইউনাইটেড থেকে লাৎসিও, ৩৫ লাখ পাউন্ড


সের্হিও আগুয়েরো (স্ট্রাইকার, আর্জেন্টিনা)
ম্যানচেস্টার সিটি থেকে বার্সেলোনা, ফ্রি


হোসে সা (গোলকিপার, পর্তুগাল)
অলিম্পিয়াকোস থেকে উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স, ৬৮ লাখ পাউন্ড


আশরাফ হাকিমি (রাইটব্যাক, মরক্কো)
ইন্টার মিলান থেকে পিএসজি, ৫ কোটি ১৩ লাখ পাউন্ড

default-image

জুনিয়র ফিরপো (লেফটব্যাক, স্পেন)
বার্সেলোনা থেকে লিডস ইউনাইটেড, ১ কোটি ৩০ লাখ পাউন্ড


রুই পাত্রিসিও (গোলকিপার, পর্তুগাল)
উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স থেকে এএস রোমা, ১ কোটি পাউন্ড


সান্দ্রো তোনালি (মিডফিল্ডার, ইতালি)
ব্রেসিয়া থেকে এসি মিলান, ৬৪ লাখ পাউন্ড


মাইক মাইনিয়ান (গোলকিপার, ফ্রান্স)
লিল থেকে এসি মিলান, ১ কোটি ১২ লাখ পাউন্ড


মাত্তেও গেনদোজি (মিডফিল্ডার, ফ্রান্স)
আর্সেনাল থেকে মার্শেই, ধার


উইলিয়াম সালিবা (সেন্টারব্যাক, ফ্রান্স)
আর্সেনাল থেকে অলিম্পিক মার্শেই, ধার


প্যাটসন দাকা (স্ট্রাইকার, জাম্বিয়া)
রেড বুল সালজবুর্গ, ২ কোটি ৩০ লাখ পাউন্ড


কার্লোস বাক্কা (স্ট্রাইকার, কলম্বিয়া)
ভিয়ারিয়াল থেকে গ্রানাদা, ফ্রি


জর্জিনিও ভাইনালডম (মিডফিল্ডার, নেদারল্যান্ডস)
লিভারপুল থেকে পিএসজি, ফ্রি


রায়ান বার্ট্রান্ড (লেফটব্যাক, ইংল্যান্ড)
সাউদাম্পটন থেকে লেস্টার সিটি, ফ্রি

default-image

কালভিন স্টেংস (উইঙ্গার, নেদারল্যান্ডস)
এজেড আলকমার থেকে নিস, ৮৫ লাখ পাউন্ড


মিচেল বাকার (লেফটব্যাক, নেদারল্যান্ডস)
পিএসজি থেকে বায়ার লেভারকুসেন, ৮৫ লাখ পাউন্ড


ম্যাথিউস ফার্নান্দেস (মিডফিল্ডার, ব্রাজিল)
বার্সেলোনা থেকে পালমেইরাস, ফ্রি


জোয়াও মারিও (মিডফিল্ডার, পর্তুগাল)
ইন্টার মিলান থেকে বেনফিকা, ফ্রি


এরিক গার্সিয়া (সেন্টারব্যাক, স্পেন)
ম্যানচেস্টার সিটি থেকে বার্সেলোনা, ফ্রি

default-image

এমারসন রয়্যাল (রাইটব্যাক, ব্রাজিল)
রিয়াল বেতিস থেকে বার্সেলোনা, ৭৩ লাখ পাউন্ড


থিও ওয়ালকট (উইঙ্গার, ইংল্যান্ড)
এভারটন থেকে সাউদাম্পটন, ফ্রি


জাভি মার্তিনেজ (মিডফিল্ডার, স্পেন)
বায়ার্ন মিউনিখ থেকে কাতার স্পোর্টস ক্লাব, ফ্রি


কনরাড দে লা ফুয়েন্তে (উইঙ্গার, যুক্তরাষ্ট্র)
বার্সেলোনা থেকে অলিম্পিক মার্শেই, ২৬ লাখ পাউন্ড


কার্লেস আলেনিয়া (মিডফিল্ডার, স্পেন)
বার্সেলোনা থেকে হেতাফে, ৩৫ লাখ পাউন্ড


এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া (মিডফিল্ডার, আর্জেন্টিনা)
নরউইচ সিটি থেকে অ্যাস্টন ভিলা, ৩ কোটি পাউন্ড


কেকি (স্ট্রাইকার, ব্রাজিল)
ফ্লুমিনেন্স থেকে ম্যানচেস্টার সিটি, ৮৬ লাখ পাউন্ড


হুয়ান মুসো (গোলকিপার, আর্জেন্টিনা)
উদিনেসে থেকে আতালান্তা, ১ কোটি ৭২ লাখ পাউন্ড


নুনো তাভারেস (লেফটব্যাক, পর্তুগাল)
বেনফিকা থেকে আর্সেনাল, ৬৮ লাখ পাউন্ড


মেম্ফিস ডিপাই (স্ট্রাইকার, নেদারল্যান্ডস)
অলিম্পিক লিওঁ থেকে বার্সেলোনা, ফ্রি

নিকোলাস গঞ্জালেস (উইঙ্গার, আর্জেন্টিনা)
ভিএফবি স্টুটগার্ট থেকে ফিওরেন্তিনা, ২ কোটি ৩১ লাখ পাউন্ড


জিয়ানলুইজি বুফন (গোলকিপার, ইতালি)
জুভেন্টাস থেকে পারমা, ফ্রি


পাও লোপেস (গোলকিপার, স্পেন)
এএস রোমা থেকে অলিম্পিক মার্শেই, ধার


গেরসন (মিডফিল্ডার, ব্রাজিল)
ফ্লামেঙ্গো থেকে অলিম্পিক মার্শেই, ১ কোটি ৭৩ লাখ পাউন্ড


রায়ান আইত নুরি (লেফটব্যাক, ফ্রান্স)
অজেঁ থেকে উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স, ১ কোটি ইউরো


সভেন উলরিয়েখ (গোলকিপার, জার্মানি)
হামবুর্গ থেকে বায়ার্ন মিউনিখ, ফ্রি


টম হিটন (গোলকিপার, ইংল্যান্ড)
অ্যাস্টন ভিলা থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ধার


হাকান চালহানোলু (মিডফিল্ডার, তুরস্ক)
এসি মিলান থেকে ইন্টার মিলান, ফ্রি


জশুয়া কিং (স্ট্রাইকার, নরওয়ে)
এভারটন থেকে ওয়াটফোর্ড, ফ্রি


রাফায়েল সান্তোস বোরে (স্ট্রাইকার, কলম্বিয়া)
রিভার প্লেট থেকে বায়ার লেভারকুসেন, ফ্রি

default-image

অ্যাশলি ইয়ং (উইঙ্গার, ইংল্যান্ড)
ইন্টার মিলান থেকে অ্যাস্টন ভিলা, ফ্রি


ড্যানি রোজ (লেফটব্যাক, ইংল্যান্ড)
টটেনহাম হটস্পার থেকে ওয়াটফোর্ড, ফ্রি


ফিকায়ো তোমোরি (সেন্টারব্যাক, ইংল্যান্ড)
চেলসি থেকে এসি মিলান, ৩ কোটি পাউন্ড


আলেক্সান্দার নুবেল (গোলকিপার, জার্মানি)
বায়ার্ন মিউনিখ থেকে মোনাকো, ধার


জ্যাঁ-ক্লাইর তোদিবো (সেন্টারব্যাক, ফ্রান্স)
বার্সেলোনা থেকে নিস, ৭৩ লাখ পাউন্ড


চেঙ্গিজ ইউন্দা (উইঙ্গার, তুরস্ক)
এএস রোমা থেকে অলিম্পিক মার্শেই, ধার


বুবাকারি সুমাওরে (মিডফিল্ডার, ফ্রান্স)
লিল থেকে লেস্টার সিটি, ১ কোটি ৭০ লাখ পাউন্ড


ফ্রান্সিসকো ত্রিনকাও (উইঙ্গার, পর্তুগাল)
বার্সেলোনা থেকে উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স, ধার


লিওনার্দো বালের্দি (সেন্টারব্যাক, আর্জেন্টিনা)
বরুসিয়া ডর্টমুন্ড থেকে অলিম্পিক মার্শেই, ৬৯ লাখ পাউন্ড


কেভিন স্ট্রুটমান (মিডফিল্ডার, নেদারল্যান্ডস)
অলিম্পিক মার্শেই থেকে কালিয়ারি, ধার

হুয়ান ফয়থ (সেন্টারব্যাক, আর্জেন্টিনা)
টটেনহাম হটস্পার থেকে ভিয়ারিয়াল, ১ কোটি ৩০ লাখ পাউন্ড


ভিক্টর মোজেস (উইঙ্গার, নাইজেরিয়া)
চেলসি থেকে স্পার্তাক মস্কো, ৪৩ লাখ পাউন্ড


বিলি গিলমোর (মিডফিল্ডার, স্কটল্যান্ড)
চেলসি থেকে নরউইচ সিটি, ধার


আন্দ্রে সিলভা (স্ট্রাইকার, পর্তুগাল)
আইনট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট থেকে আর বি লাইপজিগ, ১ কোটি ৯৮ লাখ পাউন্ড

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন